BREAKING NEWS

১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মমতার চিঠির পরই সংসদে নবীন পট্টনায়েকের সঙ্গে দেখা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের, বাড়ছে জল্পনা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 29, 2022 9:15 pm|    Updated: March 29, 2022 9:49 pm

TMC's Sudip Banerjee meets Naven Patnaik | Sangbad Pratidin

নন্দিতা রায়, নয়াদিল্লি: দেশের সমস্ত রাজনৈতিক দল ও বিরোধী মুখ্যমন্ত্রীদের বিজেপির বিরুদ্ধে একজোট হওয়ার ডাক দিয়ে মঙ্গলবারই অবিজেপি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের চিঠি দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ঘটনাচক্রে এদিনই সংসদে ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের সঙ্গে দেখা হয়ে গেল তৃণমূলের লোকসভার দলনেতা সুদীপ বন্দ্যপাধ্যায়ের। এদিন অন্য একটি কর্মসূচি নিয়ে সংসদে গিয়েছিল নবীন। সেখানেই তাঁর সঙ্গে দেখা হয় সুদীপের।

TMC's Sudip Banerjee meets Naven Patanaik

সূত্রের দাবি, এদিন সংসদের সেন্ট্রাল হলে বেশ কিছুক্ষণ কথা হয় নবীন এবং সুদীপের। পরস্পরের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন তাঁরা। সূত্রের খবর, সুদীপের (Sudip Banerjee) থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিয়েছেন নবীন পট্টনায়েক। অন্যদিকে সবচেয়ে বেশিদিন ধরে ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে কাজ চালিয়ে যাওয়ার জন্য নবীন পট্টনায়েকে অভিনন্দন জানিয়েছেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। আপাতত দৃষ্টিতে এটা নেহাতই সৌজন্য সাক্ষাৎ মনে হলেও রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ঠিক আগে আগে তৃণমূলের লোকসভার দলনেতার সঙ্গে বিজেডি (BJD) নেতার এই সাক্ষাৎ বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: রামপুরহাট এবং বিধানসভার অশান্তি নিয়ে উদ্বেগ, মুখ্যমন্ত্রীকে মুখোমুখি আলোচনায় ডাক রাজ্যপালের]

বস্তুত, মঙ্গলবারই দেশের সমস্ত রাজনৈতিক দল ও বিরোধী মুখ্যমন্ত্রীদের বিজেপির বিরুদ্ধে একজোট হওয়ার ডাক দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি দেশের সমস্ত গণতান্ত্রিক কাঠামো ধ্বংস করে ফেলছে। এমন ভয়ঙ্কর শক্তিকে রুখতে হবে এখনই। এটাই সবার সাংবিধানিক দায়িত্বও। মঙ্গলবার চিঠি লিখে বিরোধীদের একসঙ্গে বিজেপির কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করার আহ্বান জানান সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) সভানেত্রী।

[আরও পড়ুন: ফের বিরোধী ঐক্যে শান, প্রতিবাদে শামিল হতে অবিজেপি শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের চিঠি মমতার]

আসলে মমতা চাইছেন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগে সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে একত্রিত করতে। সেই উদ্দেশ্যেই নবীন পট্টনায়েক-সহ বিরোধী শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের চিঠি লিখেছেন তিনি। যদিও এদিন ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী যতক্ষণ সংসদে ছিলেন তখনও তাঁর কাছে সেই চিঠি গিয়ে পৌঁছায়নি। সেকারণেই সে বিষয়ে কোনও মন্তব্য তিনি করতে চাননি। ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত সমবেতভাবে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী ঠিক করার কোনও প্রস্তাব তাঁর কাছে আসেনি। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে