BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বক্তব্যে অনড় থেকে সমালোচকদের একহাত নিলেন বিপ্লব দেব

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 18, 2018 4:56 pm|    Updated: November 19, 2018 1:48 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি সংঘ পরিবারের নয়নের মণি। তাঁর হাত ধরে দু’দশকেরও বেশি বাম শাসনের অচলায়তন ভেঙে ত্রিপুরায় সরকার গড়েছে বিজেপি। মঙ্গলবার ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব সদর্পে ঘোষণা করেন, মহাভারতের যুগেও ইন্টারনেট ছিল। আর তারপরই গোটা দেশ জুড়ে তাঁর সমালোচনা শুরু হয়। কিন্তু দেশ জোড়া চাপের মুখেও নিজের বক্তব্যে অনড় মুখ্যমন্ত্রী। বুধবার ফের জানালেন, সমালোচকরা অকারণেই জলঘোলা করছে। আদতে ‘লক্ষ লক্ষ বছর আগে’ ভারতেই সবচেয়ে আধুনিক প্রযুক্তির আবিষ্কার হয়েছে।

দেব আজ বলেন, ‘কিছু সংকীর্ণ মনস্ক মানুষ রয়েছেন, যাঁরা নিজের দেশকে ছোট করে দেখাতে পছন্দ করেন। তাঁরাই আবার অন্য দেশ এগিয়ে গিয়েছে বলে উদাহরণ দেন। আমার কথায় বিশ্বাস রাখুন। নিজেও ভুলবেন না, অন্যকেও গুলিয়ে দেবেন না।’ মঙ্গলবার ঠিক কী বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী? বিপ্লব দেব বলেন, ‘অন্ধ রাজা ধৃতরাষ্ট্রকে ১৮ দিনের কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধের প্রতিটি বর্ণনা নিখুঁতভাবে ব্যাখা করেন সঞ্জয়। তার মানে সে সময় প্রয়োজনীয় প্রযুক্তি ছিল, ইন্টারনেট ছিল, স্যাটেলাইট ছিল।’

[মহাভারতের যুগেও ছিল ইন্টারনেট, চাঞ্চল্যকর দাবি ত্রিপুরার নয়া মুখ্যমন্ত্রীর]

মুখ্যমন্ত্রীর দাবি করেন, হাজার হাজার বছর আগেই ভারতে প্রয়োজনীয় প্রযুক্তি আবিষ্কৃত হয়। ন্যাশনাল ইনফরমেটিক্স সেন্টার(NIC) সেই সব প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে চলেছে। দেব বলেন, ‘আমি NIC-কে ধন্যবাদ জানাতে চাই তাদের কৃতিত্বের জন্য। কিন্তু বলতে বাধ্য হচ্ছি, ওই সব প্রযুক্তি  বহু আগেই আবিষ্কৃত হয়। ওই প্রযুক্তি আমাদেরই। NIC স্রেফ ওই প্রযুক্তিগুলিকে ব্যবহার করছে।’ দেবের এই মন্তব্যে বিস্মিত অনেকেই। কারণ, রাজনৈতিক মহলের একাংশ মনে করছিলেন, অপেক্ষাকৃত কম বয়সী মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব সম্ভবত ত্রিপুরাতে আধুনিকতার জোয়ার আনবেন। সদ্য নির্বাচত বিজেপি সরকারের মুখ্যমন্ত্রী এদিন আরও জানিয়েছেন, আগামী তিন বছরে তিনি ত্রিপুরাকে ‘মডেল’ রাজ্য হিসাবে গড়ে তুলবেন।

[সোমবার দুপুর থেকে অভুক্ত জগন্নাথ, মাটিতে মিশল কয়েক টন মহাপ্রসাদ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement