২১  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ৬ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সেনার ফাঁদে পা দিয়ে নিকেশ দুই হিজবুল জঙ্গি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 4, 2017 6:19 am|    Updated: September 29, 2019 5:46 pm

Two Hizbul terrorists killed in Kashmir's Baramulla

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীর উপত্যকায় জঙ্গিদমন অভিযানে ফের বড়সড় সাফল্য পেল ভারতীয় সেনাবাহিনী৷ সোমবার সেনার সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে নিকেশ হয়েছে দুই কুখ্যাত হিজবুল জঙ্গি৷

সেনা সূত্রে খবর, বারামুলা জেলার সোপরে একটি ডেরায় জঙ্গিদের লুকিয়ে থাকার খবর পায় সেনা৷ তারপরই দ্রুত ছকে ফেলা হয় অভিযানের নকশা৷ কোনওভাবেই যাতে জঙ্গিরা পালাতে না পারে, সেদিকে নজর রেখে ঘিরে ফেলা হয় গোটা এলাকা৷ এলাকা জুড়ে চিরুনি তল্লাশি শুরু করে সেনা, পুলিশ ও সিআরপিএফ-এর একটি যৌথবাহিনী৷ পালানোর পথ না পেয়ে জওয়ানদের দিকে গুলি ছুড়তে শুরু করে সন্ত্রাসবাদীরা৷ পালটা অভিযান চালান জওয়ানরাও৷ শুরু হয় গুলির লড়াই৷ বেশ কিছুক্ষণ গুলির লড়াই চলার পর খতম করা হয় দুই জঙ্গিকে৷

অভিযানের সময় ওই এলাকায় মোবাইল পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়৷ সম্প্রতি, জঙ্গিদের পালানোর সুযোগ করে দিচ্ছে কাশ্মীরের স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশ৷ সেনা অভিযানের সময় জওয়ানদের উদ্দেশে পাথর ছুড়ে জঙ্গিদের পালানোয় মদত দিচ্ছে তারা৷ সেনার ফাঁদে পড়ে গেলে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে পাথর নিক্ষেপকারীদের সাহায্য চাইছে জঙ্গিরা৷ ফলে ব্যহত হচ্ছে অভিযান৷ আগেও এভাবেই বেশ কয়েক জন জঙ্গি সেনার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে৷ তাই এবার অভিযানের শুরুতেই মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবাও বন্ধ করে দেয় প্রশাসন৷ এছাড়াও জনতাকে রুখতে রাস্তার সংযোগস্থলে বসানো হয় কড়া পাহারা৷

উল্লেখ্য, শনিবার কুলগামে কুখ্যাত লস্কর জঙ্গি ইশফাক পাদ্দেরকে নিকেশ করে সেনা৷ লেফটেন্যান্ট উমর ফৈয়াজ হত্যাকাণ্ডে মূল অভিযুক্ত ছিল ওই জঙ্গি৷ কাশ্মীরে জঙ্গিদের খতম করতে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের ছকই মেনে চলছে সেনাবাহিনী৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, উপত্যকায় শান্তি ফিরিয়ে আনতে পূর্ণ ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে সেনাবাহিনীকে৷ আর তাতে সুফল মিলেছে৷ চলতি বছর সেনার হাতে নিকেশ হয়েছে সাবজার ভাট, আবু দুজানার মতো শীর্ষ জঙ্গিনেতারা৷ তবে অশান্ত উপত্যকায় ক্রমশ বাড়তে থাকা দেশবিরোধী উন্মাদনায় কিছুটা হলেও উদ্বিগ্ন নয়াদিল্লি৷ এই পরিস্থিতিতে ‘দোভাল ডকট্রাইন’ কতটা সফল তা সময়ই বলবে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে