BREAKING NEWS

১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মুনাফা নেই, অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের হুমকি ওলা-উবের চালকদের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 16, 2018 7:33 pm|    Updated: August 19, 2019 12:37 pm

Uber, Ola drivers threaten indefinite strike from Sunday

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক১৮ মার্চ রবিবার রাত বারোটা থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য ধর্মঘটে যাওয়ার হুমকি দিল ক্যাব সংস্থা উবের, ওলার চালকরা। মুম্বই, দিল্লি, বেঙ্গালুরু, হায়দরাবাদ ও পুণেতে চলবে ধর্মঘট। মূলত প্রত্যাশা পূরণ না হওয়াকে কেন্দ্র করেই এই ধর্মঘটে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যেসব সুযোগ সুবিধার কথা ক্যাব সংস্থাগুলি দিয়েছিল, সেসব পূরণ হয়নি। যাঁদের সংস্থার পক্ষ থেকে গাড়ি দেওয়া হয়েছে, তাঁরা বেশি সুবিধা পাচ্ছেন। আর যাঁরা নিজেদের গাড়ি ওই সংস্থাগুলির অধীনে চালাচ্ছেন, তাঁরা লোকসানের মুখ দেখছেন দিনের পর দিন। এই বৈষম্যের নিষ্পত্তি ঘটাতেই অনির্দিষ্ট কালের জন্য ধর্মঘটে যাওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

[বিজেপি নেতার উপর হামলা, শ্রীনগরে খতম দুই জঙ্গি]

এই প্রসঙ্গে ধর্মঘটীদের তরফে নবনির্মাণ বহতক সেনার সঞ্জয় নায়েকের অভিযোগ, ক্যাব চালকদের বড় বড় নিশ্চয়তার গল্প শুনিয়েছিল ওলা-উবের। বাস্তবে তার কিছুই দেখা যায়নি। তারা পাঁচ থেকে সাত লক্ষ টাকা লগ্নি করে দেড় লক্ষ টাকা রোজগারের আশা রেখেছিল। বাস্তবে দেখা গেল তার অর্ধেকও প্রাপ্তির তালিকায় আসেনি। এরজন্য দায়ী সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলির বৈষম্যপূর্ণ ম্যানেজমেন্ট। এরা সংস্থার নিজস্ব গাড়িগুলিকে অনেক বেশি সুযোগ সুবিধা পাইয়ে দেয়। অন্যদিকে যেসব চালক নিজেদের গাড়ি নিয়ে সংস্থার এক্তিয়ারে কাজ করছেন, তাঁরা এহেন সুবিধার বিন্দুবিসর্গ পান না। যার ফলে মুনাফা রেট নামতে থাকে।

এদিকে যারা ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে ক্যাবের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন, তাঁদের জন্য বেশ কিছু সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থা রয়েছে ট্যাক্সি সংগঠনগুলির তরফে। তারমধ্যে অন্যতম মুদ্রা স্কিমের আওতায় ঋণ। কোনওরকম ভেরিফিকেশন ছাড়াই এই ঋণ দেওয়া হয়েছে। এদিকে লাভ না হওয়ায় ট্যাক্সি চালকরা সেই ঋণ মেটাতে পারছে না। যদি কাজের ক্ষেত্রে মুনাফা না বাড়ে, তাহলে নির্ধারিত ধর্মঘটে যাওয়ার জন্য তৈরি ক্যাব চালকরা। সাফ জানিয়ে দিয়েছেন সঞ্জয় নায়েক।

উল্লেখ্য, এমনিতে প্রায় ৪৫ হাজারের উপরে ক্যাব চলে মুম্বই শহরে। কিন্তু এহেন অসন্তোষের কারণে সেই সংখ্যা ২০ শতাংশ কমে গিয়েছে। এদিকে মুম্বই ট্যাক্সি ইউনিয়ন এই ধর্মঘটকে সমর্থন জানিয়েছে। বলা হয়েছে, গোটা বিষয়টি বিবেচনা করে কড়া পদক্ষেপ নিক পরিবহণ দপ্তর। যদিও ধর্মঘট প্রসঙ্গে মুখ খুলতে চায়নি ক্যাব সংস্থা ওলা। অন্যদিকে এই ধর্মঘটকে ধোঁয়াশা হিসেবে দেখছে উবের। ভোগান্তির আশঙ্কায় যাত্রীরা।

[সেতু-সমুদ্রম প্রকল্পে রাম সেতুর কোনও ক্ষতি হবে না, সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্রের আশ্বাস]

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে