০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ২৬ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পাকিস্তানকে শিক্ষা দিতে পরমাণু বোমা ফেলার ডাক বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেতার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 2, 2017 8:30 am|    Updated: June 2, 2017 8:30 am

Unleash nukes on Pakistan, demands VHP leader

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশের শান্তি বজায় রাখতে হলে পাকিস্তানে ফেলা হোক পরমাণু বোমা। লাগাতার সন্ত্রাস রুখতেই এই দাওয়াই দিলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের প্রবীণ নেতা আচার্য ধর্মেন্দ্র। তাঁর মতে, এভাবেই দেশের শান্তি-শঙ্খলা বজায় রাখা সম্ভব।

[গো-বিধি নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারবে রাজ্য, সুর নরম বিজেপির]

প্রতিবেশী দেশ নয়, পাকিস্তানকে শত্রু দেশ হিসেবে ব্যাখ্যা করেছেন বর্ষীয়াণ ভিএইচপি নেতা। তাঁর কথায়, সন্ত্রাসের আঁতুরঘর পাক মুলুক। সেখানে পরমাণু বোমা ফেললেই সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। এখানেই শেষ নয় ভারত-পাকিস্তানের বিচ্ছেদের জন্য জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন তিনি। রাজস্থানের কোটায় এক সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে প্রবীণ নেতা বলেন, ভারত-পাকিস্তানের মর্মান্তিক বিচ্ছেদের জন্য দায়ী মহাত্মা গান্ধীই। কেন মহাত্মা গান্ধীর ছবি ভারতীয় নোটে থাকে, তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন আচার্য ধর্মেন্দ্র।

এদিন গরুকে জাতীয় পশু ঘোষণা করার দাবি প্রসঙ্গেও কথা বলেন আচার্য ধর্মেন্দ্র। গরুকে জাতীয় মাতার স্বীকৃতি দেওয়া উচিত বলেই মনে করেন তিনি। তাঁর মতে এর জন্য সকলের আওয়াজ চলা উচিত। শুধু হিন্দুত্ববাদেরই নয়, দেশের মুসলিম একাধিক কিংবদন্তি সম্পর্কেও মন্তব্য করেন আচার্য। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এ পি জে আবদুল কালাম ও আশফাকুল্লা খানের মতো বিপ্লবীদের ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি। বলেন, দেশপ্রেমী মুসলিমের কমতি নেই ভারতবর্ষে। প্রত্যেকেই অসামান্য অবদান রেখে গিয়েছেন দেশের উন্নতির যজ্ঞে।

[ফিলিপিন্সের ম্যানিলায় বন্দুকবাজের হামলায় নিহত ৩৪]

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় দেশের বর্তমান বিজেপি সরকার নিয়েও নিজের মতামত প্রকাশ করেন আচার্য ধর্মেন্দ্র। মোদি সরকারের সমালোচনা শোনা যায় বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতার মুখে। কেন্দ্রকে কটাক্ষ করে তাঁর উক্তি, বর্তমান সরকার কেবলমাত্র স্বচ্ছ ভারত ও শৌচালয় তৈরি করতেই ব্যস্ত।

[প্যারিস জলবায়ু চুক্তি ছেড়ে বেরিয়ে গেল ট্রাম্পের আমেরিকা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে