BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মদের পর পানমশলা, নিষেধাজ্ঞা তুলে বিক্রিতে সায় যোগী সরকারের

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: May 7, 2020 6:58 pm|    Updated: May 7, 2020 6:58 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশ (UttarPradesh) থেকে পান মশলা তৈরি ও বিক্রির উপরে নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়া হল। করোনা আবহে পান মশলা তৈরিতে ও বিক্রিতে সম্মতি দেওয়ায় প্রশ্ন উঠেছে সরকারের যৌক্তিকতা নিয়ে। নতুন করে পান মশলা বিক্রি শুরু হলে সংক্রমণ বাড়বে বলেই আশঙ্কা চিকিৎসকদের।

জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়া সময় করোনা রুখতে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছিলেন রাস্তায় থুতু ফেলা বন্ধ করতে হবে। মারণ ভাইরাসকে দূর করতে গেলে কিছু সঠিক অভ্যাস ভারতীয়দের রপ্ত করতে হবে। তাই উত্তরপ্রদেশে অনেক আগেই গুটকা, পান মশলা বা তামাকজাতীয় অন্য মশলা তৈরি, বিক্রি ও দোকানে মজুত রাখায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল কেন্দ্র। দেশে লকডাউনের তৃতীয় পর্বে হঠাৎ করেই যোগী সরকারের তরফ থেকে নির্দেশিকা জারি করে পান মশলা তৈরি ও বিক্রয়ে ফের সম্মতি দেওয়া হয়। যদিও দোকানে গুটখা বা তামাকজাত পান মশলা বিক্রি ও মজুত রাখায় এখনও পূর্বের নির্দেশিকাই বহাল রয়েছে। স্বরাষ্ট্র দপ্তরের গাইডলাইন মেনেই তা বিক্রি করা হবে বলে নির্দেশনামায় জানানো হয়। রাজ্যের খাদ্য নিরাপত্তা ও ওষুধ বিভাগের কমিশনার অনিতা সিং জানান, “পান মশলার প্রস্তুতি ও বিক্রিতে ২৫ মার্চ জারি করা নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হল।” তবে গুটখা বা তামাকজাত পান মশলা বিক্রি করা না হলেও সাধারণ পান মশলা খেয়েও রাস্তায় থুতু ফেলার সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে সংক্রমণের সম্ভাবনা একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না বলেই আশঙ্কা করছেন চিকতিৎসকরা।

[আরও পড়ুন:কর্মীদের ৩ মাসের বেতন বকেয়া, PM Care ফান্ডে কোটি টাকা দান উত্তরপ্রদেশের জল নিগমের]

যোগী সরকারের তরফ থেকে পান মশলা প্রস্তুতি বন্ধ রাখা হয়। কারণ তিনি মনে করেছিলেন যত বেশি উৎপাদন হবে ততই তা বাজারের প্রতিটি দোকানে জোগান দেওয়া হবে। ফলে রাজ্যবাসীর মধ্যে তা খাওয়ার প্রবণতা বেড়ে যাবে। এরফলে পান মশলা খেয়ে রাস্তায় থুতু ফেললে তার থেকে বাড়বে সংক্রমণের সংম্ভাবনা। তবে সাধারণ পান মশলা খেয়ে থুতু ফেলার সম্ভাবনা কম বলেই নির্দেশ জারি করা হয়েছে, দাবি করেন রাজ্যের খাদ্য নিরাপত্তা কমিশনার।

[আরও পড়ুন:সন্তান প্রসবের পর Covid-19 পরীক্ষা, যাদবপুরের KPC হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত ৩ প্রসূতি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement