৫ আশ্বিন  ১৪২৮  বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

স্কুলের বাথরুমের অবস্থা শোচনীয়, উত্তরপ্রদেশে ঋতুস্রাবের সময় ছুটির দাবি শিক্ষিকাদের

Published by: Biswadip Dey |    Posted: July 31, 2021 11:56 am|    Updated: July 31, 2021 11:56 am

UP teachers seek 3-day period leave every month siting poor condition of toilets | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভাল নয় রাজ্যের স্কুলগুলির বাথরুমের (Toilet) অবস্থা। তাই প্রতি মাসে ঋতুস্রাব (Periods) চলাকালীন তিন দিনের ছুটির দাবি করলেন উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) শিক্ষিকারা। যোগীরাজ্যে নতুন করে গঠিত শিক্ষিকাদের এক সংগঠনের তরফে এই দাবি জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই মন্ত্রীদের কাছে সেই দাবি পৌঁছেও দেওয়া হয়েছে। জন প্রতিনিধিদের সঙ্গেও দেখা করছেন শিক্ষিকারা। বুঝিয়ে বলার চেষ্টা করা হচ্ছে, কেন এই ছুটি চাইছেন তাঁরা।

ওই সংগঠনের দাবি, উত্তরপ্রদেশের সরকারি স্কুলগুলির বাথরুমের হাল খুবই খারাপ। ফলে ঋতুস্রাবের সময় প্রবল অসুবিধায় পড়তে হয় শিক্ষিকাদের। সেই কারণেই এই বিশেষ ‘পিরিয়ড লিভ’-এর প্রয়োজন। ৬ মাস আগে গঠিত হয়েছে এই সংগঠন। ৭৫টি জেলার মধ্যে ৫০টি জেলাতেই তাদের অস্তিত্ব রয়েছে।

[আরও পড়ুন: অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা রুজু করল Mizoram]

সংগঠনের প্রধান সুলোচনা মৌর্য এপ্রসঙ্গে জান‌িয়েছেন, ‘‘অধিকাংশ স্কুলেই ২০০ থেকে ৪০০ ছাত্রীদের সঙ্গেই বাথরুম ব্যবহার করতে হয় শিক্ষিকাদের। বাথরুমগুলি পরিষ্কার করা হয় না বললেই চলে। বহু ক্ষেত্রেই বাথরুমে যাওয়া এড়াতে জল কম খেয়ে মূত্রনালির সংক্রমণে ভুগতে হয়। অনেক সময়ই নোংরা বাথরুম এড়াতে মাঠে যাওয়া ছাড়া উপায় থাকে না। পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ হয় ঋতুস্রাব শুরু হলে। কেননা বহু শিক্ষিকাই ৩০-৪০ কিলোমিটার দূর থেকে আসেন।’’

উত্তরপ্রদেশের প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলিতে ৭০ শতাংশ শিক্ষিকা থাকলেও অন্যান্য সংগঠনগুলিতে পুরুষদেরই প্রাধান্য থাকে। তাঁরা এই ধরনের ইস্যুকে গুরুত্ব দেন না বলেই জানিয়েছেন সুলোচনা। আর সেই কারণেই এই নতুন সংগঠনের সূচনা।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরে সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই, পুলওয়ামায় এনকাউন্টারে নিকেশ ২ জেহাদি]

যদিও যোগী প্রশাসনের দাবি, ৯৫.৯ শতাংশ স্কুলেই ছেলে ও মেয়েদের আলাদা বাথরুম রয়েছে। যা গোটা দেশের গড় হিসেবের থেকেও বেশি। কিন্তু তা থাকলেও সেই বাথরুমগুলি একেবারেই পরিষ্কার করা হয় না বলে দাবি শিক্ষিকাদের। ফলে সমস্যার হাত থেকে বাঁচতে মাসের ওই বিশেষ দিনগুলিতে ছুটি ছাড়া উপায় নেই বলেই মত তাঁদের।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×