৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বিয়েতে পাওয়া টাকা শহিদদের পরিবারের জন্য দান করলেন গুজরাটের নবদম্পতি

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: February 18, 2019 2:34 pm|    Updated: February 18, 2019 2:46 pm

family paid tribute to the martyrs

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক : পুলওয়ামার অবন্তীপোরায় সিআরপিএফ কনভয়ের উপর জইশ জঙ্গিদের আত্মঘাতী হামলার ফলে শহিদ হন ৪৯ জন জওয়ান। তারপর থেকে দেশজুড়ে তাঁদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানাতে ও তাঁদের আর্থিক সাহায্য করতে উদ্যোগ নেন সর্বস্তরের মানুষ। এবার সেই কাজে এগিয়ে এলেন গুজরাটের ভদোদরার এক নদম্পতি। বিয়েতে অতিথিদের থেকে পাওয়া সমস্ত অর্থ শহিদদের পরিবারের জন্য দান করলেন তাঁরা।

[শহিদ পরিবারকে অর্থ সাহায্যের অভিনব উদ্যোগ জওয়ান পত্নীদের, সঙ্গী Paytm]

আসলে পুলওয়ামার ঘটনার পরেই শহিদ সিআরপিএফ জওয়ানদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা নেন গুজরাটের ভদোদরার কারেলিবাগ এলাকার ভিরাস পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু, কীভাবে তা করবেন প্রথমে ভেবে উঠতে পারছিলেন না। পরে ঠিক করেন সামনেই বাড়ির এক সদস্য মহেশের বিয়ে। সেই উপলক্ষ্যে বাড়িতে আসা অতিথিরা যা আর্থিক উপহার দেবেন তা পুরোটাই শহিদদের পরিবারগুলির জন্য দান করে দেবেন তাঁরা। বিষয়টি মহেশকে জানাতে তিনি এগিয়ে আসেন পরিকল্পনাটি বাস্তবায়িত করতে। অর্থের পরিমাণ যাতে আরও বাড়ে তাই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেন জীবনসঙ্গী হতে চলা দীপিকার সঙ্গেও। সবকিছু শুনে নিজের বাড়িতে পাওয়া আর্থিক উপহারও এই কাজে দান করার প্রস্তাব দেন দীপিকা।

[শহিদ পরিবারের জন্য অনুদানে উপচে পড়ল ‘ভারত কে বীর’ ওয়েবসাইট]

আর তারপর পরিকল্পনা মতো রবিবার বিয়ের অনুষ্ঠানের পরে রীতিমতো শোভাযাত্রা করে সংগ্রহীত অর্থ শহিদদের পরিবারগুলিকে দেওয়ার জন্য প্রশাসনকে দিয়ে আসা হয়। এই শোভাযাত্রায় নবদম্পতি মহেশ ও দীপিকার সঙ্গে উভয় পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি অংশ নিয়েছিলেন অনুষ্ঠানে আসা অতিথিরাও। শোভাযাত্রায় দেশাত্মবোধক গান বাজানোর পাশাপাশি সবার হাতে ছিল জাতীয় পতাকা। হাতে জাতীয় পতাকা ও একটি পোস্টার নিয়েছিলেন মহেশ ও দীপিকা। সেই পোস্টারে লেখা ছিল, কে বলেছে যে ভারতে মাত্র ১৪২৭টি সিংহ আছে! দেশের সুরক্ষার জন্য সীমান্তেই তো ১৩ লাখ সিংহ দাঁড়িয়ে রয়েছে।

তবে শুধু মহেশ ও দীপিকার পরিবারই নয়, শহিদ জওয়ানদের পরিবারের পাশে দাঁড়াতে মেয়ের বিয়ের রিশেপসন বাতিল করলেন সুরাটের এক ব্যবসায়ী দেওয়াশি মানেক। আর তার বদলে রিশেপসনের জন্য রাখা ১১ লাখ টাকা দিলেন শহিদদের পরিবারগুলিকে সাহায্য করতে। পাশাপাশি সিআরপিএফের ফান্ডে আরও পাঁচলাখ টাকা অনুদান দেন তিনি। তাঁর মেয়ে ওমির বিয়ে হয়েছিল ১৫ ফেব্রুয়ারি আর রিশেপসনের তারিখ ছিল ১৭ তারিখ। কিন্তু শহিদদের পরিবারকে সাহায্য করতে সেই অনুষ্ঠানই বাতিল করে দেন মানেক।

এদিকে গতকালই জার্মানির মুনিচে শুরু হওয়া তিনদিনের ৫৫ তম নিরাপত্তা বিষয়ক সম্মেলনে যোগ দেন ভারতের উপ-জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা পঙ্কজ সারেন। সম্মেলনের পাশাপাশি বিভিন্ন বৈঠকে পুলওয়ামার জঙ্গি হামলা সম্পর্কে আমেরিকা, জার্মানি, ফ্রান্স ও অন্য দেশগুলি থেকে আসা রাষ্ট্রনেতা এবং প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনাও করেন তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে