BREAKING NEWS

৩০ আশ্বিন  ১৪২৮  রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

গ্রেপ্তারি এড়াতে নয়া ছক, প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব গ্রহণ বিনয় মিশ্রের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 6, 2021 1:27 pm|    Updated: June 6, 2021 4:01 pm

Vinay Mishra takes shelter in Vanuatu, island of Pacific region by taking citizenship, CBI claims | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নীরব মোদি, মেহুল চোকসিদের পর এবার বিনয় মিশ্রও (Vinay Mishra)। শাস্তির হাত থেকে বাঁচতে এবার ভিন দেশে পালিয়ে সেখানকার নাগরিকত্ব নিল কয়লা ও গরু পাচার চক্রের অন্যতম মূল পান্ডা। অন্তত সিবিআই (CBI) সূত্রে দাবি এমনই। জানা গিয়েছে, প্রশান্ত মহাসাগরের এক দ্বীপরাষ্ট্রের নাগরকিত্ব নিয়ে সেখানেই গা ঢাকা দিয়েছে বিনয়। ভানুয়াতু নামে ছোট্ট দ্বীপরাষ্ট্রে রয়েছে সে। সিবিআইয়ের দাবি, ওই রাষ্ট্রের নাগরিক হওয়ায় বিনয় ভারতীয় দূতাবাসে নিজের পাসপোর্ট জমা দিয়েছে। আর নাগরিকত্বের জোরেই আপাতত গ্রেপ্তার হওয়া এড়াতে পারবেন কয়লা ও গরু পাচার কাণ্ডে অন্যতম চক্রী।

প্রায় মাস ৬ আগে, কয়লা (Coal scam) ও গরু পাচার (Cattle smuggling) কাণ্ডের কিনারায় সিবিআইয়ের তৎপরতা দেখে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী বিনয় মিশ্র বাংলা ছেড়ে মুম্বই হয়ে পালিয়ে যায় দুবাইয়ে। এমনই শোনা গিয়েছিল সেসময়। এরপর একাধিকবার সে ভিনদেশের পাসপোর্ট ব্যবহার করেই বারবার গা ঢাকা দিয়েছে বলে সিবিআই সূত্রে খবর। তার ভাই বিকাশ মিশ্রকে গ্রেপ্তার করেছে সিবিআই। এই অবস্থায় তাকে জালে আনতে সিবিআই ইন্টারপোলের কাছে রেড কর্নার নোটিস জারি করার আবেদন জানায়। সেইমতো, রেড কর্নার নোটিসও জারি করা হয়। তারপর দীর্ঘদিন পেরিয়ে যাওয়ায় বিনয় মিশ্রের নাগাল পায়নি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তখন তার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার জন্য আসানসোল সিবিআই আদালতে আবেদন জানানো হয়। তা মঞ্জুর হওয়ার পর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হতে না হতেই বিনয় মিশ্র সম্পর্কে নয়া তথ্য হাতে এল সিবিআইয়ের।

[আরও পডুন: করোনা কালে জনসেবায় কী কী করেছে দল? রিপোর্ট নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি]

জানা গিয়েছে, প্রশান্ত মহারাগরীয় অঞ্চলের দ্বীপরাষ্ট্র (Pacific Island) ভানুয়াতুর নাগরিকত্ব নিয়েছে বিনয় মিশ্র। এই মর্মে সে জানিয়েছে বলে দাবি সিবিআইয়ের। ফলে ভানুয়াতুর নাগরিকের রক্ষাকবচ পেয়ে যাওয়ায় এখন বিনয়কে হাতে পাওয়া একটু মুশকিল। যদিও এই তথ্য জানার পর ভারতীয় বিদেশমন্ত্রককে এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার আবেদন জানিয়েছে সিবিআই। তবে ভানুয়াতুর সঙ্গে ভারতের প্রত্যর্পণ চুক্তি রয়েছে কি না, থাকলেই বা তা কতটা জটিল, সেসব প্রশ্নও থাকছে। প্রসঙ্গত, রাজ্যে কয়লা এবং গরু পাচার কাণ্ডের সঙ্গে অভিযুক্তদের মধ্যে অন্যতম মূলচক্রী এই বিনয় মিশ্র। সে দুই পাচার চক্রের মধ্যে সমন্বয়ের কাজ করে গিয়েছে। তাই তাকে নাগালে পেলে দুই কেলেঙ্কারির কিনারা করা সুবিধা হবে বলে মনে করছে সিবিআই আধিকারিকরা।

[আরও পডুন: দেশের দৈনিক করোনা আক্রান্ত নামল ১ লক্ষ ১৪ হাজারে, অ্যাকটিভ কেস ১৫ লক্ষেরও কম]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement