BREAKING NEWS

২৪  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

সবরীমালা ইস্যুতে ফুঁসছে কেরল, সিপিএম নেতার বাড়ি লক্ষ্য করে বোমা

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 5, 2019 11:23 am|    Updated: January 5, 2019 11:23 am

Violence continued in Kerala

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সবরীমালায় মহিলা প্রবেশ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের যুগান্তকারী রায়ের পর থেকেই ফুঁসছে কেরল৷ তার উপর আবার বিক্ষোভকারীদের অগ্রাহ্য করে আয়াপ্পার কাছে ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছেন তিন মহিলা ভক্ত৷ আর তা যেন আন্দোলনের আগুনে ঘৃতাহুতির মতো হয়েছে৷ মহিলাদের প্রবেশকে কেন্দ্র করেই গত বুধবার থেকে আবারও নতুন করে উত্তপ্ত ‘ঈশ্বরের আপন দেশ’৷

[সবরীমালায় প্রবেশ তৃতীয় মহিলার, গন্ডগোল এড়াতে তৎপর প্রশাসন]

বুধবার কনকদুর্গা ও বিন্দু এবং শুক্রবার শ্রীলঙ্কান মহিলা শশীকলা সবরীমালা মন্দিরে ঢোকেন৷ প্রবেশের প্রতিবাদে হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের আন্দোলনে অশান্ত গোটা কেরল৷ বৃহস্পতিবার থেকে বেড়েছে আন্দোলনের তীব্রতা৷ বিভিন্ন জায়গায় সিপিএম ও বিজেপি সমর্থকরা খণ্ডযুদ্ধেও জড়িয়ে পড়ে৷ সেই খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে আক্রান্ত হন সাংবাদিকরাও৷ সেই ঘটনার রেশ শুক্রবারও ছিল৷ ওই দিন একাধিক জায়গায় সিপিএম নেতাদের উপর হামলা করা হয়৷ শুক্রবার রাতেও একই পরিস্থিতি কেরলের৷ হিংসার ঘটনায় অশান্ত হয়ে ওঠে কন্নর৷ অভিযোগ, শুক্রবার রাত ১০টা ১৫ নাগাদ বাম নেতা ও বিধায়ক সামশেরের বাড়িতে হঠাৎ হামলা করে দুষ্কৃতীরা৷ পুলিশ জানিয়েছে, দুষ্কৃতীরা বাইকে করে আসে৷ ওই বিধায়কের বাড়ি লক্ষ্য করে বোমা ছুঁড়ে পালিয়ে যায়৷ এই ঘটনার নেপথ্যে আরএসএসের যোগসাজশ রয়েছে বলেই দাবি করেন সিপিএম বিধায়ক৷ তিনি বলেন, ‘‘রাজ্যের শান্তিপূর্ণ পরিবেশকে নষ্ট করতে ষড়যন্ত্র করেছে আরএসএস৷ হিংসার ঘটনার পিছনে তাদেরই হাত রয়েছে৷’’ পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে৷ এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় মোট ২০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷

[জঙ্গিদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে ভারতে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পরিকল্পনা করছে পাকিস্তান]

এছাড়াও কন্নরের সিপিএম জেলা সম্পাদক পি সাসি ও সিপিএম নেতা বিকাশের বাড়িতেও হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা৷ বেশ কয়েকটি জায়গায় বাইকে করে এসে ব্যাপক বোমাবাজি করে চম্পট দেয় অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজন যুবক৷ দুই সিপিএম কর্মীর দোকানেও হামলা করা হয়৷ সবমিলিয়ে বোমাবাজির ঘটনায় এখনও পর্যন্ত সাত জন আহত হয়েছেন৷ এছাড়াও ইরিট্টিতে এক সিপিএম কর্মীকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয় বলেও অভিযোগ৷ এখনও পর্যন্ত কেরল জুড়ে সবরীমালা নিয়ে অশান্তিতে মোট ১৮০০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে