BREAKING NEWS

১০ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কোথায় কোথায় এখনও ব্যবহার করা যাবে ৫০০ টাকার পুরনো নোট?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 25, 2016 11:50 am|    Updated: August 12, 2021 5:58 pm

Where you can still use old Rs 500 notes

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নোট বাতিলের জেরে উদ্ভূত পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতে বৃহস্পতিবার রাতে মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডেকেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ তার পরই কেন্দ্রের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, “বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে পুরনো ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বদলের সুবিধা প্রত্যাহার করা হল৷ আজ, শুক্রবার থেকে আর কাউন্টারে গিয়ে পুরনো নোট বদলানো যাবে না৷ ফলে যাঁদের এখনও অ্যাকাউন্ট নেই, তাঁরা দ্রুত অ্যাকাউন্ট খুলতে বাধ্য হবেন৷”

তবে পেট্রোল পাম্প, সরকারি হাসপাতাল, ওষুধের দোকান-সহ আগের ছাড় দেওয়া ক্ষেত্রে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত পুরনো পাঁচশোর নোট চলবে৷ রেলের টিকিট কাউন্টার, রাজ্য সরকারি বসে ও বিমানবন্দরের টিকিট কাউন্টারেও পুরনো নোট ব্যবহার করা যাবে৷অর্থমন্ত্রক জানিয়েছে, পুরনো নোট ব্যবহার করে আগের মতোই ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত বকেয়া বিল জমা দেওয়া যাবে৷ অবশ্য সেই সুবিধা মিলবে শুধু জল ও বিদ্যুত্‍ বিলের ক্ষেত্রেই৷ এবং এই সুবিধা শুধু ব্যক্তিগত ও গৃহস্থ সংযোগের ক্ষেত্রেই৷ পাশাপাশি, বিদেশি নাগরিক, পর্যটকরা সপ্তাহে পাঁচ হাজার টাকা পর্যন্ত বিদেশি মুদ্রা বদল করতে পারবেন৷ তবে সেই বিনিময়ের তথ্য তাঁদের পাসপোর্টে নথিভুক্ত করা হবে৷ প্রি-পেইড মোবাইল পরিষেবায় ‘টপ আপ’ ভরতেও পুরনো পাঁচশো টাকার নোট ব্যবহার করা যাবে৷

জাতীয় সড়কে টোল ফি ২ ডিসেম্বর মধ্যরাত পর্যন্ত মকুব করা হয়েছে৷ তার পর থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত পুরনো পাঁচশো টাকার নোটে টোল দেওয়া যাবে৷ স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ও অন্য ব্যাঙ্কের সাহায্যে টোল প্লাজাগুলিতে পর্যাপ্ত সোয়াইপ মেশিন বসানো হচ্ছে৷ যাতে ট্রাফিক ব্যবস্থায় বিঘ্ন না ঘটিয়ে ডেবিট-ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে টোল দেওয়া যায়৷ এছাড়াও কেন্দ্রীয়, রাজ্য সরকারি, পুরসভা পরিচালিত স্কুল-কলেজে ছাত্রপিছু দু’হাজার টাকা পর্যন্ত ফি দেওয়ার ক্ষেত্রে পুরনো পাঁচশো টাকার নোট দেওয়া যাবে৷ কনজিউমার কো-অপারেটিভ স্টোরে প্রতিবার পাঁচ হাজার পর্যন্ত কেনাকাটায় পুরনো পাঁচশোর নোট ব্যবহারে ছাড় দেওয়া হয়েছে৷

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জানিয়েছেন, দেশে প্রায় আশি কোটি ডেবিট কার্ড রয়েছে৷ তার মধ্যে অন্তত চল্লিশ কোটি কার্ড সক্রিয় রয়েছে৷ অর্থমন্ত্রক চাইছে নগদ টাকার লেনদেন যতটা সম্ভব কমিয়ে ‘প্লাস্টিক মানি’ ব্যবহারে জোর দিতে৷ অর্থমন্ত্রী ব্যাঙ্কগুলিকে নির্দেশ দিয়েছেন, ডিজিটাল ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থাকে জরুরি ভিত্তিতে গ্রাহকদের কাছে জনপ্রিয় করার লক্ষ্যে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে৷ যাতে নগদ লেনদেন কমিয়ে আনা যায়৷ বৃহস্পতিবারই জেটলি বেসরকারি-সরকারি ব্যাঙ্কগুলির প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করেন৷ তারপর অর্থমন্ত্রী জানান, ডিজিটাল ব্যাঙ্কিং পরিষেবা ছড়িয়ে দিতে অর্থমন্ত্রকের অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হচ্ছে৷ তাঁর দাবি, ভারতীয়রা এই ব্যাপারে খুব একটা সড়গড় নয়৷ তা সত্ত্বেও কয়েকটি ব্যাঙ্ক দারুণ সাফল্য পেয়েছে৷ মানুষ অভ্যাস পরিবর্তন করছে৷ রাজনৈতিক শিবিরকেও তা বুঝতে হবে৷ মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর আরও জানানো হয়, নির্দিষ্ট সময় অন্তর সরকার নোট বাতিলের জেরে উদ্ভূত পরিস্হিতি পর্যালোচনা করছে৷ পাশাপাশি, সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ কমাতে নানা স্তর থেকে প্রস্তাব জমা পড়ছে কেন্দ্রের কাছে৷ সমস্ত দিক খতিয়ে দেখে সরকার পদক্ষেপ করবে৷ সেনাকর্মী ও পেনশনভোগীরা যাতে সঠিক সময়ে তাদের প্রাপ্য নগদ টাকা পেতে পারে সেজন্য ব্যাঙ্কে যথেষ্ট পরিমাণে টাকা মজুত রাখতে ব্যাঙ্কগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement