BREAKING NEWS

১ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মহিলার নগ্ন ছবি শেয়ার করার অভিযোগে যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে মামলা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 22, 2017 3:49 am|    Updated: June 22, 2017 3:49 am

Woman Files Case Against UP CM Yogi Adityanath For Sharing Her Nude Photograph On Facebook

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে উঠলো মারাত্মক অভিযোগ। অসমের এক আদিবাসী মহিলা তাঁর বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় নগ্ন ছবি শেয়ার করার অভিযোগ তুলে দায়ের করলেন মামলা। লক্ষ্মী ওরাং নামে ওই মহিলা ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় ও তথ্য-প্রযুক্তি আইনে সাব ডিভিশনাল জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন।

ঘটনাটি প্রায় ১০ বছর আগেকার। যোগী আদিত্যনাথের একটি ফ্যান পেজ ফেসবুকে ওই মহিলার নগ্ন ছবি পোস্ট করে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানায়। কংগ্রেসের মিছিলে লক্ষ্মী ওরাং নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপির পক্ষে স্লোগান দেওয়ায় কংগ্রেস সমর্থকরা তাঁকে প্রকাশ্যেই নগ্ন করে মারধর করে বলে অভিযোগ তোলে বিজেপি। সেই সূত্রেই আক্রান্ত মহিলার কয়েকটি নগ্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করা হয়। সঙ্গে কংগ্রেসের তীব্র নিন্দা করে লেখা হয়, ‘বাংলার কংগ্রেস সমর্থকরা এক হিন্দু মহিলাকে বেধড়ক মারধর করেছে। ওই মহিলার দোষ, তিনি কংগ্রেসের মিছিলে মোদি জিন্দাবাদ বলেছিলেন। এই ছবি শেয়ার করে কংগ্রেসের আসল চেহারা প্রকাশ্যে নিয়ে আসুন।’ ফ্যান পেজের প্রায় ৯৫ হাজার সদস্য ওই ছবিটি নিয়ে ব্যাপক শোরগোল তোলে।

[‘হিন্দুরা কখনওই সন্ত্রাসবাদী হয় না’]

লক্ষ্মী ওরাং জানিয়েছেন, আসলে ছবিটি ২৪ নভেম্বর, ২০০৭-এ তোলা। সেই সময় গুয়াহাটিতে ‘অল আদিবাসী স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অফ অসম’ বিক্ষোভ প্রদর্শন করছিল। ছবিতে তাঁর মুখ না ঢেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার অভিযোগ উঠেছে যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে। সংবাদমাধ্যমকে তিনি আরও জানিয়েছেন, আদিত্যনাথের দাবি ঝুটো। ওই বিক্ষোভ প্রদর্শন কর্মসূচিতে তিনি কোনও দলের হয়েই উপস্থিত ছিলেন না। পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায়ের মানুষকে আদিবাসীর তকমা পেতে সাহায্য করতেই তিনি ওই মিছিলে হেঁটেছিলেন। তাঁর বক্তব্য, “যোগী আদিত্যনাথ কিছু না জেনেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বলে দিলেন যে কংগ্রেস আমার উপর হামলা চালিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী যখন বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও বলছেন, তখন তাঁরই দলের যোগী আদিত্যনাথ এমনটা কী করে করতে পারলেন?”

শুধু যোগী আদিত্যনাথই নন, এই মামলায় আর এক অভিযুক্ত হলেন অসম লোকসভার সাংসদ রাম প্রসাদ শর্মা। তিনিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই মহিলার ছবি শেয়ার করেছেন বলে অভিযোগ। এই বিষয়ে রাম প্রসাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘এটা কোনও মিথ্যা ঘটনা নয়। আমি ছবিটি শেয়ার করেছিলাম কারণ আমি চেয়েছিলাম আক্রান্ত মহিলা যেন তাঁর প্রাপ্য বিচার পান।’ তিনি এও জানিয়েছেন, অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল যেন ওই মামলার বিচার প্রক্রিয়া ফের শুরু করেন।

1

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement