BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কাশ্মীরে ঢুকে পড়েছে মহিলা আত্মঘাতী জঙ্গি, জারি লাল সতর্কতা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 26, 2018 6:26 am|    Updated: January 26, 2018 6:26 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার জম্মু ও কাশ্মীরে ভয়াবহ হামলা চালাতে প্রস্তুত ইসলামিক স্টেট। ইতিমধ্যে উপত্যকায় ঢুকে পড়েছে জঙ্গি সংগঠনটির এক আত্মঘাতী মহিলা জঙ্গি। সাধারণতন্ত্র দিবসে হামলা চালনোই উদ্দেশ্য ওই সন্ত্রাসবাদীর। এমন ভয়াবহ রিপোর্ট দিয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলি।

[কাশ্মীর ইস্যুতে মার্কিন দাবড়ানি, ফের পরমাণু যুদ্ধের হুঙ্কার পাকিস্তানের]

শুক্রবার, কাশ্মীর-সহ গোটা দেশ জুড়ে পালিত হচ্ছে সাধারণতন্ত্র দিবস। এই উপলক্ষে নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে উপত্যকাকে। গোয়েন্দা সূত্রে খবর, সন্দেহভাজন মহিলা জঙ্গিটি মহারাষ্ট্রের পুনে শহরের বাসিন্দা। বেশ কিছুদিন থেকেই সন্ত্রাসদমন শাখার নজরে ছিল ওই মহিলা। এর আগেও একবার গ্রেপ্তার করা হয় তাকে। ইসলামিক স্টেট জঙ্গিদলে যোগ দিতে সিরিয়া যাচ্ছিল সে। তবে সেই সময় নাবালিকা ছিল ওই মহিলা ফলে তাকে কাউনসেলিং করে ছেড়ে দেয় পুলিশ। সূত্রের খবর, আইএস ছাড়াও উপত্যকায় হামলা চালাতে পারে হিজবুল, জইশ ও লস্করের মতো সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলি। এমনটাই সতর্কবার্তা দিয়েছেন গোয়েন্দারা।

প্রতিরক্ষা মহলের উদ্বেগ বাড়িয়ে কাশ্মীরে শাখা বিস্তার উড়ছে ইসলামিক স্টেট। আল কায়দার মতো আন্তর্জাতিক জেহাদি জঙ্গি সংগঠনগুলি। ফলে কাশ্মীরের ‘আজাদি’ ছেড়ে এবার খিলাফত প্রতিষ্ঠায় জেহাদের ডাক দিয়েছে তারা। মগজধোলাই করা হচ্ছে যুব প্রজন্মের। ফলে দেশের অন্দরেই বাড়ছে জঙ্গিদের সংখ্যা। উল্লেখ্য, বাবরি ধ্বংসের ২৫ বছর পূর্তির দিন কাশ্মীরে এক অডিও ক্লিপ ছড়িয়ে পড়ে। আল কায়দা জঙ্গিগোষ্ঠীর শাখা সংগঠন আনসার ঘাজওয়াতুল হিন্দ-এর ওই অডিও ক্লিপে সমস্ত মুসলিমদের ভারতে জেহাদের জন্য আহ্বান জানানো হয়। বলা হয়, বাবরি মসজিদ ধ্বংস উগ্র হিন্দুদের ভোলার অযোগ্য অপরাধ। সেই অপরাধের বদলা হিসাবেই মুসলিম সম্প্রদায়কে জেহাদে নাম লেখানোর জন্য গলা ফাটাচ্ছে ওই সংগঠন।

[কাশ্মীরে ভয়াবহ আইইডি বিস্ফোরণ, মৃত ৪ পুলিশকর্মী]

ওই ঘটনার পরই শোরগোল পড়ে যায় প্রতিরক্ষা মহলে। সীমান্তের ওপার থেকে আসা জঙ্গিদের থেকে বেশি বিপজ্জনক দেশের অভ্যন্তরে থাকা জেহাদিরা। যেকোনও মুহূর্তে এরা ‘লোন উলফ’ হামলা চালাতে পারে বলে মত প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের। ফলে নিরাপত্তারক্ষীদের কাজ আরও কঠিন হয়ে পড়ছে। সব মিলিয়ে জম্মু ও কাশ্মীরে চূড়ান্ত সতর্ক নিরাপত্তা বাহিনী।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement