BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বিতর্কিত রায় দেওয়ার ‘উপহার’, বম্বে হাই কোর্টের বিচারপতিকে ১৫০ কন্ডোম মহিলার

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: February 18, 2021 9:08 pm|    Updated: February 18, 2021 9:35 pm

Woman Sends 150 Condoms to Justice Ganediwala of bombay High Court to Protest Controversial POCSO Rulings | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কিছুদিন আগে দু’টি যৌন নির্যাতনের (Sexual crime) মামলায় তাঁর রায় নিয়ে বিতর্ক দেখা গিয়েছিল দেশজুড়ে। এবার বম্বে হাই কোর্টের (Bombay High Court) সেই অতিরিক্ত বিচারপতি পুষ্পা বি গানেদিওয়ালাকে ওই রায়ের প্রতিবাদে ১৫০টি কন্ডোম পাঠালেন গুজরাটের (Gujrat) এক মহিলা। পাশাপাশি, ওই বিচারপতিকে সাসপেন্ড করে দেওয়ারও দাবি তুলেছেন।

জানা গিয়েছে, গুজরাটের ওই মহিলার নাম দেবশ্রী ত্রিবেদী। তিনি একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষক। সম্প্রতি বম্বে হাই কোর্টের ওই রায়ের পর ক্ষোভপ্রকাশ করেন তিনি। এরপরই বিচারক গানেদিওয়ালার চেম্বার, বম্বে হাই কোর্টের নাগপুর বেঞ্চের রেজিস্ট্রি অফিস-সহ ১২ জায়গায় ওই কনডোম পাঠিয়েছেন দেবশ্রী। পরবর্তীতে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানান, “আমি অবিচার সহ্য করতে পারি না। এক নাবালিকা বিচারপতি পুষ্পা বি গানেদিওয়ালার জন্য বিচার পেল না। আমার দাবি ওই বিচারপতিকে সাসপেণ্ড করে দেওয়া উচিত।” এরপরই তিনি যোগ করেন, “আমার মনে হয় একজন মহিলা হিসেবে আমি কোনও ভুল করিনি। এজন্য আমার কোনও অপরাধবোধ নেই। মহিলাদের সবসময় নিজেদের অধিকারের জন্য লড়াই করা উচিত। গানেদিওয়ালার এই রায়ের পর মেয়েদের পোশাকের উপর থেকে যখন তখন হেনস্তা করতে পারবে পুরুষরা।”

[আরও পড়ুন: ইরান ও রাশিয়ার সঙ্গে যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নেয়নি ভারত, জানিয়ে দিল নৌসেনা]

যদিও এই ঘটনায় হয়তো শাস্তির মুখে পড়বেন না দেবশ্রী। কারণ নাগপুর বেঞ্চের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে জানানো হয়েছে, তারা এই ধরনের কোনও প্যাকেটই পাননি। তবে নাগপুর বার অ্যাসোসিয়েশনের এক সিনিয়র অ্যাডভোকেট ওই মহিলার শাস্তির দাবি তুলেছেন। এর আগে একটি যৌন নিগ্রহের মামলায় পুষ্পা গানেদিওয়ালা জানিয়েছিলেন, পোশাকের উপর নাবালিকার স্তনে হাত দিলে পকসো আইনের আওতায় তা যৌননিগ্রহ হিসেবে গ্রাহ্য হবে না। যৌনতামূলক কার্যকলাপের অভিপ্রায়ে ত্বকের সঙ্গে ত্বকের সংস্পর্শ হলে, তবেই তা যৌন নিগ্রহ হিসেবে প্রমাণিত হবে। পরে সেই রায়ে স্থগিতাদেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

[আরও পড়ুন: বঙ্গ দখলের নয়া রণকৌশল, ১১০ ‘কঠিন’ আসনের দায়িত্বে বিজেপির ২২ কেন্দ্রীয় নেতা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে