২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ট্রেনে খাবার পরিবেশনের দায়িত্ব বেসরকারি সংস্থার হাতে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 28, 2016 10:02 am|    Updated: August 28, 2016 10:02 am

An Images

সুব্রত বিশ্বাস: আইআরসিটিসি-র কয়েকটি ইউনিটকে বেসরকারি সংস্থার আওতায় তুলে দেওয়া হচ্ছে৷ লোকসভায় নেওয়া কয়েকটি সিদ্ধান্তের মধ্যে রেলের আওতায় এই কর্পোরেশনের উইংকে এজন্য ‘পাইলট-ডিসিশন’ হিসাবে ধরা হয়েছে৷

ট্রেনে খাবার পরিবেশনের দায়িত্ব এবার তুলে দেওয়া হচ্ছে বেসরকারি সংস্থার হাতে৷ এই দায়িত্ব এতদিন সামলাতো আইআরসিটিসি-র কর্মীরাই৷ বেস কিচেনে খাবার তৈরি থেকে ট্রেনে পরিবেশন করত তাঁরাই৷ এবার বেস কিচেনে খাবার তৈরির দায়িত্ব কর্পোরেশনের হাতে থাকলেও পরিবেশন সামলাবেন ঠিকাদারের লোকজন৷ এজন্য সম্ভবত পুজোর আগেই কাজ হারাচ্ছেন আইআরসিটিসি-র পূর্বাঞ্চলের প্রায় ৫৫০কর্মী৷ কাজ হারানোর আশঙ্কায় এখন আন্দোলন গড়ে তুলছেন শ্রমিকরা৷ আইআরসিটিসি জানিয়েছে, লোকসভায় ইতিমধ্যে এই বিকেন্দ্রীকরণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ কর্পোরেশনের পূর্বাঞ্চলের গ্রুপ জেনারেল ম্যানেজার দেবাশিস চন্দ্র জানিয়েছেন, ঠিকা সংস্থাগুলিকে কর্পোরেশনের তরফে আবেদন জানানো হচ্ছে, তারা যেন এইসব কর্মীদের কাজে বহাল রাখে৷

হাওড়া রাজধানী, একাধিক দুরন্ত ট্রেন, যেমন, যশবন্তপুর, পুণে, পুরী, শিয়ালদহ-পুরী-সহ ১২ জোড়া ট্রেনে ক্যাটারিং পরিষেবার দায়িত্বে রয়েছে কর্পোরেশন৷ বেস কিচেন থেকে খাবার নিয়ে ট্রেনগুলিতে যাত্রীদের মধ্যে খাবার পরিবেশন করে তারাই৷ আরও ২৩ জোড়া ট্রেনের ক্যাটারিং পরিষেবা খুব শিগগির রেলের আওতা থেকে আইআরসিটিসি-র হাতে আসছে৷

কর্পোরেশন সূত্রে এই ব্যবস্থায় যথেষ্ট আস্থা প্রকাশ করা হয়েছে৷ তারা জানিয়েছে, বেস কিচেন ভারতের বড় স্টেশনগুলিতে রয়েছে৷ সেখান থেকে খাবার ট্রেনে নেওয়ার মানেই খাবারের গুণগত মান বজায় থাকবে৷

এর আগে ট্রেনে খাবারের গুণগত মান নিয়ে বহু প্রশ্ন উঠেছে৷ গুণগত মানের আড়ালে বহু কর্মী এখন কর্মহীন হতে চলেছেন৷ আইআরসিটিসি-র তরফে জানানো হয়েছে, ট্রেনে যেসব কর্মী তাদের আওতায় কাজ করছেন তাঁরা কেউই তাদের নিজস্বকর্মী নয়৷ ন্যূনতম বেতনে কাজ করছেন তাঁরা৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement