BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

তিলজলায় গ্যাস কাটার দিয়ে এটিএম ভেঙে ১৩ লক্ষ টাকা লুঠ, নেপথ্যে কুখ্যাত হরিয়ানা গ্যাং?

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: November 20, 2020 9:33 pm|    Updated: November 20, 2020 9:33 pm

An Images

অর্ণব আইচ: এবার গ্যাস কাটার দিয়ে এটিএম ভেঙে ১৩ লক্ষ টাকা নিয়ে পালাল দুষ্কৃতীরা। শুক্রবার ভোররাতে ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব কলকাতার (Kolkata) তিলজলায়। গ্যাস কাটার দিয়ে এটিএম যন্ত্রটি কাটার সময় আগুন ধরে যায় কাউন্টারে। পুজোর আগেই অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহে একইভাবে উত্তর কলকাতায় হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। তবে শ্যামপুকুর থানার পুলিশের তৎপরতায় তারা ভাঙতে পারেনি এটিএম। এর পিছনে হরিয়ানার কুখ্যাত এটিএম লুঠের গ্যাং আছে বলেই ধারণা পুলিশের। রাস্তার একটি সিসিটিভির ফুটেজে তিন দুষ্কৃতীর চেহারা দেখা গিয়েছে। তার ভিত্তিতেই চলছে তদন্ত।

পুলিশ জানিয়েছে, এদিন ভোররাতে তিলজলার সি এন রায় রোডের একটি এটিএম থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখে পুলিশের সন্দেহ হয়। দেখা যায়, এটিএম যন্ত্রে আগুন লেগেছে। খবর দেওয়া হয় দমকলকে। দমকলের ইঞ্জিন এসে আগুন নেভায়। প্রাথমিকভাবে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। খবর পেয়ে দুপুরে ওই বেসরকারি ব্যংকের আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে যান। তাঁদের দাবি, ওই এটিএম যন্ত্রটি ভাঙা হয়েছে। খোয়া গিয়েছে ১৩ লক্ষ টাকা। তাঁদের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযোগ দায়ের হয়। জানা গিয়েছে, তিন বা তার থেকে বেশি সংখ্যক দুষ্কৃতী একটি গাড়ি করে তিলজলার ওই এটিএমে আসে। তাদের কাছে ছিল গ্যাস সিলিন্ডার ও লোহা কাটার যন্ত্র। ওই সময় ওই এটিএম কাউন্টারে নিরাপত্তারক্ষী ছিলেন না। প্রথমে মুখ ঢেকে ভিতরে ঢুকে তারা সিসিটিভি ক্যামেরা নষ্ট করে দেয়। এর ফলে এটিএমের সিসিটিভিতে (CCTV) বিশেষ কোনও ফুটেজ মেলেনি। গ্যাস কাটারের সাহায্যে যন্ত্রটি কেটে তার ভিতর থেকে ১৩ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় তারা। পুলিশের ধারণা, গ্যাস দিয়ে কাটার সময়ই যন্ত্রে আগুন ধরে যায়। যদিও পালানোর সময় প্রমাণ লোপাট করতে তারা এটিএমে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল কি না, সেই তদন্তও করা হচ্ছে। ঘটনাস্থলে যেতে পারেন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরাও। একটি সিসিটিভিতে দেখা গিয়েছে, তিন দুষ্কৃতী একটি গাড়িতে উঠছে। তাদের সঙ্গে রয়েছে গ্যাস কাটার। ওই গাড়িটির সন্ধান চালাচ্ছে পুলিশ।

13 lakh rupees was looted from ATM by goons

[আরও পড়ুন: ‘অবাঙালি শক্তি নেতাজিকে কোণঠাসা করা হয়েছিল, মমতাকেও হচ্ছে’, বিজেপিকে নিশানা ব্রাত্য বসুর]

গোয়েন্দা পুলিশের মতে, হরিয়ানার গ্যাস কাটার গ্যাং সম্প্রতি কলকাতা ও তার আশপাশে হানা দিতে শুরু করেছে। এই রাজ্য-সহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় এটিএম লুঠ করেছে তারা। ২০১৬ সালে উত্তর কলকাতার সিঁথি এলাকায় একটি এটিএম ভাঙার চেষ্টা হয়েছিল। তখন উত্তর শহরতলির গ্যাস কাটার দিয়ে একটি এটিএম ভেঙে বেশ কয়েক লক্ষ টাকা লুঠ করে পালায় দুষ্কৃতীরা। ফের পুজোর আগে তারা এ পি সি রোডের একটি এটিএমে হামলা চালালেও পুলিশের তৎপরতায় সফল হয়নি। কিছুদিন আগে শহরতলির এটিএমে হামলা চালায় তারা। এর পর ফের কলকাতার এটিএমে লুঠপাটে সফল হল এই গ্যাং। চার বছর আগে লালবাজারের গোয়েন্দারা এটিএম লুঠের গ্যাংয়ের সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশের ধারণা, এবারও স্থানীয় কেউ তাদের গাড়ি ও গ্যাস সিলিন্ডার দিয়ে সাহায্য করছে। কলকাতা বা তার আশপাশের অঞ্চলে আরও কয়েকটি জায়গায় এটিএম ভাঙার চেষ্টা করতে পারে এই গ্যাং। এই হানা বন্ধ করতে রাতে টহলদারি বাড়ানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: প্রতিবেশীর লালসার শিকার স্ত্রী, প্রতিশোধ নিতে খুনের ছক স্বামীর! তারপর….

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement