BREAKING NEWS

১ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সাহসিকতাকে কুর্নিশ, বীরাঙ্গনা পুরস্কার পাবে বিনোদিনী গার্লসের চার ছাত্রী

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: October 10, 2018 9:11 pm|    Updated: October 10, 2018 9:13 pm

4 students of Binodin Girls High School will be awarded For bravery

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শিক্ষক-শিক্ষিকাদের ভরসা ছেলেমেয়েদের স্কুলে পাঠান অভিভাবকরা। কিন্তু, স্কুলে কিনা সেই শিক্ষকই ছাত্রী শ্লীলতাহানি করল! অভিযুক্তের শাস্তির দাবিতে অভিভাবকদের বিক্ষোভে রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল ঢাকুরিয়ার বিনোদিনী গার্লস হাইস্কুল। পরিস্থিতি এতটাই জটিল হয়েছিল যে ঢাকুরিয়া স্টেশনের অদূরে স্কুলের দুই শিক্ষিকাকে ঘিরে ধরে মারধর করতে শুরু করেছিলেন জনা পাঁচেক মহিলা অভিভাবকরা। ‘আন্টি’দের বাঁচান স্কুলেরই চার ছাত্রী। সাহসিকতার জন্য চারজনকেই পুরস্কার দেওয়ার কথা ঘোষণা করল শিশু সুরক্ষা অধিকার কমিটি। বিনোদিনী গার্লস হাইস্কুলের দ্বাদশ শ্রেণির ওই চার পড়ুয়াকে দেওয়া হবে বীরাঙ্গনা পুরস্কার।

[ বিনোদিনী গার্লস কাণ্ডে প্রধান শিক্ষিকার ভূমিকায় অসন্তুষ্ট প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ]

ঢাকুরিয়ার বিনোদিনী গার্লস হাইস্কুলের প্রাথমিক বিভাগে রয়েছেন তিনজন পুরুষ শিক্ষক। তাঁদের একজন দীপক কর্মকার। অভিভাবকদের অভিযোগ, স্কুলের ফাঁকা ঘরে নিয়ে গিয়ে প্রাথমিক বিভাগের এক ছাত্রীর শ্লীলতাহানি করেছেন তিনি। অভিযুক্তের শাস্তির দাবিতে মঙ্গলবার স্কুলে তুমুল বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন অভিভাবকরা। পুলিশ যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছয়, তখন বিক্ষোভকারীরা ইঁটবৃষ্টি করতে শুরু করেন বলে অভিযোগ। পালটা লাঠিচার্জ করে লেক থানার পুলিশ। লাঠির আঘাতে একজন মহিলা অভিভাবকের মাথা ফেটে যায়। আহত হন বেশ কয়েকজন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার দুপুরে যখন স্কুল থেকে বেরোন বিনোদিনী গার্লস হাইস্কুলের পাঁচ শিক্ষিকা, তখনও স্কুলের সামনে ঘোরাঘুরি করছিলেন উত্তেজিত অভিভাবকরা। ঢাকুরিয়া স্টেশনে কাছে বাবুরবাগান লেনে শিক্ষিকা শ্যামলী চৌধুরিকে ঘিরে ধরে মারতে শুরু করেন কয়েকজন মহিলা। উন্মত্ত জনতার হাত থেকে তাঁকে বাঁচান বিনোদিনী গার্লস হাইস্কুলের চার ছাত্রী অয়ন্তিকা প্রামাণিক, ইন্দ্রাণী দাস, পৌলমী সিংহ ও তনুশ্রী ঘোষাল। এরপর স্থানীয় বাসিন্দারা শ্যামলীদেবীকে ফের স্কুলে নিয়ে যান। এদিকে ততক্ষণে আবার ঢাকুরিয়া স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে শিক্ষিকা রূপা ভট্টাচার্যকে ঘিরে ফেলেছেন বিক্ষোভকারীদের একাংশ। তাঁকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। ‘রূপা আন্টি’-কেও উদ্ধার করে স্কুলে নিয়ে আসে অয়ন্তিকা, ইন্দ্রাণী, পৌলমী ও তনুশ্রী। তাদের সাফ কথা, ‘রূপা আন্টি, শ্যামলী আন্টিদের কাছে পড়েই বড় হয়েছি। চোখের আন্টিদের অপমানিত ও আক্রান্ত হতে দেখে চুপ করে থাকতে পারিনি।’   ঢাকুরিয়ার বিনোদিনী গার্লস হাইস্কুলের চার ছাত্রীর সাহসিকতাকে কুর্নিশ জানাল শিশু সুরক্ষা অধিকার কমিটি। অয়ন্তিকা প্রামাণিক, ইন্দ্রাণী দাস, পৌলমী সিংহ ও তনুশ্রী ঘোষালকে দেওয়া হবে বীরাঙ্গনা পুরস্কার।

[ মহিলাদের শক্ত কাঁধেই মাতৃভূমি লোকালের দায়িত্ব দিল পূর্ব রেল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement