১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বাতিল ৫০০-র বান্ডিল নর্দমায়, চাঞ্চল্য বিধাননগরে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 29, 2016 9:47 am|    Updated: November 29, 2016 9:47 am

500 bundle in drain, creates tension

স্টাফ রিপোর্টার: নর্দমা সাফাই করতে গিয়ে বাতিল পাঁচশোর নোটের বান্ডিল পেলেন এক সাফাইকর্মী৷ শনিবার সে টাকা পাওয়ার পর সোমবার স্থানীয় কাউন্সিলর মণীশ মুখোপাধ্যায়ের নির্দেশে পুলিশের কাছে সে টাকা জমা দেন তিনি৷ বিধাননগর পুরনিগমের ওই সাফাইকর্মীর নাম হারাধন নস্কর৷ শনিবার সকালে রঘুনাথপুরের সরকার বাগানে নর্দমা পরিষ্কার করার সময় জলে ভেজা পাঁচশো টাকার বাতিল নোটের বান্ডিল পড়ে থাকতে দেখেন তিনি৷ টাকাটি পেয়ে রীতিমতো ভয় পেয়ে যান তিনি৷ রবিবার পুরনিগমে ছুটি থাকায় টাকাটি নিজের কাছেই রেখে দেন৷ সোমবার সাতসকালে পুরপিতা মণীশবাবুর দ্বারস্থ হন হারাধনবাবু৷ পুরো বিষয়টি পুরপিতাকে জানানোর পর তিনি তৎক্ষণাৎ হারাধনবাবুকে থানায় টাকাটি জমা দিতে বলেন৷ পুরপিতার কথা মতো সোমবার বাগুইআটি থানায় পাঁচশোর নোটের বান্ডিলটি জমা দিয়ে আসেন হারাধনবাবু৷ পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বান্ডিলটিতে পনেরো হাজার টাকা ছিল৷

একদিকে যেমন দারিদ্রের মধ্যে সততার নজির দেখালেন হারাধনবাবু ঠিক তার বিপরীত একটি ঘটনার সাক্ষ্মী হয়ে থাকল হাবড়া৷ এক বান্ডিল জাল নোট ব্যাঙ্কে জমা দিতে এসে হাতেনাতে ধরা পড়ল এক যুবক৷ একটা দু’টো নয়, এক সঙ্গে ২৩টা জাল হাজার টাকার নোট সমেত ধরা পড়ে সে৷ সোমবার সকালে উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়া থানা এলাকার একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের শাখায় টাকা জমা দিতে আসে ওই যুবক৷ জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত যুবকের নাম সুমিত রায়৷ বাড়ি হাবড়ার বাণীপুর এলাকায়৷  নিজের অ্যাকাউন্টে ৩০ হাজার টাকা জমা দেওয়ার জন্য টাকার বান্ডিল ব্যাঙ্ক কর্মীর হাতে দিতেই ধরা পড়ে যায় সে৷ ব্যাঙ্কের কর্মীদের থেকে জানা যায়, মোট ২৩টি জাল নোট ছিল ওই বান্ডিলে৷ তৎক্ষণাৎ হাবড়া থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ এসে সুমিতকে গ্রেফতার করে৷ এত জাল নোট সে কোথা থেকে পেল সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷ মঙ্গলবার ধৃতকে বারাসত আদালতে পেশ করা হবে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে