১০ আষাঢ়  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

১০ আষাঢ়  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে সিবিআই হানা৷ রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা নাগাদ আট সদস্যের সিবিআই আধিকারিকদের একটি দল তাঁর লাউডন স্ট্রিটের বাড়িতে যায় বলে খবর৷ জানা গিয়েছে, কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনরাকে আইনি নোটিস দিতে যায় ওই দলটি৷ কিন্তু বর্তমানে বাড়িতে নেই রাজীব কুমার৷ তিনি দিল্লিতে রয়েছেন৷ পাশাপাশি, নির্বাচন মিটতেই রাজীব কুমারকে এডিজি সিআইডি পদে ফেরাল রাজ্য৷ 

[ আরও পড়ুন: ‘মুসলিমরা কি গরু?’ মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা মুকুলের ]

সারদা মামলার নথি লোপাটে অভিযুক্ত কলকাতার প্রাক্তন নগরপালের বিরুদ্ধে রবিবার সকালেই ‘লুক আউট সার্কুলার’ বা এলওসি জারি করে সিবিআই। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অধীন অভিবাসন দপ্তরের তরফে এই বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। এর ফলে দেশের কোনও  বিমানবন্দর দিয়ে বিদেশে পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করলে, তাঁকে আটক করে সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেবে অভিবাসন দপ্তর। সূত্রের খবর, রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে এই নোটিসের মেয়াদ এক বছর। ২০২০-র ২৩ মে পর্যন্ত তা কার্যকর থাকবে। প্রয়োজনে তা ফের বাড়ানো হতে পারে। আপাতত এক বছর রাজীব কুমার বিদেশ সফর করতে গেলেই আটক হবেন। 

[ আরও পড়ুন: বিধানসভা ভিত্তিক ফলে সুজন দ্বিতীয়, আরও পিছিয়ে বাকি বাম বিধায়করা ]

উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্ট রাজীব কুমারকে যে আইনি রক্ষাকবজ দিয়েছিলে, ২৪ মে রাতে তার মেয়াদ শেষ হয়৷ গত শুক্রবার আগাম জামিনের জন্য সুপ্রিম কোর্টে আরজি জানিয়েছিলেন রাজীব কুমার৷ কিন্তু শীর্ষ আদালতের তরফে কলকাতা হাই কোর্টে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয় তাঁকে৷ কিন্তু কলকাতা হাই কোর্টে আইনজীবীদের কর্মবিরতি চলায়, শেষমেশ তাই বাধ্য হয়ে বারাসত আদালতে যান রাজীব কুমার৷ কিন্তু সেখানেও কর্মবিরতির জেরে আগাম জামিনের আবেদনপত্র জমা দিতে বেশ দেরি হয়ে যায় রাজীব কুমারের৷ ফলে একটা বিষয় স্পষ্ট হয়ে যায় যে, সোমবারের আগে আগাম জামিনের আবেদন করতে পারবেন না কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার৷ আগাম জামিন না হওয়ায় মধ্যরাতেই রাজীব কুমারের গ্রেপ্তারির আশঙ্কা আরও কয়েকগুণ বাড়ে৷ এবং রবিবার সন্ধ্যায় সিবিআই যে পদক্ষেপ নিল, তাতে ওই আশঙ্কাই সত্যি হতে চলেছে বলে অনুমান ওয়াকিবহাল মহলের৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং