BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

মেলেনি পণ, স্ত্রীর নগ্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়ানোর হুমকি স্বামীর

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 21, 2019 8:48 am|    Updated: November 21, 2019 8:48 am

An Images

অর্ণব আইচ: বিয়ের পর থেকেই পণের জন্য চলছিল অত্যাচার। যে লোকটিকে বিয়ে করে কলকাতা থেকে ঔরঙ্গাবাদে পাড়ি দিয়েছিলেন তরুণী, অত্যাচারের মাত্রা যোগ করলেন সেই স্বামীই। গোপনে স্ত্রীর নগ্ন ছবি তুলে তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিল স্বামী নিজেই। স্বামীর কাছ থেকে এই হুমকি পেয়ে কোনওমতে শ্বশুরবাড়ি থেকে কলকাতায় বাপের বাড়িতে পালিয়ে আসেন তরুণী ওই গৃহবধূ। এই বিষয়ে তিনি স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির অন্যদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, বছর কুড়ির ওই তরুণীর সঙ্গে গত বছর অক্টোবর মাসে ঔরঙ্গাবাদের বাসিন্দা এক যুবকের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তরুণী গৃহবধূর উপর চলতে থাকে অত্যাচার। তরুণীর অভিযোগ, প্রায় দিন ও রাতেই তাঁর উপর চলত অত্যাচার। আরও অনেক টাকা পণ চেয়ে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা ক্রমাগত মারধর করতেন তাঁকে। কিন্তু তরুণীর বাপের বাড়ির লোকেদের সামর্থ ছিল না মোটা টাকা পণ দেওয়ার। তাই অত্যাচার আরও বেড়ে চলে। তরুণী জানতেন না, এর মধ্যেই কখন গোপনে স্বামী নিজের মোবাইল দিয়ে তাঁর কিছু নগ্ন ও অশ্লীল ছবি এবং ভিডিও তুলে রেখেছেন। স্বামী স্পষ্ট স্ত্রীকে হুমকি দেন, তাঁদের বাড়ির কথামতো পণের টাকা না পেলে তিনি ওই অশ্লীল ছবি আপলোড করবেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই নিয়ে চলে গোলমাল।

[আরও পড়ুন: কলকাতার আকাশে টাকার বৃষ্টি! নোট কুড়োতে হুড়োহুড়ি স্থানীয়দের]

এরপরই তরুণী শ্বশুরবাড়ি থেকে আক্ষরিক অর্থে পালিয়ে কলকাতায় চলে আসেন। বাপের বাড়ির লোকেদের বিষয়টি জানান। তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে তাঁর শ্বশুরবাড়ির লোকেদের ডেকে পাঠানো হচ্ছে। তাতেও তাঁরা না এলে ঔরঙ্গাবাদে তরুণীর শ্বশুরবাড়িতে তল্লাশি চালানো হতে পারে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement