১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৬ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কন্যাসন্তান হওয়ায় খুন? বাড়ি থেকে অপহরণের পর উদ্ধার খুদের দেহ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 15, 2022 3:46 pm|    Updated: September 15, 2022 3:46 pm

A toddler kidnapped and killed in Murshidabad | Sangbad Pratidin

শাহাজাদ হোসেন, ফরাক্কা: খুদেকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে খুন! বুধবার সন্ধেয় ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের (Murshidabad) সাগরদিঘি থানার ফুলবাড়ী গ্রামে। অপহরণকারীকে বাধা দিতে গিয়ে আক্রান্ত মা। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়।

জানা গিয়েছে, মৃত শিশুর নাম সালমা খাতুন। তার মা ফুলমণি বিবি। বুধবার সন্ধেয় বাড়িতে খেলছিল ওই মহিলার দুই সন্তান। অভিযোগ, হঠাৎই একজন অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি ফুলমণির বাড়িতে ঢুকে তাঁর দেড় বছরের সন্তান সালমাকে জোর করে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। সালমা কান্নাকাটি শুরু করলে ফুলমণি ছুটে যান। ওই ব্যক্তিকে আটকানোর চেষ্টা করে। কিন্তু অজ্ঞাত পরিচয় ওই ব্যক্তি ফুলমণিকে লাথি মেরে খুদেকে নিয়ে চম্পট দেয়। এই ঘটনার খবর পেয়ে গ্রামবাসীরা গোটা এলাকায় অভিযুক্তের সন্ধানে তল্লাশি শুরু করে। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় সাগরদিঘি থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। বেশ কিছুক্ষণ পর বাড়ি থেকে খানিকটা দূরে উদ্ধার হয় খুদে। তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করে।

[আরও পড়ুন: ‘ডোন্ট টাচ মাই বডি’ পোস্টার নিয়ে হাজির তৃণমূল, পালটা বিক্ষোভ বিজেপির, ধুন্ধুমার বিধানসভা]

কিন্তু কেন এই ঘটনা? নেপথ্যে কে? সন্দেহের তির মহিলার স্বামীর দিকে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ফুলমণির সঙ্গে তাঁর স্বামীর মোটেই বনিবনা ছিল না। তাঁদের মধ্যে অশান্তি লেগেই থাকত। কারণ, দুই কন্যা সন্তান। প্রতিবেশীদের দাবি, বুধবারও নাকি দম্পতির মধ্যে অশান্তি হয়। তারপর বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় ফুলমণির স্বামী। কিছুক্ষণ এই ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্নের মুখে মৃত বাবার ভূমিকাই। এ বিষয়ে জঙ্গিপুরের পুলিশ জেলার সুপার ডঃ ভোলানাথ পাণ্ডে বলেন, “এই ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।”

[আরও পড়ুন: চাকরিতে বঞ্চনার অভিযোগ, হাই কোর্টে শ্রেষ্ঠ ক্রীড়াবিদের পুরস্কার পাওয়া বিশেষভাবে সক্ষম সাঁতারু]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে