BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

তৃণমূলের সঙ্গে সন্ধির ইঙ্গিত! ফের মমতাকে চিঠি লিখলেন আবদুল মান্নান

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: January 1, 2020 9:28 am|    Updated: January 1, 2020 9:38 am

Abdul Mannan urges Mamata for joint NRC protest

স্টাফ রিপোর্টার: তৃণমূলকে সঙ্গে নিয়ে এনআরসি বিরোধী আন্দোলনের ডাক দিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান। যৌথ আন্দোলনের পক্ষে সওয়াল করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়েছেন তিনি। এনআরসি এবং নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় ইতিমধ্যেই রাস্তায় নেমেছে তৃণমূল, সিপিএম, কংগ্রেস–সহ একাধিক রাজনৈতিক দল। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় মিটিং–মিছিল করে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ২৯৪টি বিধানসভা কেন্দ্রেই নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় প্রতিবাদসভা করেছে তৃণমূল। বামফ্রন্ট ও কংগ্রেস যৌথভাবে কলকাতায় মহামিছিল করেছে। এবার বিজেপি বিরোধী সব রাজনৈতিক দল, গণসংগঠন, মঞ্চগুলিকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের পক্ষে সওয়াল করলেন বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা আবদুল মান্নান। গুরুত্বপূর্ণ হল, এই আন্দোলনে তৃণমূলকেও সঙ্গে চান তিনি।

abdul-mannan

২০১৯ সালের শেষ দিনে বিধানসভায় সাংবাদিক বৈঠক করে আবদুল মান্নান (Abdul Mannan) বলেন, “বিজেপি বাদে সবাই এনআরসির বিরোধিতা করে আন্দোলন করছে। তৃণমূল যেমন করছে, তেমনই বামফ্রন্ট ও কংগ্রেসও করছে। বিজেপি বাদে সব রাজনৈতিক দল, গণসংগঠন, এনজিও এক ছাতার তলায় এসে একসঙ্গে আন্দোলন করতে পারলে অন্য বার্তা দিতে পারব।” সর্বদলীয় সভা এবং যৌথ আন্দোলনের আবেদন জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দেওয়ার কথাও উল্লেখ করেছেন মান্নান।

[আরও পড়ুন: বর্ষশেষের উপহার, রাজ্যপালকে ফুল ও মিষ্টি পাঠালেন মুখ্যমন্ত্রী]

তৃণমূল রাজ্যের শাসকদল। কংগ্রেস প্রধান বিরোধী দলের ভূমিকায় রয়েছে। কিন্তু এনআরসি ইসু্যতে একসঙ্গে আসা উচিত বলে মনে করেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। কিছু দিন আগে খড়গপুর সদর বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থীকে সমর্থনের কথা উল্লেখ করে সোনিয়া গান্ধীকে চিঠি দিয়েছিলেন মান্নান। যা নিয়ে দলের অন্দরেই প্রবল বিরোধ বাধে। এবার এনআরসি প্রসঙ্গে যৌথ আন্দোলন চেয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দেওয়ার প্রসঙ্গেও দলে দু’ররকমের সুর শোনা যাচ্ছে। কংগ্রেসের একটা অংশের বক্তব্য, তৃণমূলের সঙ্গে রাজ্যে লড়াই চলছে। তাই সিপিএমকে সঙ্গে নিয়েই আন্দোলন চালানো উচিত। যদিও মুখ্যমন্ত্রীকে এই চিঠি পাঠানোর আগে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রকে জানিয়েছেন বলে দাবি মান্নানের। এ বিষয়ে সোমেনবাবু বলেছেন, “আবদুল মান্নান শুধু আমাকে বলেছিলেন, তিনি সর্বদল বৈঠকের কথা বলে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিচ্ছেন।” এ প্রসঙ্গে বামফ্রন্টের পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, “আবদুল মান্নানের চিঠির বিষয়টি আমি জানি। রাজ্য সরকার সর্বদলীয় বৈঠক ডাকুক, এটাই দাবি।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে