BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বড়দিনে এসি টয় ট্রেনে ঘুরতে চান? গন্তব্য হোক ইকো পার্ক

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: December 21, 2018 5:38 pm|    Updated: December 21, 2018 5:38 pm

An Images

শুভময় মণ্ডল: ক্রিসমাস ও বর্ষবরণের আগে সুখবর শহরের ভ্রমণপিপাসুদের জন্য। উৎসবের মরশুমে জমজমাট ইকো পার্ক। আর কলকাতার অন্যতম বিনোদন পার্কের আকর্ষণ বাড়াতে হাজির পাহাড়ের টয় ট্রেন। কিন্তু যাঁরা ইকো পার্কে আগে ঢুঁ মেরেছেন তাঁদের কাছে এটা নতুন নয়। নতুন বিষয় হল এবার শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কোচ এল ইকো পার্কে। তিন কামরার এই বাতানুকূল টয় ট্রেন পরিষেবা চালু হয়েছে সম্প্রতি। নয়া এসি টয় ট্রেনকে ঘিরে ভ্রমণপ্রেমীদের উৎসাহের শেষ নেই। সামনেই ক্রিসমাস। তারপরে আসছে ৩১ ডিসেম্বর। গোটা সপ্তাহজুড়ে রেকর্ড ভিড়ের আশায় হিডকো কর্তৃপক্ষ। নয়া এই আকর্ষণ পর্যটক টানবে বলে আশাবাদী তারা।

[দিঘা-মন্দারমণি ভুলুন, রাজ্যের অফবিট এই সমুদ্র সৈকতে যাবেন নাকি?]

গতবছর এই শীতের মরশুমে রেকর্ড ভিড় দেখেছিল ইকো পার্ক। এবারও অন্যথা হবে না বলে মনে করছে কর্তৃপক্ষ। তাই সবরকম প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে হিডকো। পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গে বসে বৈঠক করে পার্কের নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হয়েছে। আরও বেশি করে সিসিটিভি বসানো, অন্যান্য রাইডগুলির মেরামতি করা সবই প্রায় সারা। এই ইকো পার্কেই রয়েছে দুনিয়ার সপ্তম আশ্চর্যের রেপ্লিকাগুলি। ব্রাজিলের ক্রাইস্ট ডি রিদেমার, রোমের কলোসিয়াম, তাজমহল-সহ বিশ্বের সাতটি আশ্চর্য স্থাপত্য যেমন রয়েছে তেমন বিভিন্ন রাইড এবং এই টয় ট্রেন অন্যতম দ্রষ্টব্য। দু’বছর আগে ইকো পার্কে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয় এই দার্জিলিংয়ের টয় ট্রেনের। তিন কামরার মোট ১৮টি আসনবিশিষ্ট টয় ট্রেনে চড়ার জন্য ভিড়ও হয় প্রচুর। কিন্তু গরমের জন্য অনেকেই এসি কোচ আনার আবেদন করেছিলেন। কর্তৃপক্ষও পর্যটকদের কথা ভেবে এসি কোচ আনল। তিন নম্বর বগিতে জেনারেটরের মাধ্যমে গোটা ট্রেনকে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত করা হয়েছে। এসি কোচ আসার পর থেকে ভিড় আরও বেড়ে গিয়েছে বলে সূত্রের খবর। সাধারণ কোচে ১০০ টাকা করে টিকিট ছিল। এসি কোচের জন্য খুব একটা দাম বাড়বে না টিকিটের। পর্যটকদের সাধ্যের মধ্যেই পাহাড়ি টয় ট্রেনের পরিবেশ দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।

[তুষারপাত শুরু হতেই পর্যটকদের উৎসাহ বাড়ছে সান্দাকফুকে ঘিরে]

তাই আর দেরি না করে বড়দিনে ডেস্টিনেশন হোক ইকো পার্ক। পর্যটকদের আমোদের জন্য সবরকম বন্দোবস্ত করে রাখা হয়েছে এখানে। কাছেপিঠে এমন সুন্দর বিনোদন পার্ক ছেড়ে অন্য কোথাও যাওয়ার কী দরকার তবে!

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement