২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আদালতে আত্মসমর্পণ বিক্রমের, ১,০০০ টাকার বন্ডে আগাম জামিন অভিনেতার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 5, 2017 9:03 am|    Updated: May 5, 2017 9:04 am

Actor Bikram Chatterjee surrenders before court over model's death

স্টাফ রিপোর্টার: দুর্ঘটনায় মডেল সনিকা সিংয়ের মৃত্যুর জেরে মামলায় পুলিশের নোটিস পাওয়ায় আদালতে আত্মসমর্পণ করলেন টলিউডের বিশিষ্ট অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায়৷ সনিকার পরিবারের তরফে তাঁর বিরু‌দ্ধে বেপরোয়া গাড়ি চালানোয় গাফিলতির অভিযোগ এনেছিল৷ মডেলের মৃত্যুর আগের ঘটনার পাশাপাশি সেদিন ঠিক কী কারণে গাড়ি দুর্ঘটনা হয়েছিল তা জানতে বিক্রমকে জেরা করতে চায় পুলিশ৷ কিন্তু আইনজ্ঞদের পরামর্শে শুক্রবার সকালে অভিনেতা আলিপুর পুলিশ আদালতে গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন৷ দুপুরের পর এসডিজেএম-র এজলাসে এই মামলার শুনানি হয়৷ আদালত তাঁকে ১ হাজার টাকার বন্ডে আগাম জামিন দিয়ে দেয়।

[নির্ভয়া কাণ্ডে চার দোষীর ফাঁসির সাজা বহাল সুপ্রিম কোর্টের]

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পরই তাঁকে জেরার জন্য নোটিস দিয়ে ডেকে পাঠায় টালিগঞ্জ থানার পুলিশ৷ সাতদিনের মধ্যে তাঁকে থানায় হাজিরা দিতে বলা হয়েছে৷ এরপর এদিন বাবার সঙ্গে গিয়ে আদালতে আত্মসমর্পণ করেন তিনি৷ গত শনিবার ভোররাতে লেক মার্কেটের সামনে দুর্ঘটনার মুখে পড়ে বিক্রমের গাড়ি৷ বিক্রম নিজেই ছিল চালকের আসনে৷ ঘটনার পর প্রথম হাসপাতাল থেকে চলে গেলেও পরে এসে ভর্তি হন তিনি৷ দুর্ঘটনার সময় যে পোশাক পরে ছিলেন বিক্রম, তা বাজেয়াপ্ত করে ইতিমধ্যে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে৷ পরবর্তী ক্ষেত্রে বিক্রমের রক্ত পরীক্ষাও করা হবে৷ পুলিশ বিক্রমকে জেরা করে ওইদিনই যে পার্টিতে তিনি ছিলেন তার তথ্যও সংগ্রহ করবে৷ কারণ, পার্টিতে তিনি মদ্যপান করেছিলেন কি না তা বিক্রমের কাছ থেকেই স্পষ্ট হতে চাইছে টালিগঞ্জ থানা৷ কারণ, যদি মদ্যপান করে থাকেন তবে এই গাড়ি দুর্ঘটনার মামলা নতুন মোড় নিতে পারে৷ বিক্রমের জবানবন্দির পাশাপাশি যে হাসপাতালে দুর্ঘটনার পরই ভর্তি হয়েছিলেন সেখান থেকে তাঁর রক্তপরীক্ষার রিপোর্টও পুলিশ সংগ্রহ করবে৷ কারণ, রক্তে অ্যালকোহল ছিল কি না তা ওই রিপোর্টে স্পষ্ট হবে বলে তদন্তকারী অফিসারদের দাবি৷

[ভাঙল সমাজবাদী পার্টি, মুলায়মকে প্রধান করে নতুন দল গড়লেন শিবপাল]

যেখানে দুর্ঘটনা ঘটেছে, সেই এলাকায় গিয়ে ইতিমধ্যে পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজও খতিয়ে দেখার চেষ্টা করেছে৷ কিন্তু সেই সিসিটিভি-বন্দি ফুটেজ ঝাপসা মেলায় তা থেকে দুর্ঘটনার কোনও স্পষ্ট ছবি মেলেনি৷ কারণ হিসাবে পুলিশ মনে করছে গাড়িটি এতটাই দ্রূততার সঙ্গে বেরিয়ে গিয়ে ধাক্কা মেরেছে যে সংশ্লিষ্ট সিসিটিভির ফুটেজ অস্পষ্ট হয়ে গিয়েছে৷ যার ফলে এক্ষেত্রে বিক্রমের কথার সত্যতা যাচাই করতে গেলে পুলিশকে পারস্পরিক তথ্য-প্রমাণের উপর ভিত্তি করতে হবে৷ বিক্রমের বিরুদ্ধে পুলিশ গাফিলতির জন্য অনিচ্ছাকৃত খুন, বেপরোয়া গাড়ি চালানো-সহ একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করেছে৷ মৃত সনিকার পরিবারের অভিযোগ, বিক্রম দায়িত্বজ্ঞানহীন হয়ে জোরে গাড়ি না চালালে তাদের মেয়ের এমন মর্মান্তিক পরিণতি হত না৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে