BREAKING NEWS

১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৪ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Partha Chatterjee: SSC দুর্নীতি মামলায় মন্ত্রিত্ব থেকে সরান পার্থকে, মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি অধীর চৌধুরীর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 26, 2022 10:47 am|    Updated: July 26, 2022 11:07 am

Adhir Ranjan Chowdhury writes letter to CM Mamata Banerjee to sack Partha Chatterjee from WB ministry | Sangbad Pratidin

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: এসএসসি (SSC) নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ইডির হাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন। এবার তাঁকে মন্ত্রিসভা থেকে সরাতে হবে। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেপ্তরির পর এই দাবি তুলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) চিঠি পাঠালেন কংগ্রেস সাংসদ তথা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী (Adhir Ranjan Chowdhury)। সোমবারই নবান্নে পৌঁছেছে অধীর চৌধুরীর সেই চিঠি। সংক্ষিপ্ত চিঠিতে তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য, যে সময়কালে এসএসসি নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে, সেসময় রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এটা সরকারের পক্ষে কলঙ্কজনক ঘটনা। এখনও পার্থবাবু রাজ্যের শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী। সেই পদ থেকে অবিলম্বে তাঁকে সরানো হোক। 

 

টানা  প্রায় ২৭ ঘণ্টা জেরার পর গত শনিবার ইডির গ্রেপ্তার হয়েছেন রাজ্যের তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়। ২১ কোটি টাকা উদ্ধার হওয়ার পর ধৃত পার্থবাবুর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত মডেল অর্পিতা মুখোপাধ্য়ায়। দুর্নীতির পরত ক্রমশ সরতে সরতে  অনেক কিছুই প্রকাশ্য়ে আসছে। প্রচুর আর্থিক নয়ছয়ের ক্লু পাচ্ছেন তদন্তকারীরা। আপাতত পার্থবাবু এবং অর্পিতাকে ১০ দিনের হেফাজতে নিয়ে জেরাপর্ব চালাবে ইডি (ED)। মঙ্গলবার মন্ত্রীকে ভুবনেশ্বর থেক কলকাতা ফেরানোর পর সোজা নিয়ে যাওয়া হয়েছে সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে, ইডি দপ্তরে। অর্পিতার মুখোমুখি বসিয়ে জেরার ভাবনা তদন্তকারীদের।

[আরও পড়ুন: ১০ বছরের সম্পর্ক, যৌথভাবে সম্পত্তি কিনেছিলেন পার্থ-অর্পিতা! জোরাল দাবি ইডির]

এই গ্রেপ্তারি রাজ্যের বিরোধীদের হাতে নিঃসন্দেহে বড় অস্ত্র তুলে দিয়েছে। আর তা নিয়ে সরব হতে কালবিলম্ব করেননি কেউ। বিজেপি, সিপিএম সোশ্য়াল মিডিয়ায় প্রতিবাদ সুর চড়ালেও কংগ্রেসের তরফে অধীর চৌধুরী প্রথমবার সরাসরি সরকারের কাছে নিজেদের দাবি রাখলেন। মুখ্যমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে অধীরের স্পষ্ট বক্তব্য, ২০১৪ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত পার্থ চট্টোপাধ্য়ায় শিক্ষামন্ত্রী থাকাকালীন এই দুর্নীতির সূত্রপাত। তা সরকারের কাছে লজ্জাজনক। তাই এই বিষয়ে তদন্ত যতদিন চলছে, ততদিন মন্ত্রিত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হোক পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়কে।  তবে তাঁর এই চিঠি নিয়ে এখনও নবান্নের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। 

[আরও পড়ুন: শাশুড়িকে বেহুঁশ করে শ্বশুরবাড়িতে লুট, সঙ্গী প্রেমিক! বধূর কীর্তিতে শোরগোল বনগাঁয়]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে