১৭  মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

একরত্তিকে নিয়ে নানা হাসপাতাল ঘুরে হন্যে পরিবার, সাড়ে ৮ ঘণ্টা পর মিলল পরিষেবা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: February 2, 2020 4:15 pm|    Updated: February 2, 2020 4:15 pm

Allegation of negligence against NRC and SSKM hospital

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের কাঠগড়ায় কলকাতার সরকারি হাসপাতাল। এনআরএস থেকে এসএসকেএম, একাধিক হাসপাতালে ঘুরেও দীর্ঘক্ষণ চিকিৎসা মিলল না নিউমোনিয়া আক্রান্ত ১ মাসের খুদের। পরে খবরের জেরে এসএসকেএম হাসপাতালের শিশু বিভাগে ঠাঁই হয়েছে ওই শিশুটির। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে চিকিৎসা।

জানা গিয়েছে, আদতে মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়া এলাকার বাসিন্দা ওই শিশু। কয়েকদিন ধরেই সর্দি-জ্বরে ভুগছিল সে। সেই সঙ্গে শ্বাসকষ্টের সমস্যাও ছিল। এলাকার সরকারি হাসপাতালে দেখানোর পরও অবস্থার উন্নতি হয়নি তার। এরপর ওই হাসপাতাল থেকে শিশুটিকে কলকাতার হাসপাতালে রেফার করে দেওয়া হয়। হাতে থাকা শেষ ৬০০ টাকা খরচ করে মেয়েকে বাঁচাতে অ্যাম্বুল্যান্সে কলকাতায় আসেন খুদের বাবা-মা। কিন্তু শহরে পৌঁছতেই সমস্যা শুরু। শিশুটির বাবা জানান,”মেয়েকে নিয়ে প্রথমে এনআরএস হাসপাতালে যাই। কিন্তু ওখানকার চিকিৎসকরা মেয়েকে দেখেননি। প্রথমেই জানিয়ে দিয়েছেন হাসপাতালে জায়গা নেই। তাই নতুন করে রোগী ভরতি নেওয়া সম্ভব নয়।” বাধ্য হয়ে হাসপাতাল থেকে ফিরে আসতে হয় তাঁদের।

[আরও পড়ুন: লাগামহীন বিতর্কের পর এবার যৌন হেনস্তায় অভিযুক্ত দিলীপ ঘোষ! মামলা রুজু পুলিশের]

এনআরএস থেকে ভোর চারটেয় মেয়েকে নিয়ে এসএসকেএম হাসপাতালে পৌঁছন ওই দম্পতি। কিন্তু সেখানেও মেলেনি চিকিৎসা। বিভিন্ন রকম অজুহাত দেখিয়ে ফিরিয়ে দেওয়া হয় তাঁদের। দীর্ঘক্ষণ মেয়েকে কোলে নিয়ে হাসপাতালে বসে থাকেন ওই দম্পতি। এরপর বিষয়টি সংবাদমাধ্যমে প্রচারিত হতেই টনক নড়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। রবিবার দুপুর নাগাদ এসএসকেএমের শিশুবিভাগে ভরতি নেওয়া হয় ওই খুদেকে। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে চিকিৎসা। যদিও এবিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে এহেন ঘটনা এই প্রথম নয়। এর আগেও একাধিকবার একই ধরনের ঘটনা ঘটেছে শহরের বিভিন্ন হাসপাতালে। বারবার সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছে সেই ঘটনা। তা সত্ত্বেও বদলাচ্ছে না ছবিটা।   

[আরও পড়ুন: ফের করোনা আতঙ্ক কলকাতায়, একাধিক উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে মার্কিন নাগরিক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে