২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

অর্ণব আইচ: কালীপুজো ও দীপাবলির আগে শব্দদানবের দৌরাত্ম্য থামাতে কলকাতার পুলিশ আধিকারিকদের নির্দেশ দিলেন পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা। সোমবার এই বিষয়ে পুলিশ কমিশনার শহরের প্রত্যেকটি থানার ওসি ও পুলিশকর্তাদের বার্তা পাঠান। পুজোর শেষেই পুলিশ কমিশনার কলকাতার প্রত্যেক পুলিশকর্মীকে ধন্যবাদ জানিয়ে বার্তা পাঠিয়েছিলেন। এবার শব্দজব্দ করতে উদ্যোগ নিলেন পুলিশ কমিশনার নিজেই। কালীপুজোর আগে থেকেই একদিকে পুলিশের কাছে যেমন প্রচণ্ড জোরে মাইক বাজানো নিয়ে অভিযোগ আসে, তেমনই বহু অভিযোগ ওঠে শব্দবাজি ফাটানো নিয়েও। কালীপুজোর আগে থেকেই গোপনে কিছু বাজির কারবারী শব্দবাজি কলকাতায় পাচার করে। কালীপুজোর কয়েকদিন আগে থেকেই গোপনে শব্দবাজির বিক্রির চেষ্টাও হয়। শব্দবাজি ও জোরে বাইক বাজানোর প্রতিবাদ করাকে কেন্দ্র করে এর আগেও শহরে বহু গোলমাল হয়েছে।

[আরও পড়ুন: দেশের বর্তমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতি সংকটজনক, মত নোবেলজয়ী অভিজিতের]

পুলিশের সূত্র জানিয়েছে, এদিন পাঠানো বার্তায় পুলিশ কমিশনার কালীপুজোর আগে বা ওই সময় মাইক বাজানো নিয়ে আধিকারিকদের সতর্ক করেছেন। তাঁর স্পষ্ট নির্দেশ, হাই কোর্টের নির্দেশের বাইরে জোরে বা সময় না মেনে কেউ মাইক বাজালেই সঙ্গে সঙ্গে আইনি ব্যবস্থা নিতে হবে। একই সঙ্গে কেউ শব্দবাজি বা বেআইনি বাজি বিক্রি করলে বা ফাটালেও পুলিশ কমিশনার আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশ অফিসারদের। তিনি পুলিশকে সতর্ক করে বলেছেন, প্রত্যেকদিন জুয়ার বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে হবে। তার সঙ্গে বেআইনি মদ ও বেআইনি বাজি এবং শব্দবাজির বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে শহরের থানাগুলিকে। এ ছাড়াও এখন থেকে কালীপুজো পর্যন্ত অপরাধ রুখতে প্রতিনিয়ত শহরময় তল্লাশি চালিয়ে সতর্কতামূলক গ্রেপ্তারি ও ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য কলকাতার পুলিশকর্তা ও পুলিশ আধিকারিকদের নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশ কমিশনার।

[আরও পড়ুন: ‘ছেলে নোবেল জিততে পারে ভাবিনি’, আবেগতাড়িত অভিজিতের মা]

লালবাজারের সূত্র জানিয়েছে, পুলিশ কমিশনারের বার্তা পাওয়ার পর থেকেই শহরের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ তল্লাশি শুরু করেছে। তৈরি হয়েছে পুলিশের বিশেষ টিম। কালীপুজো ও দীপাবলির আগে গোপনে শহরের বিভিন্ন জায়গায় বেআইনিভাবে জুয়ার বোর্ড বসানোর চেষ্টা করে কয়েকটি চক্র। সেই বিষয়ে আগাম খবরাখবর নিয়ে পুলিশ তল্লাশি শুরু করেছে। বেআইনি মদ ধরতেও চলছে পুলিশের তল্লাশি। শহরের দুষ্কৃতীদের ধরে অস্ত্র উদ্ধারের চেষ্টাও চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং