BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কোভিড হাসপাতালে নিষিদ্ধ মোবাইল, রাজ্যকে চ্যালেঞ্জ করে হাই কোর্টে মামলা অর্জুনের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 25, 2020 9:51 am|    Updated: April 25, 2020 9:51 am

An Images

শুভঙ্কর বসু: করোনা পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যের বিরুদ্ধে একাধিকবার সরব হয়েছেন বারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং। হাসপাতালগুলির অব্যবস্থা, রেশন দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজ্য সরকারকে বারবার কটাক্ষ করেছেন। এবার হাসপাতালে মোবাইল ফোন নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তের জেরে রাজ্যকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হলেন বিজেপি নেতা। রাজ্যের নির্দেশিকা মহামারি আইনের পরপন্থী দাবি করে মামলা দায়ের করেছেন তিনি। সূত্রের খবর, আগামী সপ্তাহে মামলার শুনানি হতে পারে।

প্রসঙ্গত, গত ২২ এপ্রিল কোভিড (COVID) হাসপাতালগুলিতে মোবাইল ফোনের ব্যবহার নিষিদ্ধ করে রাজ্য সরকার। রাজ্যের মুখ্যসচিব নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলনে ঘোষণা করেন, সংক্রমণ রুখতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, রাজ্যের কোভিড হাসপাতাল, কোয়ারেন্টাইন সেন্টারগুলিতে অব্যবস্থার বেশ কয়েকটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। বিরোধীদের অভিযোগ, অব্যবস্থার কথা জানাজানি হতেই মোবাইল ফোনের ব্যবহার নিষিদ্ধ করে রাজ্য। অবিলম্বে এই বিজ্ঞপ্তিকে খারিজ করার দাবি জানিয়ে হাই কোর্টে মামলা দায়ের করেছেন অর্জুন সিং। এই ধরনের নির্দেশিকা মহামারি আইনের পরিপন্থী বলে দাবি তাঁর। এছাড়াও রাজ্যের চিকিৎসা ব্যবস্থায় একাধিক অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন বিজেপি নেতা।

[আরও পড়ুন: সংক্রমণের সন্দেহে বেলেঘাটা আইডি’র ১৩ জন ইন্টার্ন, পাঠানো হল কোয়ারেন্টাইনে]

জানা গিয়েছে, রাজ্যের তরফে জারি ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে করোনা ভাইরাস (Coronavirus)। তাই নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই কোভিড (COVID) হাসপাতালগুলিতে মোবাইল ফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারির সিদ্ধান্ত। প্রশাসনের তরফে বলা হয়েছে যে, চিকিৎসক, নার্স কিংবা রোগী সকলকেই নির্দিষ্ট জায়গায় মোবাইল জমা রেখে ঢুকতে হবে হাসপাতালে। মোবাইলের বিনিময়ে প্রত্যেকে একটি রসিদ পাবেন। কাজ সেরে হাসপাতাল ছাড়ার সময় ওই রসিদ দেখালেই জমা রাখা মোবাইলটি মিলবে। তবে হাসপাতালে থাকাকালীন মোবাইল না থাকায় যাতে কারও সমস্যা না হয়, সেদিকেও নজর দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: হোমের একাধিক শিশুর জ্বর-কাশি, গাইডলাইন মেনে স্বাস্থ্য পরীক্ষার নির্দেশ হাই কোর্টের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement