BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মনুয়াকে চকোলেট খাইয়ে প্রিজন ভ্যানেই অজিতের ‘বার্থ ডে সেলিব্রেশন’

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 31, 2018 3:07 am|    Updated: January 31, 2018 9:52 am

An Images

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য: এত কিছুর পরও কিছুই বদলায়নি। প্রেম এখনও টইটম্বুর! বারো দিন বাদে প্রিজন ভ্যানে দেখা হতেই সেখানে মনুয়ার মুখে চকোলেট গুঁজে দিল অজিত! নিজের জন্মদিনের শুভেচ্ছা। বারাসতের অনুপম সিংহ হত্যা মামলার দুই মূল অভিযুক্তের এহেন প্রেমপর্ব দেখে পুলিশকর্মী থেকে দাগি আসামি, সকলের চক্ষু চড়কগাছ। কে বলবে, খুনের আসামি হয়ে দু’জনে আট মাস ধরে জেল খাটছে!

[মোবাইলে মনুয়ার আপত্তিজনক সেলফির জন্যই কি খুন অনুপম?]

বেসরকারি সংস্থার কর্মী অনুপমকে তাঁর বাড়িতেই কুপিয়ে-পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে তাঁর স্ত্রী মনুয়া মজুমদার ও মনুয়ার প্রেমিক অজিত রায়কে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ওই ঘটনা নিয়ে রাজ্যজুড়ে শোরগোলও কম হয়নি। মামলাটি বারাসত আদালতে বিচারাধীন। অভিযুক্ত দু’জনেই আপাতত জেল হেফাজতে। সপ্তাহখানেক আগেই ২৫ জানুয়ারি জন্মদিন ছিল অজিতের। একই জেলে থাকলেও সেদিন তার সঙ্গে দেখা হয়নি মনুয়ার। শেষবার ১৮ জানুয়ারি বারাসত আদালতে আনার পথে মুখোমুখি হয়েছিল দু’জনে। মঙ্গলবার মনুয়া ও তার প্রেমিক অজিতকে ফের বারাসত আদালতে পেশ করা হয়। আর এই সুযোগেই প্রিজনভ্যানের মধ্যে অজিতের জন্মদিন পালন করে খুনের দায়ে অভিযুক্ত এই যুগল। জানা যায়, দমদম সেন্ট্রাল জেল থেকে একই প্রিজনভ্যানে তোলা হয় অজিত-মনুয়াকে। আলাদা জায়গায় বসানো হয় তাদের। জেল থেকে গাড়ি বের হতেই অজিতের দিকে তাকিয়ে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানায় মনুয়া। বিনিময়ে পকেট থেকে একটি চকোলেট বের করে মনুয়াকে খাইয়ে দেয় অজিত।

[মনুয়াকে ফোনে স্বামীর চিৎকার শোনাতে এই নৃশংস কাজটি করে অজিত]

এই প্রথম নয়, এর আগেও প্রিজন ভ্যানে দু’জনের প্রেমপর্ব দেখা গিয়েছিল। ২ মে বারাসত হৃদয়পুরের তালপুকুরে নিজের বাড়িতেই খুন হয়েছিলেন মনুয়ার স্বামী অনুপম সিংহ। তদন্তে নেমে মাসখানেক পর মনুয়া ও তার প্রেমিক অজিতকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। প্রথমদিন বারাসত আদালতে দু’জনকে পেশ করা হলে, মনুয়ার ছবি তুলতে প্রিজন ভ্যানের চারদিকে ভিড় জমিয়েছিল উৎসুক জনতা। সেদিন মানুষের নজর থেকে প্রেমিকার মুখ ঢাকতে ফিল্মি কায়দায় নিজের জামা খুলে ছুড়ে দিয়েছিল অজিত। আদালতে দু’জনের যে নির্বিকারভাব দেখা গিয়েছে তা পুলিশি তদন্তে আগেও উঠে এসেছে। তারা যে ঠান্ডা মাথায় খুনের ছকটি সাজিয়েছিল পুলিশ তার প্রমাণও পেয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, খুনের দিন, অনুপমের বাড়িতেই অন্তরঙ্গ সময় কাটিয়েছিল মনুয়া ও অজিত। সহবাসের পর খুনের পাকাপাকি ছক সাজিয়ে অজিতকে ওই বাড়িতে রেখে বাপের বাড়ি চলে যায় মনুয়া। রাতে অনুপম বাড়ি ফিরতেই তাঁকে নৃশংসভাবে খুন করেছিল অজিত।

এদিন বারাসত আদালতে আবারও পিছিয়ে যায় মনুয়াকাণ্ডের বিচারপর্ব। বুধবার বারাসত আদালতের জেলা বার অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচন থাকার কারণে মঙ্গলবার উপস্থিত ছিলেন না মনুয়ার আইনজীবীরা। এমনকী, সরকারি আইনজীবী বিপ্লব রায় নিজে প্রার্থী হওয়ার কারণে শেষ প্রচারে ব্যস্ত ছিলেন। তাই বিচারক ৩ জানুয়ারি পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছেন। অনুপম সিংহ-র বাড়ি পরিদর্শন করার জন্য যে আবেদন জানিয়েছিলেন মনুয়ার আইনজীবীরা তার সিদ্ধান্ত সেদিন জানানো হতে পারে বলে আদালত সূত্রে খবর।

[কীভাবে খুন করতে হবে স্বামীকে, প্রেমিককে শিখিয়েছিল মনুয়াই]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement