BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মেনেই শুরু প্রস্তুতি, বেলেঘাটা আইডি’তে গড়ে উঠছে কোভিড গবেষণাকেন্দ্র

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 3, 2020 10:37 am|    Updated: August 3, 2020 10:43 am

Beleghata ID Hospital has been chosen as the site for the centre of excellence

ক্ষীরোদ ভট্টাচার্য: দেশের তো বটেই, আন্তর্জাতিক স্তর থেকেও পরামর্শ নেওয়া হয়েছে। সেই কোভিড বিশেষজ্ঞদের সুপারিশক্রমেই ভারতের একমাত্র কোভিড গবেষণাকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে বেলেঘাটা আইডি (Beleghata ID) হাসপাতালকে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) নির্দেশে ইতিমধ্যেই শুরু প্রস্তুতি। 

বেলেঘাটা আইডিকে কোভিড চিকিৎসা সংক্রান্ত গবেষণাক্ষেত্রের উৎকর্ষকেন্দ্র বা সেন্টার অফ এক্সেলেন্স হিসেবে গড়ে তোলার কথা মুখ্যমন্ত্রীই ঘোষণা করেছিলেন। রাজ্যের সরকারি ও বেসরকারি কোভিড (COVID) হাসপাতালের ক্লিনিক্যাল ম্যানেজমেন্ট প্রোটোকল যেখানে নির্ধারিত হবে। রাজ্যের স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণস্বরূপ নিগম রবিবার বলেন, “দেশের একমাত্র কোভিড গবেষণাকেন্দ্র হিসাবে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালকে গড়ে তোলা এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। আইসিএমআর-কে আবেদন করা হয়েছে। সবুজ সংকেত পেলেই পুরোদমে কাজ শুরু হবে।”

স্বাস্থ্যদপ্তরের তরফের খবর, চলতি সপ্তাহে আইডি’র চিকিৎসক ও আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করবেন স্বাস্থ্যকর্তারা। বৈঠকে নাইসেডকেও ডাকা হয়েছে। আলোচনার সবিস্তার রিপোর্ট আইসিএমআরে পাঠানো হবে। কাজে গতি আনতে স্বাস্থ্যদপ্তর একটি মনিটরিং টিমও গড়েছে। আইডি হাসপাতালে জলাতঙ্ক-সহ সমস্ত সংক্রামক রোগের চিকিৎসা হয়। একে কোভিড হাসপাতাল ও গবেষণাকেন্দ্র হিসাবে গড়ে তুললে অন্যান্য সংক্রামক রোগের চিকিৎসার জন্য অন্য সরকারি হাসপাতালকে আইডি হাসপাতালের সঙ্গে যুক্ত করা হবে। সেখানে অন্য রোগীদের চিকিৎসা হবে।

[আরও পড়ুন: একে বায়না নেই, কারিগররাও আসছেন না, করোনার কোপে অথৈ জলে কুমোরটুলির মৃৎশিল্পীরা]

স্বাস্থ্য সচিবের কথায়, “বেহালার বিদ্যাসাগর ও আরেকটি হাসপাতালের কথা ভাবা হছে। সবটাই আলোচনা করে ঠিক হবে। অতিমারী বিশেষজ্ঞ ডা. স্বরূপ সরকারের পরামর্শ মেনেই এই পদক্ষেপ।” স্বাস্থ্যভবনের খবর, উদ্যোগ সফল করতে ইতিমধ্যে দিল্লির এইমস, পুণের ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজি থেকে তথ্য ও পরামর্শ নেওয়া হয়েছে। পুরোদস্তুর কোভিড রিসার্চ ও হাসপাতাল করার লক্ষ্যে রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালের কোভিড বিশেষজ্ঞদের আইডির সঙ্গে যুক্ত করা হবে। মনিটরিং কমিটির সদস্য ডা. কৌশিক চৌধুরী জানাচ্ছেন, “হাসপাতালে পাঁচশো বেড। যার মধ্যে কোভিডের জন্য বরাদ্দ ১১৫টি। পুরোদস্তুর কোভিড চিকিৎসা শুরু হলে বেড বাড়াতে হবে। বাড়বে মাইক্রোবায়োলজিস্ট, প্যাথলজিস্টের সংখ্যা। বিভিন্ন বয়সের কোভিড-রোগীর তথ্য সংগ্রহ ও গবেষণা করে অন্য হাসপাতালকে গাইড করবে বেলেঘাটা আইডি।”

[আরও পড়ুন: ফের অমানবিকতার নজির, করোনা সন্দেহে বৃদ্ধকে বাড়ি থেকে বের করে দিল পরিবার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে