৮ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘জঙ্গিদের থেকেও ভয়ংকর’ দেবাঞ্জন, কসবার ভুয়ো টিকা কাণ্ডে কড়া ব্যবস্থার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 28, 2021 4:40 pm|    Updated: June 28, 2021 8:11 pm

Bengal CM Mamata Banerjee lashes out at fraud Debanjan Deb over fake vaccine row ।Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কসবার ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডে (Kasba Fake Vaccine Case) এই প্রথমবার মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ঘটনায় ধৃত দেবাঞ্জন দেবকে ‘জঙ্গির থেকেও ভয়ংকর’ বলে কটাক্ষ তাঁর। রাজ্যের নেতা-মন্ত্রীদের সঙ্গে ছবি নিয়ে বিজেপির খোঁচারও জবাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। যাঁরা টিকা নিয়েছেন, তাঁদের স্বাস্থ্যের দিকে বিশেষজ্ঞ কমিটি খেয়াল রাখছে বলেও জানান তিনি।

নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বলেন, “এত বড় সাহস। এত ঔদ্ধত্য হয় কী করে? সাধারণ মানুষ, সহজ সরল মানুষদের অনেককে চিটফান্ডের নামেও বোকা বানায়। কিছু মানুষ দেখতে সুন্দর, সেজে গুজে থাকে। প্রতারণা করে। তাদের আমি মানুষ বলে মনে করি না। অমানুষ বলেও মনে করি না। এদের সমাজে থাকার কোনও যৌক্তিকতা নেই। মানুষের জীবন নিয়ে যারা খেলে তারা জঙ্গিদের থেকেও ভয়ংকর। এ ব্যাপারে ইতিমধ্যেই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।”

[আরও পড়ুন: ১ জুলাই থেকে রাজ্যে চলবে বাস-অটো, আর কোন কোন পরিষেবায় ছাড়? জানালেন মুখ্যমন্ত্রী]

ভ্যাকসিন কাণ্ডে ধৃত দেবাঞ্জনের (Debanjan Deb) সঙ্গে রাজ্যের নেতা-মন্ত্রীদের সঙ্গে বেশ কয়েকটি ছবি প্রকাশ করেছে বিজেপি (BJP)। তা নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজনৈতিক আকচাআকচি শুরু হয়ে গিয়েছে। ভ্যাকসিন কাণ্ড রবীন্দ্র ফলক বিতর্কের পর বর্তমানে টুইট বিতর্কের রূপ নিয়েছে। এই ইস্যুতেও এদিন মুখ খোলেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, “অনেকেই সামনে দাঁড়িয়ে সেলফি তুলে নেয়। বিমানে দূর থেকে বসেও ছবি তুলে নেয়। ছবি দেখিয়ে কিছু হবে না। ফটোশপ করে কোনও লাভ নেই। ছবি তুলে কাজে লাগায় প্রতারকরা। বলে আমি চিনি। এরা ঠগবাজ মনে রাখতে হবে।” এছাড়া কোন এলাকায় কে কী ব্যবসা চালাচ্ছে সেদিকে পুলিশ এবং পুর কর্তৃপক্ষকে নজর রাখার কথাও বলেছেন তিনি। যাঁরা কসবায় ভুয়ো টিকা নিয়েছেন তাঁদের স্বাস্থ্যের দিকে স্বাস্থ্যদপ্তরের তৈরি বিশেষজ্ঞ কমিটি নজর রাখছে বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী। 

উল্লেখ্য, দিনকয়েক আগে কসবার ১০৭ নম্বর ওয়ার্ডে দেবাঞ্জন দেবের ভুয়ো টিকাকরণ ক্যাম্প থেকে তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty) করোনা ভ্যাকসিন নেন। তবে কোনও মেসেজ না আসায় সন্দেহ হয় তাঁর। তিনি কলকাতা পুরসভায় অভিযোগ জানান। তারপরই সামনে আসে দেবাঞ্জন দেবের ‘কুকীর্তি’। তার জালিয়াতির জাল কতটা চওড়া তার খোঁজে ইতিমধ্যে SIT গঠন করা হয়েছে। এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই CBI তদন্তের দাবিতে সরব বিজেপি। সেই দাবিকে কার্যত নস্যাৎ করে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। আগে বিজেপির দুর্নীতির তদন্ত হওয়া প্রয়োজন বলেই পালটা জবাব মুখ্যমন্ত্রীর।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: সূর্যপ্রণাম করতে গিয়ে বিপত্তি, হরিদেবপুরে দোতলার ছাদ থেকে নীচে পড়ে প্রাণহানি নাবালিকার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement