Advertisement
Advertisement
Bikash Ranjan Bhattacharya

নিজের দলের পর কংগ্রেসকে নিশানা, জোটসঙ্গীর ঘরেও আগুন ধরালেন বিকাশরঞ্জন!

যার সঙ্গে বাস, সেই সঙ্গীই বাইরে গিয়ে আরেকজনের বদনাম করছে! এ নিয়ে ‘ঘাতক' সঙ্গীকে শাসানির সুরে হুঁশিয়ারি দিয়েছে কংগ্রেস।

Bikash Ranjan Bhattacharya's comment on election result sparks row against political ally of Congress and CPM
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:June 23, 2024 9:23 pm
  • Updated:June 23, 2024 9:46 pm

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্যর বিশ্লেষণে সিপিএমের ঘরে আগুন লেগেছে আগেই। এবার সে আগুন ছড়াল জোটসঙ্গী কংগ্রেসের ঘরে। যার জেরে এবার জোটসঙ্গী কংগ্রেসের প্রবল সমালোচনার মুখে সিপিএমের রাজ‌্যসভার সাংসদ। ব‌্যক্তিকেন্দ্রিক রাজনীতির কথা বলে দলের যুব সংগঠনকে নিশানার ব‌্যাখ‌্যা দিতে গিয়ে এক সাক্ষাৎকারে বিকাশবাবু বিজেপির সঙ্গে কংগ্রেসকে এক আসনে বসিয়ে নিশানা করে বসেছেন। তাঁর অভিযোগ, বিজেপির মতোই কংগ্রেসও একইভাবে সিপিএমকে (CPM) আক্রমণ করছে। তাছাড়া বলেছেন, দেশজুড়ে সিপিএমের যা ফলাফল, তা বামপন্থী আন্দোলনের জন‌্যই। বিকাশবাবুর এসব মন্তব‌্যই আগুন লাগিয়ে দিয়েছে সিপিএমের জোটসঙ্গী কংগ্রেসের ঘরে!

যার সঙ্গে বাস, সেই সঙ্গীই বাইরে গিয়ে আরেকজনের বদনাম করছে – এ নিয়ে কিছুটা স্তম্ভিত হয়েই ‘ঘাতক’ সঙ্গীকে শাসানির সুরে হুঁশিয়ার করে দিয়েছে কংগ্রেস (Congress)। প্রদেশ কংগ্রেসের এক সিনিয়র নেতার বক্তব‌্য, “বিকাশবাবু হয়তো ভুলে গিয়েছেন, রাজ্যে ৪ টি আসনে উপনির্বাচনেও সিপিএম আর কংগ্রেস জোটে রয়েছে। ভোট চলাকালীন এ ধরনের মন্তব্যের অর্থ কী?” আরও এক শীর্ষ নেতার প্রশ্ন, “বিকাশবাবু তো কংগ্রেসের সমর্থনে রাজ‌্যসভায় (Rajya Sabha) গিয়েছেন। সেটাও কি ভুলে গিয়েছেন?”

Advertisement

বিকাশবরঞ্জন ভট্টাচার্য (Bikash Ranjan Bhattacharya) এক সাক্ষাৎকারে বামপন্থী আন্দোলনের কথা বলতে গিয়ে একে একে নানা প্রসঙ্গ এনেছেন। সেখানে সিপিএমকে আক্রমণের অভিযোগ তুলেছেন কংগ্রেসের  বিরুদ্ধে। তাতেই ছড়িয়েছে ক্ষোভের আগুন। কংগ্রেসের সঙ্গে জোটে থাকাকালীন কীভাবে বিকাশবাবু এই ধরনের মন্তব‌্য করলেন? সেই প্রশ্ন তুলে প্রদেশ কংগ্রেসের বর্ষীয়ান নেতা তথা এক প্রাক্তন সাংসদের বক্তব‌্য, “এই ধরনের কথা বললেন কী করে বিকাশবাবু? ওঁর কি মনে নেই সিপিএম আর কংগ্রেস এত বড় একটা নির্বাচনে জোটে থেকে লড়াই করল। তাছাড়া এখনও ৪টি কেন্দ্রে উপনির্বাচনে একসঙ্গে দুটি দল জোট করে লড়ছে।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: লোনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে গৃহবধূকে দিঘা যাওয়ার প্রস্তাব! ভাইরাল তৃণমূল নেতার কল রেকর্ডিং]

প্রদেশ কংগ্রেসের (PCC) রাজ‌্য সম্পাদক সুমন রায়চৌধুরী একটি ভিডিও পোস্ট করে পালটা একাধিক প্রশ্ন তুলেছেন। তাঁর প্রশ্ন, ‘‘আপনার সাক্ষাৎকারে যা মিথ্যা তথ্য পেশ করেছেন, তার সাফাই দিন। বামপন্থীদের সঙ্গে জোটের সমর্থক মানেই আপনার সব কথা হজম করব সেটা হয় না। তিনটি প্রশ্ন বিকাশবাবুকে করতেই হচ্ছে – ১) বিজেপির মতো কংগ্রেসিরাও নাকি ওঁদের আক্রমণ করেন? ২) কৃষি বিল নাকি শুধুই বামপন্থীদের জন্য প্রত্যাহার করতে কেন্দ্রীয় সরকার বাধ্য হয়েছিল? পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে বা হরিয়ানাতে আপনারা কোথায়? এখানে সব থেকে বড় ভূমিকাটা নিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী। আপনারা শুধু নিজেদের হাইলাইট করছেন? কংগ্রেসের কথা বলতে বিকাশবাবুর কষ্ট হচ্ছে? ৩) রাজস্থানে আপনাদের আন্দোলনের দাপটে নাকি সিপিএম নেতা আমরা রাম সাংসদ নির্বাচিত হয়েছেন! সেখানে আমাদের জোটে লড়াইয়ের কোনও ভূমিকাই নেই?’’

রাজস্থানের (Rajasthan) শিকারে লোকসভা নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন সিপিএম প্রার্থী চৌধুরী আমরা রাম পোরাসওয়াল। বামপন্থী আন্দোলন আর কৃষক আন্দোলনের (Farmers’ protest) জেরেই তাঁর জয় বলে বিকাশবাবু উল্লেখ করেছেন। প্রদেশ কংগ্রেস নেতা আবদুস সাত্তারের প্রশ্ন, “কংগ্রেস বামপন্থীদের সঙ্গে জোটের জন‌্য আসনটা ছেড়েছিল বলেই তো সেই আসনে লড়েছেন আমরা রাম। সেই আসন না ছাড়লে কি পরের বিষয়গুলো ঘটত?” তাঁর সংযোজন, “স্বাধীনতার পর থেকে কংগ্রেস আর সিপিএমের লড়াই সবার জানা। উনি কোন ঘটনার জন‌্য কংগ্রেসকে দায়ী করলেন? আর বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে শুধু কেরল ছাড়া সর্বত্র কংগ্রেস-সিপিএমের জোট। এই অবস্থায় বিকাশবাবুর এই ধরনের কথা কখনওই সমীচীন নয়।”

[আরও পড়ুন: হানি ট্র্যাপেই বার্গার কিং হত্যাকাণ্ড! খোঁজ মিলল যুবককে ফাঁদে ফেলা ‘লেডি ডনে’র]

বিকাশবাবুর মন্তব্যের জেরে সমালোচনা উঠে এসেছে কংগ্রেসের প্রাক্তন ছাত্রনেতা তথা দলের অন‌্যতম সাধারণ সম্পাদক আশুতোষ চট্টোপাধ‌্যায়ের মুখেও। তাঁর কথায়, “বিকাশবাবু সিপিএম পার্টির বড় গবেষক। যা বলার সেলিম সাহেব আর বিমানবাবু বলবেন। আর রাজ‌্যজুড়ে বামপন্থী আন্দোলন যেমন রয়েছে, তেমনই কংগ্রেসও এই লড়াইয়ে তাঁদের পাশে থেকেছে। সেটা যেন মনে রাখেন। তাছাড়া ওঁর এটাও ভুলে যাওয়া উচিত নয় যে উনি কংগ্রেসের সমর্থনেই রাজ‌্যসভার সাংসদ।”

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ