১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

গেরুয়া শিবিরে বড় ভাঙন, তৃণমূলে যোগ দিলেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি বিধায়ক

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 30, 2021 1:17 pm|    Updated: August 31, 2021 3:09 pm

Bishnupur BJP MLA Tanmay Ghosh joins TMC | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: বড় ধাক্কা বিজেপি শিবিরে (BJP)। দল ছাড়লেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি বিধায়ক তন্ময় ঘোষ। সোমবার শিক্ষামন্ত্রী তথা তৃণমূলের রাজ্য কমিটির সদস্য ব্রাত্য বসুর হাত ধরে তৃণমূলে যোগ দিলেন তিনি। বিধায়ক তন্ময়ের কথায়, “রাজ্যের উন্নয়ন যজ্ঞে শামিল হতেই তৃণমূলে (TMC) যোগ দিলাম।” অদূর ভবিষ্যতে বহু বিজেপি বিধায়ক ঘাসফুল শিবিরে যোগ দেবেন বলে জানিয়েছেন ব্রাত্য। ফলে রাজ্যের বিজেপি বিধায়কের সংখ্যা দাঁড়াল ৭৩।

দীর্ঘদিন ধরেই তৃণমূলের স্থানীয় নেতা ছিলেন ব্যবসায়ী তন্ময়। একাধিক ব্যবসার মালিক তিনি। পাশাপাশি বিষ্ণুপুর তৃণমূলের শহর সভাপতি ছিলেন তিনি। হঠাৎ করে একুশের বিধানসভা ভোটের আগে বিজেপিতে যোগ দেন তন্ময়। গেরুয়া শিবিরে যোগদানের পরদিনই বিষ্ণুপুরের বিজেপি প্রার্থী হিসেবে তাঁর নাম ঘোষণা করা হয়। ভোটে জয়ও পান। গত তিন মাস ধরে বিজেপির বিধায়ক হিসেবে কাজ করছিলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: হোয়াটসঅ্যাপে ফাঁদ পাতছে হ্যাকাররা! এই মেসেজে সাড়া দিলেই সর্বনাশ]

হঠাৎ দিন কয়েক আগে বাঁকুড়ার (Bankura) রাজনীতির পট পরিবর্তন হয়। পুরসভায় দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেপ্তার হন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়। তিনিও বিধানসভা ভোটের আগে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। স্থানীয় সূত্রে খবর, গত কয়েকদিন ধরেই তন্ময় ঘোষের সঙ্গে  তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়ক শুভাশিস বটব্যালের যোগাযোগ বাড়ছিল। তার পরই হঠাৎ এই দলবদল। 

 

বিষ্ণুপুরের বিধায়ক তন্ময় ঘোষ।

[আরও পড়ুন: নেই অর্ধেক মাথা, স্ত্রী-পুরুষ উভলিঙ্গ নিয়ে জন্ম বিরল শিশুর, তাজ্জব চিকিৎসকরাও!]

কিন্তু কেন পুরনো দলে ফিরলেন তন্ময়। যোগদানের পরই তিনি জানান, “রাজ্যে উন্নয়ন যজ্ঞ চলছে।রাজ্যের সর্বস্তরের মানুষের উন্নতির চেষ্টা করছে তৃণমূল। সেই যজ্ঞে শামিল হতেই এবার দলবদল।” যদিও তৃণমূলের রাজ্য কমিটির সদস্য ব্রাত্য বসু জানান, “বিজেপির বহু  বিধায়কই আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। বিজেপি আমাদের সঙ্গে রাজনীতিতে পেরে উঠছে না। তাই প্রতিহিংসামূলক আচরণ করছে। সেই আচরণ মেনে নিতে পারছেন না গেরুয়া শিবিরের বহু নেতা-বিধায়ক। তাঁরা আমাদের সঙ্গে যোগ দিতে চান।”

এদিকে জেলার বিধায়কের দলবদল প্রসঙ্গে বিজেপির বিষ্ণুপুর সাংগাঠনিক জেলার সভাপতি সুজিত অগস্তি বলেন, “উনি ভোটে জেতার পর থেকেই দলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়াচ্ছিলেন। সংগঠনের কোনও নেতাকর্মীই ওঁকে চেনে না। তবে বিষ্ণুপুরের মানুষ তাঁদের সঙ্গে এই বিশ্বাসঘাতকতা বরদাস্ত করবে না। মানুষের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতার প্রভাব রাজনৈতিক জীবনে কতটা পড়ে, কিছুদিনের মধ্যেই তিনি বুঝতে পারবেন।” এদিকে তৃণমূলের তরফে তন্ময় ঘোষকে স্বাগত জানানো হয়েছে।  ঘাসফুল শিবিরের কথায়, বিজেপির প্রতি মোহভঙ্গ হচ্ছে। তাই তাঁরা তৃণমূলে ফিরে আসছেন। 

 

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে