BREAKING NEWS

৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘তৃণমূলের পদাধিকারী দেবাঞ্জন!’, বিস্ফোরক দাবি দিলীপের, পালটা দিলেন কুণাল

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 2, 2021 1:13 pm|    Updated: July 2, 2021 1:13 pm

BJP MP Dilip Ghosh attacks TMC over Debanjan Deb issue | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ড নিয়ে তোলপাড় রাজ্য-রাজনীতি। বহু প্রভাবশালীর সঙ্গে দেবাঞ্জনের সম্পর্ক ছিল বলেই অভিযোগ উঠেছে। তৃণমূল অভিযোগ করেছে রাজ্যপালের সঙ্গেও যোগ ছিল ভুয়ো আইএসের। এই পরিস্থিতিতে বিস্ফোরক টুইট করলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর দাবি, তৃণমূলের পদাধিকারী ছিলেন দেবাঞ্জন। পালটা দিয়েছেন কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)।

বৃহস্পতিবার রাতে একটি টুইট করেন মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তিনি সেখানে লেখেন, “দেবাঞ্জন দেব (Debanjan Deb) দক্ষিণ কলকাতা তৃণমূলের তথ্য প্রযুক্তি সেলের আহ্বায়কের দায়িত্বে ছিলেন বলে খবর পেয়েছি। সংগঠন থেকে সরকার সব জায়গায় জড়িত ছিলেন তিনি। সর্বোচ্চ নেতারা জানতেন। তাঁরা জানতেন বলেই এতদিন তিনি এসব করতে পেরেছেন।” বিজেপি নেতার অভিযোগের পালটা দিয়েছেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। তিনি বলেন, “কাঁচের ঘরে বসে ঢিল ছুঁড়ছেন দিলীপ ঘোষ।” এদিন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকেও কটাক্ষ করেছেন কুণাল ঘোষ।

 

[আরও পড়ুন: বিরোধের আবহে রাজভবনে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু, কী নিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে আলোচনা?]

উল্লেখ্য, দেবাঞ্জন দেব পুলিশের জালে ধরা পড়ার পর থেকেই রাজ্যের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন বিরোধীরা। কারণ, একাধিক মন্ত্রীর সঙ্গে একই মঞ্চে দেখা গিয়েছিল দেবাঞ্জনের ছবি। পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠক করে তৃণমূলের তরফে সুখেন্দুশেখর রায় দাবি করেন, রাজ্যপালের সঙ্গে যোগ ছিল দেবাঞ্জনের। প্রমাণ স্বরূপ বেশ কিছু ছবিও দেখান। সেখানে রাজ্যপাল ও তাঁর স্ত্রীর পিছনে দেখা যায় দেবাঞ্জনের নিরাপত্তারক্ষী অরবিন্দ বৈদ্যকে। বৃহস্পতিবার রাতেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে অরবিন্দকে।

[আরও পড়ুন: ট্রাম্পের করোনা চিকিৎসা পদ্ধতি এবার শহরে, ৪ সরকারি হাসপাতালে শুরু হচ্ছে ‘ককটেল’ ট্রায়াল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে