BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘মিথ্যে’ টুইট, হুঁশিয়ারির ২ দিনের মধ্যেই কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে আইনি নোটিস দিলীপের

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 9, 2020 2:08 pm|    Updated: November 9, 2020 4:33 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: ঠিক দু’দিন আগেই আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। সেই অনুযায়ী এবার কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে সরাসরি আইনি নোটিসই পাঠালেন খড়গপুরের বিজেপি সাংসদের আইনজীবী। আগামী তিনদিনের মধ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার কথা বলা হয়েছে তাঁকে। নইলে পরবর্তী ব্যবস্থার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে।  

সমস্যার সূত্রপাত গত ৭ নভেম্বর। ওইদিনই একটি টুইট করেন কাকলি ঘোষ দস্তিদার। বিজেপি রাজ্য সভাপতির মন্তব্য উদ্ধৃত করা টুইটে লেখা ছিল, “নাগরিকত্ব নিয়ে মতুয়ারা (Matua) যদি বেশি কথা বলে তবে মতুয়াদের ভোট আমাদের চাই না। মতুয়ারা নাগরিকত্ব নিয়ে বিজেপিকে ব্ল্যাকমেল করছে, মতুয়া ভোট আমাদের চাই না।” 

[আরও পড়ুন: দুর্ঘটনা নাকি খুন? গড়িয়াহাটের অভিজাত বহুতল থেকে পড়ে পরিচারিকার মৃত্যুতে রহস্য]

ওইদিন বিকেলে সাংবাদিক বৈঠক করে টুইটের তীব্র বিরোধিতা করেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দাবি করেন কাকলি ঘোষ দস্তিদারের (Kakali Ghosh Dastidar) টুইটে উল্লেখিত মন্তব্য তাঁর নয়। একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব কীভাবে এমন ‘মিথ্যে’ কথা টুইটে উল্লেখ করতে পারলেন সেই প্রশ্নও তোলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। এ প্রসঙ্গে বিজেপি সাংসদ বলেছিলেন, “সাইবার ক্রাইম করেছেন কাকলি ঘোষ দস্তিদার। আমার নামে ভুল টুইট করেছেন। আমি জানিনা উনি নিজের টুইটার (Twitter) অ্যাকাউন্ট চালান কিনা। যদি না চালান তবে এটা কী আইপ্যাকের লোক চালিয়েছে? তাঁরাই এমন টুইট করেছেন কিনা আমি জানিনা। একজন সাংসদের সম্পর্কে মিথ্যে কথা প্রচার করেছেন। আমার আইনজীবীকে বলেছি উপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা নিতে। বাংলার রাজনীতির এতটা অধঃপতন না হওয়াই উচিত।”

সেই ইস্যুতে সোমবার আইনি নোটিস পাঠানো হল কাকলি ঘোষ দস্তিদারকে। আগামী ৩ দিনের মধ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার কথা বলা হয়েছে। নইলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও উল্লেখ করেছেন দিলীপ ঘোষের আইনজীবী। যদিও কাকলি ঘোষ দস্তিদারের ওই টুইটটি বর্তমানে ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে। তাঁর তরফে এখনও এ প্রসঙ্গে পালটা কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

[আরও পড়ুন: শেষের পথে মাঝেরহাট ব্রিজ নির্মাণের কাজ, খুব দ্রুতই উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement