BREAKING NEWS

৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বাইক মিছিলে ফের উত্তেজনা শহরে, মুরারিপুকুরে তৃণমূল-বিজেপি হাতাহাতি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 15, 2018 6:37 am|    Updated: January 15, 2018 6:43 am

BJP supporters clash with TMC supporters, tension erupts at Ultadanga

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:   বিজেপি সংকল্প প্রতিরোধ যাত্রাকে কেন্দ্র করে ফের উত্তেজনা ছড়াল শহরে। অভিযোগ, উল্টোডাঙার কাছে মুরারিপুকুরে বিজেপির বাইক মিছিলে হামলা চালিয়েছেন তৃণমূল সমর্থকরা। এই নিয়ে দু’দলের সমর্থকদের একদফা হাতাহাতিও হয়। শাসক ও বিরোধী দলের সমর্থকদের স্লোগান-পালটা স্লোগানে তেতে ওঠে এলাকা। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে,  তাঁর উসকানিমূলক মন্তব্যে অশান্তি ছড়াতে পারে। এই অভিযোগে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে গড়িয়াহাট ও হেয়ার স্ট্রিট থানায় দুটি এফআইআর হয়েছে।

[বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে রণক্ষেত্র জোড়াবাগান, চলল ব্যাপক ভাঙচুর]

শুক্রবার এই সংকল্প প্রতিরোধ যাত্রাকে কেন্দ্র করে শহর জুড়ে তুমুল অশান্তি হয়েছিল। বিজেপি ও তৃণমূল সমর্থকদের সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে চেহারা নিয়েছিল জোড়াবাগান। হামলা হয়েছিল মুরলীধর সেন লেনে রাজ্য বিজেপি সদর দপ্তরে। বিজেপি অভিযোগ করে, আদালতের নির্দেশ সত্ত্বেও দলে যুব মোর্চার মিছিলে হামলা চালিয়েছে তৃণমূল। এরপর তিনদিনের জন্য সংকল্প প্রতিরোধ যাত্রা স্থগিত করে দেয় কলকাতা হাই কোর্ট। আদালতের নির্দেশে মেনে সোমবার ফের শহরের রাস্তায় বাইক মিছিল বের করে বিজেপি। আর সেই মিছিলকে ঘিরেও উত্তেজনা ছড়াল উল্টোডাঙায়। মিছিলে হামলার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। হাতাহাতি জড়িয়ে পড়লেন তৃণমূল ও বিজেপি সমর্থকরা। উঠল স্লোগান পালটা স্লোগানও।

[১৫ থেকে ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত ফের বিজেপির মিছিল, নির্দেশ হাই কোর্টের]

সোমবার সকালে সিমলা স্ট্রিটে পতাকা নেড়ে দলের বাইক মিছিলের উদ্বোধন করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। কলকাতা থেকে বাইক মিছিল করে কোচবিহার পর্যন্ত যাওয়ার কর্মসূচি নিয়েছে গেরুয়া শিবির। জানা গিয়েছে, এদিন কলকাতা থেকে বাইক  নিয়ে কৃষ্ণনগর পর্যন্ত যাবেন বিজেপি সমর্থকরা। সেখানে রাত্রিবাসের পর মঙ্গলবার সকালে ফের শুরু হবে মিছিল। কিন্তু, মিছিল কলকাতার সীমানা পেরোনোর আগেই শুরু হয়ে গেল অশান্তি। উত্তেজনা ছড়াল উল্টোডাঙায় কাছে মুরারিপুকুরে।

[বাইক ব়্যালি বন্ধ, দিলীপ-মুকুল মতবিরোধে বিভ্রান্ত কর্মীরা]

কী ঘটেছে মুরারিপুকুরে?  প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মিছিল পৌঁছনোর অনেক আগেই মুরারিপুকুরে জড়ো হয়েছিলেন তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা। বিজেপি সমর্থকদের দেখামাত্রই স্লোগান দিতে শুরু করেন তাঁরা। পালটা স্লোগান দেন মিছিলকারীরাও। মুহুর্তে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। বিজেপির অভিযোগ, বাইক মিছিলে হামলা চালিয়েছেন শাসকদলের কর্মী-সমর্থকরা। এই নিয়ে প্রকাশ্য রাস্তায় দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে হাতাহাতিও হয়। মিছিলের পিছনে পুলিশের বেশ কয়েকটি গাড়ি ছিল। অভিযোগ, সেই গাড়িগুলিকে আটকে দেন মিছিলকারীরা। পুলিশকে মিছিলের আগে যেতে বলেন তাঁরা। পরে অবশ্য পুলিশের হস্তক্ষেপে গণ্ডগোল মেটে। পূর্ব নির্ধারিত রোড ম্যাপ মেনেই কৃষ্ণনগরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে যান বিজেপি সমর্থকরা।

[সকাল থেকেই ঘন কুয়াশা কলকাতায়, উল্টোডাঙায় দুর্ঘটনা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে