১২ মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ২৭ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

Abhijit Ganguly: ‘মুখ্যমন্ত্রী ভাল কাজ করছেন’, প্রশংসা করেও মুখ বন্ধ রাখার বার্তা বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 8, 2022 3:17 pm|    Updated: December 8, 2022 3:59 pm

Calcutta HC Justice Abhijit Ganguly praises Mamata Banerjee । Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় তাঁর পর্যবেক্ষণ নিয়ে আলোচনা সর্বত্র।  আন্দোলনকারী চাকরিপ্রার্থীদের কাছে তিনি ‘হিরো’। সেই বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের গলাতেই এবার শোনা গেল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসা। মুখ্যমন্ত্রী ভাল কাজ করছেন বলেই জানালেন তিনি। এছাড়া তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষের কথা ‘এনজয়’ করেন বলেও জানান কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি।

বৃহস্পতিবার এজলাসে বিচারপতি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী ভাল কাজ করছেন। আমি কেন খারাপ কথা বলব? আমাকে বলতে বাধ্য করা হচ্ছে। সেদিন ধেড়ে ইঁদুর বলেছিলাম সুব্রতদার আইনজীবী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা প্রসঙ্গে। উনি বুঝতে পেরেছিলেন কেন বলেছি। কিন্তু সেটা অন্যরকমভাবে ধরা হয়েছে।” এরপর পর্ষদের আইনজীবীর সঙ্গে কথোপকথনের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, “ঢাকি সমেত বিসর্জন দিয়ে দেব বলেছিলাম। এটা পর্ষদের আইনজীবী আমাকে বলতে বাধ্য করেছেন।”

[আরও পড়ুন: হাই কোর্টে বড় স্বস্তি, শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া সমস্ত FIR-এ স্থগিতাদেশ]

মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসার পরেও মুখ বন্ধ রাখার বার্তা দেন বিচারপতি। তাঁর কথায়, “চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যকে বলে দেবেন, আর কোনও মন্তব্য করব না।” এরপর আইনজীবী বলেন, “মামলার বক্তব্য শুনে আপনি যেকোনও নির্দেশ দিন। কিন্তু দয়া করে দল সম্পর্কে কিছু বলবেন না। আমি বিষয়টি চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যকে বলব। মুখ্যমন্ত্রীরও নজরে আনার চেষ্টা করব।”

তৃণমূল মুখপাত্র তথা রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষকে নিয়ে এদিন মন্তব্য করেন বিচারপতি। তিনি বলেন, “কুণাল ঘোষের কথা আমি খুব এনজয় করি। রোজই উনি কিছু না কিছু বলেন। এখন এ নিয়ে আমি অতিরিক্ত মন্তব্য করতে চাই না। কিন্তু আমার মন্তব্যগুলির অন্যরকম ব্যাখ্যা হয়ে যাচ্ছে।” আইনজীবী বলেন, “আপনার কথা অন্যরকমভাবে প্রচার করছে সংবাদমাধ্যম।” বিচারপতি উত্তরে বলেন, “না, না সংবাদমাধ্যম আমাকে অনেক ভালবাসে। তাঁদের সকলের সঙ্গে আমার সুসম্পর্ক রয়েছে।” বিচারপতিকে পালটা জবাব দিয়েছেন কুণাল ঘোষ। তিনি বলেন, “যিনি মাথা জানেন। ঢাকি জানেন। তাঁকে সাক্ষী করা হোক। সিবিআইয়ের উচিত তাঁকে ১৬৪ করা। আর মুখ্যমন্ত্রী ও সরকার ভাল কাজ করছে সেটা সবাই জানে।”

[আরও পড়ুন: সাপের কামড়ে অকেজো কিডনি, প্রথমবার শিশুর ডায়ালিসিসে সফল ডায়মন্ড হারবার হাসপাতাল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে