২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

NEET পরীক্ষার্থীদের যাতায়াতের সব ব্যবস্থা করতে হবে, রাজ্য সরকারকে নির্দেশ হাই কোর্টের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 9, 2020 9:20 pm|    Updated: September 9, 2020 9:20 pm

An Images

শুভঙ্কর বসু: সর্বভারতীয় মেডিক্যাল প্রবেশিক পরীক্ষা NEET’তে পরীক্ষার্থীদের যাতায়াতের যাবতীয় ব্যবস্থা করতে হবে রাজ্য সরকারকে। পাশাপাশি দিন কয়েক আগে কোভিড পজিটিভ হওয়া এক পরীক্ষার্থীর পরীক্ষার ব্যবস্থা প্রয়োজনে করতে হবে আইসোলেশন রুমে। বুধবার তিনটি পৃথক মামলার জেরে এই নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট।

এদিন আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন তিন NEET পরীক্ষার্থী অনিন্দিতা জানা, সৌভিক পান্ডা ও জয়ত্রী পাল। তাঁদের দাবি ছিল, প্রত্যেকেরই বাসস্থান থেকে পরীক্ষা কেন্দ্র অনেক দূরে। তাছাড়া পরীক্ষার আগের দু’দিন ১১ ও ১২ সেপ্টেম্বর লকডাউন। ফলে পরীক্ষার দিন পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছনো নিয়ে তাঁরা ঘোর অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছেন। সেক্ষেত্রে ব্যবস্থা গ্রহণ করুক NEET কর্তৃপক্ষ ও রাজ্য সরকার।

[আরও পড়ুন: করোনা আবহে পরীক্ষা নিয়ে ভিন্নমত, অধ্যাপিকার ‘জাত’ তুলে বেনজির অপমান ছাত্রীর!]

অনিন্দিতা জানার বাড়ি পূর্ব মেদিনীপুরে। তার পরীক্ষা কেন্দ্র পড়েছে বাসস্থান থেকে প্রায় ১৫০ কিলোমিটার দূরে খড়্গপুরে। রায়গঞ্জের পরীক্ষার্থী জয়ত্রী পালের পরীক্ষা কেন্দ্র শিলিগুড়িতে। এছাড়াও দিন কয়েক আগে ১৮ আগস্ট কোভিড পজিটিভ হয়েছিলেন পূর্ব মেদিনীপুরের বাসিন্দা তথা NEET পরীক্ষার্থী সৌভিক পান্ডা। তার সিট পড়েছে পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতনের ভাতার কলেজে। সকলেরই দাবি এই পরিস্থিতিতে তাদের পক্ষে পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছনো সম্ভব নয়। এদিন কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর এজলাসে অনিন্দিতা জানা ও সৌভিক পান্ডার মামলা দুটি ওঠে। অনিন্দিতার ক্ষেত্রে বিচারপতি চক্রবর্তী জানিয়েছেন, অবিলম্বে পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড ও যাবতীয় তথ্য পরিবহণ দপ্তরের ল অফিসারের কাছে পাঠাতে হবে। রাজ্য সরকার অনিন্দিতাকে পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়ার যাবতীয় ব্যবস্থা করবে।

মামলার শুনানিতে পরীক্ষার্থী সৌভিক পান্ডার আইনজীবী কল্লোল বসু দাবি করেন, সৌভিক যেহেতু সদ্য কোভিড পজিটিভ হয়েছেন তাই তার আশঙ্কা, পরীক্ষাকেন্দ্রে তাকে বসতে নাও দেওয়া হতে পারে। এই বক্তব্যের প্রেক্ষিতে ভাতার কলেজের সেন্টার ইনচার্জকে বিচারপতি চক্রবর্তী নির্দেশ দেন, কোভিড বিধি মেনে সৌভিক যাতে শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা দিতে পারে, তার সমস্ত ব্যবস্থা করতে হবে। প্রয়োজনে আইসোলেশন রুমে রেখে তার পরীক্ষা নিতে হবে। পাশাপাশি সৌভিক কেউ তার এডমিট কার্ড পরীক্ষার যাবতীয় নথি পরিবহন দপ্তরে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি চক্রবর্তী।

[আরও পড়ুন: আগামী সপ্তাহ থেকেই ছুটবে কলকাতা মেট্রো, চড়তে হলে এই নিয়মগুলি মানতেই হবে]

জয়ত্রী পালের মামলাটি উঠেছিল বিচারপতি অরিন্দম সিনহার এজলাসে। জয়ত্রীর অভিযোগ শুনে বিচারপতি সিনহা নির্দেশ দিয়েছেন, পরীক্ষার আগের দিন যেহেতু লকডাউন তাই ১০ সেপ্টেম্বর তারিখ থেকে ১৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পরিবার-সহ জয়ত্রীর পরীক্ষাকেন্দ্র অর্থাৎ শিলিগুড়িতে তার থাকার ব্যবস্থা করতে হবে, যাতে তিনি নির্বিঘ্নে পরীক্ষা দিতে পারেন। শুধু মামলাকারী পরীক্ষার্থীরাই নন, সমস্ত পরীক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য পরীক্ষার দিন সকাল থেকে পর্যাপ্ত বাস পরিষেবা-সহ পরিবহণ দপ্তরকে যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement