১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নারদ মামলায় হাই কোর্টে ধাক্কা সিবিআইয়ের, স্পিকারের কাছে হাজিরা দিতে হবে তদন্তকারীদের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 4, 2021 3:33 pm|    Updated: October 4, 2021 5:25 pm

CBI faces obstruction from Calcutta High Court in Narada case

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নারদ চার্জশিট বিতর্কে কলকাতা হাই কোর্টে (Calcutta High Court) ধাক্কা খেল সিবিআই। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী আধিকারিকদের স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Biman Banerjee) সামনে হাজিরা দিতে হবে। সিবিআইয়ের করা মামলার ভিত্তিতে এমনটাই জানিয়ে দিল হাই কোর্ট। তবে, হাজিরা দিলেও স্পিকার সিবিআই আধিকারিকদের নারদ মামলায় যে চার্জশিট পেশ করা হয়েছে, সেই চার্জশিট সংক্রান্ত কোনও প্রশ্ন করতে পারবেন না। সিবিআই আধিকারিকদের বিরুদ্ধে কোনও কড়া ব্যবস্থাও নিতে পারবেন না তিনি।

Narada Case

সম্প্রতি নারদকাণ্ডে (Narada Case) রাজ্যের দুই মন্ত্রী ও এক বিধায়কের নামে চার্জশিট দেয় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই। বিধানসভার অধ্যক্ষকে না জানিয়ে রাজ্যপালের অনুমতি নিয়েই চার্জশিট দেওয়া হয়। ঘটনায় ক্ষুব্ধ হন অধ্যক্ষ। কেন তাঁকে অন্ধকারে রেখে চার্জশিটে জনপ্রতিনিধিদের নাম দেওয়া হল বিধানসভায় (West Bengal Assembly) সশরীরে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দিতে ইডি এবং সিবিআই আধিকারিকদের চিঠি দেন অধ্যক্ষ। প্রথমবার দুই তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকদের তলব করা হয় গত ৭ সেপ্টেম্বর। সেদিন কোনও সংস্থার তরফেই প্রতিনিধিরা হাজিরা দেননি। তারপর সোমবার দুপুর দেড়টায় ফের দুই তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিককে চিঠি দেন স্পিকার। কিন্তু এক্ষেত্রেও কেউ হাজিরা দেননি।

[আরও পড়ুন: WB By-Election: ‘জো জিতা ওহি সিকন্দর’, ভবানীপুরে বিপুল ভোটে জয়ের পর মমতাকে শুভেচ্ছা তথাগতর]

সিবিআই (CBI) আধিকারিকদের দাবি, রাজ্যপালের অনুমতি নিয়েই নারদ মামলায় রাজ্যের দুই মন্ত্রী এবং এক বিধায়কের নামে চার্জশিট পেশ করেছেন তাঁরা। তাই আইন অনুযায়ী এক্ষেত্রে স্পিকারের অনুমতির প্রয়োজন হয় না। আইন মেনেই যেহেতু কাজ হয়েছে, তাই তাঁরা হাজিরা দেবেন না বলে জানিয়ে দেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা। উলটে তাঁরা কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন।

[আরও পড়ুন: Bhabanipur By-Election 2021: ‘কোনও ওয়ার্ডে হারিনি’, রেকর্ড ভোটে জিতে প্রতিক্রিয়া মমতার]

আজ দুপুর দেড়টা নাগাদ সিবিআই আধিকারিকদের হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল। আদালতের শুনানি শুরু হয় দুপুর দুটো নাগাদ। শুনানিতে বিচারপতি রাজশেখর মান্থা জানিয়ে দেন, স্পিকার কোনও ব্যক্তিকে চিঠি লিখে ডাকলে তাঁকে হাজিরা দিতেই হয়। তাঁর সমন বৈধ কিনা সেটা পরে বিচার্য।  তাই সিবিআই আধিকারকদের স্পিকারের সামনে হাজিরা দিতেই হবে। স্পিকারের সামনে গিয়েই নিজেদের বক্তব্য পেশ করতে হবে তাঁদের। আজ বিকেল চারটেতেই সিবিআই আধিকারিককে স্পিকারের দপ্তরে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে, হাজিরা দিলেও সিবিআই আধিকারিকদের নারদ চার্জশিট নিয়ে কোনও প্রশ্ন করতে পারবেন না স্পিকার। সিবিআই আধিকারিকদের বিরুদ্ধে কোনও কড়া ব্যবস্থাও নিতে পারবেন না তিনি। স্পিকারের এই সমন বৈধ কিনা, সেটা নিয়ে মঙ্গলবার শুনানি হবে। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে