BREAKING NEWS

১৬ ফাল্গুন  ১৪২৭  সোমবার ১ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কয়লা পাচারে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী বিনয় মিশ্রকে ফের তলব সিবিআইয়ের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: January 18, 2021 10:51 am|    Updated: January 18, 2021 10:51 am

An Images

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কয়লা পাচারে অভিযুক্ত বিনয় মিশ্রকে ফের তলব সিবিআইয়ের। নিজাম প্যালেসে কেন্দ্রীয় সংস্থাটির দপ্তরে হাজিরা দেওয়ার জন্য নোটিস পাঠানো হয়েছে তাঁকে।

[আরও পড়ুন: ‘কবে নাগরিকত্ব কার্ড হাতে পাবেন মতুয়ারা?’, বিজেপির অস্বস্তি বাড়িয়ে প্রশ্ন শান্তনু ঠাকুরের]

সূত্রের খবর, এবার সমন এড়িয়ে গেলে বিনয়ের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করতে পারে সিবিআই। গত বছরের শেষদিন, ৩১ ডিসেম্বর তাঁকে নোটিস পাঠানো হয়েছিল। তাতে উল্লেখ ছিল, ৪ জানুয়ারি দুপুরের মধ্যে সিবিআই তদন্তকারীদের সামনে হাজির হতে হবে, জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে তাঁকে। কিন্তু দুপুর গড়ালেও গরহাজির বিনয় মিশ্র। তাঁর বিরুদ্ধে এখন নতুন করে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ভাবছেন সিবিআই কর্তারা। উল্লেখ্য, দিন পাঁচেক আগেই কয়লা পাচার কাণ্ডের চাঁইদের হেফাজতে রাজ্যের দশটি জায়গায় একযোগে তল্লাশি চালাচ্ছেন পঁচাত্তর জন আধিকারিক। দুর্গাপুর, আসানসোল, রানীগঞ্জের একাধিক জায়গায় লালা ও বিনয় মিশ্র ঘনিষ্ঠ ব্যবসায়ীদের বাড়ি ও অফিসে তল্লাশি চালানো হয়। সিবিআইয়ের সেই দলের সঙ্গে রয়েছে ছিল কেন্দ্রীয় বাহিনী। কলকাতায় আরও পাঁচটি টিম রাখা হয়। যাঁরা নির্দেশ পাওয়া মাত্র কলকাতা ও শহরতলির সন্দেহজনক ব্যবসায়ীদের বাড়িতে তল্লাশি শুরু করতেন।

প্রসঙ্গত, গরু পাচারে অভিযুক্ত এনামুল হককে হেফাজতে পেলেও কয়লা পাচারের চাঁইরা এখনও সিবিআইয়ের নাগালের বাইরে রয়েছেন। ফলে তথ্য প্রমাণ বেহাত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে সিবিআই সূত্রে খবর। কয়লা পাচারের চাঁইদের বারবার নোটিস পাঠানো সত্বেও তাঁরা সিবিআইয়ের অফিসে হাজিরা দেননি। তাই কয়েকজনের বিরুদ্ধে লুকাউট নোটিস জারি করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তবে তাঁরা দেশের বাইরে চলে যেতে পারেন বলেও শঙ্কা রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে তাঁদের আত্মীয় ও সংস্থার ম্যানেজারের মাধ্যমে নোটিস দিয়ে ডাকা হয়েছে।তাতেও বিশেষ সাড়া দেয়নি অভিযুক্তদের কেউ-ই। গরু পাচারচক্রের রাঘব বোয়ালদের কাবু করতে বৃহস্পতিবার ব্যবসায়ী বিনয় মিশ্রর বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালায় সিবিআই। রাসবিহারী ও চেতলায় ওই ব্যবসায়ীর ২টি বাড়িতে হানা দেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটির গোয়েন্দারা। সিবিআই সূত্রে খবর, গরু পাচারের বেআইনি কারবারের টাকা নির্দিষ্ট কয়েকজন প্রভাবশালীর কাছে পৌঁছে দিতেন বিনয় মিশ্র। এই অভিযোগের সপক্ষে একাধিক সাক্ষীর বয়ানও রয়েছে বলে দাবি তদন্তকারীদের।

[আরও পড়ুন: চিত্তরঞ্জনে শুটআউট, দুষ্কৃতীদের গুলিতে খুন ভিনরাজ্যের যুবক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement