১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  সোমবার ৩ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ভোটারদের হুমকি দিচ্ছে কেন্দ্রীয় বাহিনী, অভিযোগে সরব তৃণমূল

Published by: Tanujit Das |    Posted: March 17, 2019 4:59 pm|    Updated: April 17, 2019 2:37 pm

Central Force are threating local people, TMC alleged

ছবি:ফাইল

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: ভোটারদের হুমকি দিচ্ছে কেন্দ্রীয় বাহিনী৷ পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করছে তাঁরা৷ কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগে সরব হয়েছে তৃণমূলের৷ রবিবার মন্ত্রী তথা মেয়র ফিরহাদ হাকিম অভিযোগ করেন, রুট মার্চের সময় ভোটারদের হুমকি দিচ্ছে কেন্দ্রীয় বাহিনী৷ তাঁদের ভয় দেখানো হচ্ছে৷ প্রভাবিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে৷ জানা গিয়েছে, কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে এমন একগুচ্ছ অভিযোগ নিয়েই নির্বাচন কমিশনে যাচ্ছেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও দলের সর্বভারতীয় সভাপতি সুব্রত বক্সি৷

[জ্বালা যন্ত্রণা ছাড়া আগুনের ফুলকিতেই রং লাগবে শরীরে! ]

রবিবার নজরুল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয়েছিল দক্ষিণ কলকাতা লোকসভা আসনের জন্য তৃণমূলের কর্মিসভায়৷ যেখানে উপস্থিত হয়েছিলেন দলের প্রায় সমস্ত শীর্ষ নেতৃত্ব৷ কর্মীদের উদ্দেশ্যে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, ‘‘সব নির্বাচনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্বাচন৷ মালা রায় নয়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জয়ী করুন৷ এবারের নির্বাচন শুধু একটা লোকসভা নির্বাচন নয়৷এবারের নির্বাচন দেশের অখণ্ডতা রক্ষার, দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষার এবং সংবিধান রক্ষার নির্বাচন৷’’ দলের মহাসচিবের সুরেই এদিন কর্মীদের উদ্দেশ্যে বার্তা দেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমও৷ তিনি বলেন, ‘‘৪২টি আসনেই প্রার্থী একজন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তাই ৪২ জনকেই জিততে হবে৷ যখন সারা রাজ্য বুঝতে পারেনি, তখন এই দক্ষিণ কলকাতা-ই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জয়ী করেছে৷ এবারও দক্ষিণ কলকাতা বড় শক্তি যোগাবে৷ যেখানে মানুষ একজোট হয়েছে, সেখানে বিরোধীরা যতই কোর্টে যাক, সেন্ট্রাল ফোর্স দিয়েও কিছু করতে পারবে না৷ উলুবেড়িয়া ও মহেশতলায় উপনির্বাচনে সেটা সারা বাংলা দেখেছে৷ মানুষ পিছন থেকে বলেছে ‘মমতা তুমি এগিয়ে চলো, মানুষ তোমার সঙ্গে আছে’ তাই এবার শুধু বাংলা নয়, সমগ্র দেশের নেতৃত্ব দিতে হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে৷’’

[বাম সঙ্গ চায় না নেতৃত্ব, একলা লড়াইয়ের বার্তা প্রদেশ কংগ্রেসের]

এবারের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের বাঁকুড়ার প্রার্থী তথা দক্ষিণ কলকাতার দীর্ঘদিনের রাজনীতিক সুব্রত মুখোপাধ্যায় জানান, ‘‘পাঁচ বছরে যা হয়েছে, তাতে এবার জিততে পারতেন না৷ শেষে এসে যুদ্ধের জিগির তুলে, আবেগ দিয়ে কোনও কাজ না করে জয়লাভের চেষ্টা করছে বিজেপি৷ আমাদের শত্রু বিজেপি না, বিজেপির কালো টাকা৷’’ সুব্রত বক্সি বলেন, ‘‘আমাদের বাংলার মাটিতে কোনও রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ নেই৷ আমাদের সংঘবদ্ধ লড়াই করে জিততে হবে৷ বিজেপি বলছে তাদের কাছে সব আসনে প্রার্থী দেওয়ার যোগ্য লোকের অভাব রয়েছে৷ কংগ্রেস বলছে ১৫-১৭টি আসনের বেশি প্রার্থী দেওয়ার ক্ষমতা নেই৷ সিপিএম বলছে ২২-২৫ আসনের প্রার্থী দেওয়ার ক্ষমতা তাঁদের নেই৷ তাই আমাদের কোনও প্রতিপক্ষ নেই৷ যে যেখানে দায়িত্ব পাবেন, কাজ করবেন, মনে রাখবেন আমরা কেউ কারও লোক নই, সবাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লোক৷ জোড়াফুল প্রতীকের লোক৷’’ দক্ষিণ কলকাতা লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মালা রায় বলেন, ‘‘দল যা দায়িত্ব দেবে সেটা ভালও করে যেন আমরা পালন করতে পারি৷ হাতে সময় খুব কম, অতি আত্মবিশ্বাসী হয়ে বসে থাকবেন না, মাঠে নামতে হবে আমাদের৷’’ এদিন নজরুল মঞ্চে দক্ষিণ কলকাতা লোকসভা আসনে কর্মিসভায় তৃণমূলে যোগ দেন আরএসপি কাউন্সিলর নিবেদিতা শর্মা৷ কলকাতা কর্পোরেশনের অন্তর্গত ৬৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তিনি৷ 

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে