BREAKING NEWS

১ আষাঢ়  ১৪২৮  বুধবার ১৬ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

দিল্লিতে নয়, সোমবার নবান্নে গিয়েই দায়িত্ব সামলাবেন আলাপন! তুঙ্গে জল্পনা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 30, 2021 1:56 pm|    Updated: May 30, 2021 4:14 pm

Chief secretary of Bengal Alapan Bandyopadhyay may not join Delhi on Monday, instead he will continue works at Nabanna |Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Alapan Bandyopadhyay) দিল্লিতে বদলির নির্দেশ ঘিরে চরমে কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত। তবে তারই মধ্যে খবর, সোমবার দিল্লিতে গিয়ে রিপোর্ট করছেন না মুখ্যসচিব। নবান্নে যে নির্ধারিত কর্মসূচি ছিল তাঁর, তাতেই উপস্থিত থাকবেন আলাপন। সূত্রের খবর এমনই। অর্থাৎ আপাতত আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লি (Delhi) যাচ্ছেন না, রাজ্যে তাঁর যেসব দায়িত্ব রয়েছে, সেটাই পালন করবেন।

মুখ্যসচিবকে ঘিরে বর্তমানে কেন্দ্র-রাজ্যের মধ্যে যে টানাপোড়েন তৈরি হয়েছে, তাতে তিনি কী করতে চলেছেন, সেটাই বড় প্রশ্ন হয়ে উঠছিল। কেন্দ্রের নির্দেশ শিরোধার্য করে দিল্লিতে গিয়ে নর্থ ব্লকে রিপোর্ট করবেন নাকি রাজ্যর নির্দেশমতো এখানে থেকেই কাজ করবেন? তা অনেকাংশেই নির্ভরশীল আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিজের সিদ্ধান্তের উপর। ঘটনাক্রম থেকে ইঙ্গিত মিলছিল, রাজ্যের মুখ্যসচিব হিসেবে তাঁর কাজ চালিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাই প্রবল। সেক্ষেত্রে বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ানো এবং কেন্দ্রের তরফে তাঁকে শো-কজ করা ছাড়া বিশেষ কিছু করার ছিল না। কারণ, সংবিধান এবং ভারতীয় সিভিল সার্ভিসের (Indian Civil Service) রুল বুকে স্পষ্ট বলা রয়েছে, আইএএস বা আইপিএস আধিকারিকের ‘এমপ্লয়মেন্ট অথরিটি’ অর্থাৎ তিনি রাজ্যের অধীনে কর্মরত হলে, তাঁর বিরুদ্ধে কেন্দ্র কোনও ব্যবস্থা নিতে পারে না। কেন্দ্র আধিকারিকদের ‘সেন্ট্রাল ডেপুটেশনে’ ডাকতেই পারে।

[আরও পড়ুন: সব সোনার গয়নায় হলমার্কে সমস্যায় পড়বেন ছোট ব্যবসায়ীরা, সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনায় কেন্দ্রকে চিঠি]

এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শনিবার জানিয়েছিলেন, মুখ্যসচিবের বদলি নিয়ে কেন্দ্র ইতিমধ্যে আদালতে ক্যাভিয়েট করে রেখেছে। তবে মতান্তর হলে রাজ্য বা কেন্দ্র কিংবা সংশ্লিষ্ট আধিকারিক সেন্ট্রাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনালের দ্বারস্থ হতে পারেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিজেপির সাম্প্রতিকতম সংঘাতকে নতুন মোড় দেওয়ার লক্ষ্যেই কেন্দ্রের এই বদলির নির্দেশ বলে মনে করছেন অনেকে। এই অবস্থায় জল্পনা জোরদার, আলাপন দিল্লি যাচ্ছেন না। বরং সোমবার তিনি নবান্নে (Nabanna) নির্ধারিত কর্মসূচিতে যোগ দেবেন। দুপুর তিনটেয় মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে ‘যশ’ পরিস্থিতি নিয়ে পর্যালোচনা বৈঠকেও হাজির থাকতে পারেন মুখ্যসচিব। এদিকে, এই ইস্যুতে বিজেপি রাজ্য নেতাদের মুখ খোলায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে শীর্ষ নেতৃত্ব। বলা হয়েছে, ৩১ মে পর্যন্ত এ নিয়ে কোথাও কোনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া চলবে না।

[আরও পড়ুন: হাসপাতাল থেকে ছুটি পেলেন মদন মিত্র, খোশমেজাজে গেয়ে উঠলেন ‘ও লাভলি’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement