BREAKING NEWS

১০ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ২৪ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

শহরের রাজপথ সাজবে রঙিন আলপনায়, পুরসভার বেনজির উদ্যোগ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 14, 2017 7:13 am|    Updated: September 19, 2019 3:27 pm

City to flourished with colorful Alpona, KMC initiative

অনির্বাণ বিশ্বাস: নীল সাদার পর এবার রঙিন আলপনায় সেজে উঠতে চলেছে শহরের রাজপথ। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাবনাকেই বাস্তবে রূপ দিতে চলেছে কলকাতা পুরসভা। ঠিক হয়েছে লালদিঘির সামনের রাস্তাতেই প্রথম লাগবে আলপনার ছোঁয়া। যুব বিশ্বকাপের ফাইনালের আগেই যুবভারতীর রাস্তায় রঙিন আলপনা নজর কেড়েছিল গোটা বিশ্বের। মুগ্ধ হয়েছিলেন খোদ ফিফা প্রেসিডেন্টও। সেই আলপনাতেই এবার খোলনলচে বদলাবে তিলোত্তমার রাস্তা।

[এক বাঙালির হাত ধরেই হিমাচলে আবিষ্কার অতি বিরল কেউটের]

এই মুহূর্তে জেলাসফরে মুকুটমণিপুরে আছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে কংসাবতীর সরকারি অতিথিশালায় উঠেছেন তিনি। সেখানে বসেই তিনি খবর পান পর্যটক টানতে রাস্তা জুড়ে আলপনা আঁকছেন বিশ্বভারতীর ছাত্র-ছাত্রীরা। সঙ্গে সঙ্গে মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেনকে নিয়ে তিনি আলপনা আঁকা দেখতে যান। রাস্তা জুড়ে বাহারি আলপনা দেখে মুগ্ধ মুখ্যমন্ত্রী। ওখানে দাঁড়িয়েই তিনি সিদ্ধান্ত নেন রক্ষা করতে হবে এই আলপনা সংস্কৃতিকে। এরপরেই তাঁর ভাবনায় ঢুকে পড়ে শহর কলকাতা। পাশে দাঁড়ানো মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেনকে তিনি বলেন, কলকাতা পুরসভার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়কে ফোন করতে। ফোনেই তিনি মেয়রকে জিজ্ঞেস করেন, শহরের রাস্তায় সুসজ্জিত আলপনা দিয়ে বছরভর তা ধরে রাখা যায় কিনা।

[শীতে দিঘায় পিকনিকে যাচ্ছেন, এই নতুন নিয়মটি জানেন তো?]

মুখ্যমন্ত্রীর সৃজনশীল এই চিন্তাকে তৎক্ষণাৎ সায় দেন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে চিন্তা-ভাবনা শুরু করে দিয়েছে কলকাতার মহানাগরিক। তাঁর কাছে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রীর ফোন পেয়েছি। বাঁকুড়ার মুকুটমণিপুরে রাস্তাজুড়ে আলপনা দেখে তিনি মুগ্ধ হয়েছেন। তা কলকাতার রাস্তায় ফুটিয়ে তোলা যায় কি না তা দেখতে বলেছেন।” জানা গিয়েছে, প্রাথমিক ভাবে কলকাতার গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাতেই এ ধরনের আলপনা ফুটিয়ে তোলার কাজ করার পরিকল্পনা নিচ্ছে কলকাতা পুরসভা। ঠিক হয়েছে আলাদা আলাদা রাস্তায় ভিন্ন ভিন্ন আলপনা দেওয়া হবে। কোন রাস্তায় কী ধরনের বিন্যাস বা ডিজাইন থাকবে তার বিস্তারিত প্রোজেক্ট রিপোর্ট তৈরি করে জমা দেওয়া হবে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে। রাস্তায় আলপনার শৈলি তৈরিতে মুখ্যমন্ত্রীর চিন্তাকেই প্রাধান্য দিচ্ছে পুরসভা। সূত্রের খবর, দেখা মিলতে পারে মুখ্যমন্ত্রীর তৈরি করা কোনও ডিজাইনও। আপাতত শহরের প্রথম আলপনা রাস্তায় সেজে উঠতে চলেছে লালদিঘির সামনের রাস্তা।

[বর্ষবরণের পার্টিতে লালসা মেটাতে মহিলাদের ডেট রেপ ড্রাগ, সতর্ক গোয়েন্দারা]

চলতি বছরে দুর্গাপুজোয় প্রথম রাস্তায় আলপনার সাক্ষী থেকেছে শহর। তারপর যুব বিশ্বকাপের হাত ধরে রঙিন আলপনা দেখেছে বিশ্ববাসী। কিন্তু তখনও পর্যন্ত কারও মাথায় আসেনি শহরের রাস্তায় দীর্ঘস্থায়ী আলপনা। শেষ পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরেই নতুন রূপে সেজে উঠতে চলেছে তিলোত্তমা।

ফাইল চিত্র

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে