১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

একুশের আগে কর্মসংস্থানে জোর, শিক্ষক নিয়োগ, পুলিশে নতুন ৩ ব্যাটেলিয়নের ঘোষণা মমতার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: November 11, 2020 4:29 pm|    Updated: November 11, 2020 4:42 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যে কর্মসংস্থানের পথ আরও প্রশস্ত। বুধবার নবান্নে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানালেন দুটি ক্ষেত্রে ফের নিয়োগের সুখবর। নিরাপত্তায় জোর দিয়ে রাজ্য পুলিশে আরও তিনটি নতুন ব্যাটেলিয়ন (Battalion) তৈরি হচ্ছে। কোভিড (COVID-19) পরবর্তী পরিস্থিতিতে শূন্য পদে নিয়োগ করা হবে শিক্ষকদেরও। তাঁর এই ঘোষণা শুনে স্বভাবতই খুশি রাজ্যবাসী। একুশের ভোটকে সামনে রেখে এমন ঘোষণা বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

কোভিড পরিস্থিতিতে থমকে গিয়েছে অনেক কাজই। নানা টানাপোড়েনের জেরে শিক্ষক নিয়োগও হচ্ছিল না বেশ কয়েক বছর। কিন্তু এবার ফের করোনাকে হারিয়ে ছন্দে ফেরার পালা। আগের মতো সমস্ত কাজ জোরকদমে শুরু করতে হবে। চার রূপরেখা ঠিক করতে এদিন নবান্নে মন্ত্রিসভার বৈঠক ডেকেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তা শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি জানান, ”কোভিড পরিস্থিতির উন্নতি হলে শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ শুরু হবে। ডিসেম্বর থেকেই ১৬ হাজার পদে নিয়োগ করা হবে টেট উত্তীর্ণদের। যাবতীয় নিয়মকানুন স্থির করে পরে জানাবে শিক্ষাদপ্তর।” এই মুহূর্তে উত্তীর্ণ টেট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা রাজ্যে ২০ হাজার। তাঁরাই নিয়োগে অগ্রাধিকার পাবেন। আগামী বছর টেট হবে অফলাইনে, ইতিমধ্য়ে আড়াই লক্ষ আবেদনপত্র জমা পড়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: সাবধান! ট্রেন চলার সুযোগ নিয়ে ফের বাড়তে পারে ‘কিশোর গ্যাং’য়ের উপদ্রব]

রাজ্যের নিরাপত্তায় গুরুত্ব দিয়ে এদিন আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্য পুলিশে নতুন করে আরও তিনটি ব্যাটেলিয়ন তৈরি হচ্ছে। পাহাড়ের নিরাপত্তায় গোর্খা ব্যাটেলিয়ন, জঙ্গলমহলের জন্য একটি ব্যাটেলিয়ন এবং কোচবিহারের নারায়ণী ব্যাটেলিয়ন তৈরির কথা তিনি জানিয়েছেন। এই তিন ব্যাটেলিয়নে অন্তত ৩০০০ নিয়োগ হবে বলে ঘোষণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তবে কীভাবে, কবে থেকে নিয়োগ হবে, কারা সুযোগ পাবেন, সেসব রূপরেখা স্থির করার দায়িত্ব তিনি রাজ্য পুলিশের শীর্ষকর্তাদের উপরই ছেড়েছেন। এই ঘোষণায় অনেকে রাজনৈতিক চাল হিসেবে দেখলেও কাজের সুয়োগ বৃদ্ধি পাওয়ায় বেশ খুশি রাজ্যের সাধারণ নাগরিকরা। 

[আরও পড়ুন: উধাও শীতের আমেজ, একধাক্কায় ২২ ডিগ্রিতে পৌঁছল কলকাতার তাপমাত্রা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement