BREAKING NEWS

১৫ ফাল্গুন  ১৪২৭  সোমবার ১ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিনামূল্যে টিকা পাবেন রাজ্যবাসী, খরচ দিতে প্রস্তুত সরকার, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Paramita Paul |    Posted: January 16, 2021 5:15 pm|    Updated: January 16, 2021 5:22 pm

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: কেন্দ্র থেকে পাঠানো টিকার পরিমাণ যথেষ্ট নয়। প্রয়োজনে প্রস্তুতকারী সংস্থার কাছ থেকে সরাসরি করোনা প্রতিষেধক কিনবে রাজ্য। সকল রাজ্যবাসী বিনামূল্যে কোভিড ভ্যাকসিন (COVID-19 Vaccine) পাবেন। প্রয়োজনে খরচ দেবে রাজ্য সরকার। টিকাকরণ প্রক্রিয়া শুরুর প্রথমদিনই এ কথা জানিয়ে রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamta Banerjee)।

টিকাকরণ প্রক্রিয়া নিয়ে শনিবার জেলাশাসক ও জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করেন রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। আলোচনার মাঝেই মুখ্যমন্ত্রী সঙ্গে ফোনে কথা সারেন মুখ্যসচিব। সেই সময়ই প্রয়োজনীয় টিকার বন্দোবস্ত ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে আশ্বস্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সকালে অবশ্য এক ভারচুয়াল অনুষ্ঠানে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, আশাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেছিলেন তিনি। সেই অনুষ্ঠানেও সকল রাজ্যবাসীকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা জানান মুখ্যমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন : ট্রায়াল শেষ হয়নি, কোভ্যাক্সিন নিতে নারাজ বহু চিকিৎসক, অস্বস্তিতে কেন্দ্র]

এদিন মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, কেন্দ্র মাত্র ১.৫ কোটি ডোজ করোনা ভ্যাকসিন পাঠিয়েছে। ডবল ডোজের ভ্যাকসিন হলে মোট ৩ কোটি টিকার দরকার হয়। এদিকে রাজ্যের জনসংখ্যা প্রায় ১৩০ কোটি। তাই বাকি রাজ্যবাসীকে কোভিড টিকা দেওয়ার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করতে তৈরি রাজ্য সরকার। প্রয়োজনে টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থার সঙ্গে কথা বলে সরাসরি ভ্যাকসিন কিনবে রাজ্য। নবান্ন থেকে জারি করা প্রেস বিজ্ঞপ্তিতেও একই কথা জানানো হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী চান, দ্রুত সকল রাজ্যবাসী বিনামূল্যে কোভিড টিকা পাক। কেন্দ্র দ্রুত এই টিকা পাঠাক। এজন্য রাজ্য প্রয়োজনীয় খরচ বহণ করতে তৈরি বলে জানিয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে যাতে গুজব না ছড়ায় তার দিকেও নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

নবান্নের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, রাজ্যে ২০৭টি এলাকায় ২০ হাজার স্বাস্থ্যকর্মীকে কোভিড টিকা দেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্যভবন থেকে জানানো হয়েছে, সপ্তাহে চারদিন সোম, বুধ, শুক্র ও শনিবার কোভিড ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। আগামী সপ্তাহ থেকেই এই নিয়ম কার্যকর হবে।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকেও পরিবহণকর্মীকে কোভিডযোদ্ধার তালিকায় আনার সুপারিশ করেছিলেন তিনি। এদিন শুধু পরিবহণ কর্মী নয়, সকল রাজ্যবাসীকে দ্রুত টিকা দেওয়ার সুপারিশ করেছেন তিনি। যদিও কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে প্রথম দফায়. শুধুমাত্র কোভিডযোদ্ধারা এই টিকা পাবেন।

[আরও পড়ুন : ডাক্তার-স্বাস্থ্যকর্মী না হয়েও করোনা টিকা নিলেন কয়েকজন বিধায়ক! ক্ষোভপ্রকাশ বিজেপির]

উল্লেখ্য, এই প্রথম নয়, এর আগেও মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, রাজ্যবাসীকে বিনামূল্যে টিকা দেবে রাজ্য সরকার। এনিয়ে তুমুল রাজনৈতির টানাপোড়েনও তৈরি হয়। বিজেপি নেতাদের অভিযোগ ছিল, কেন্দ্র বিনামূল্যে টিকা দেওযার কথা ঘোষণা করেছে। তা নিজের নামে চালাতে চাইছে রাজ্য।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement