BREAKING NEWS

১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

তাপসকে গ্রেপ্তারির নির্দেশ বিজেপি অফিস থেকেই: মমতা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 30, 2016 6:33 pm|    Updated: December 30, 2016 6:33 pm

 CM Mamata Slams Modi Govt. on demonetisation and chitfund scam

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নোট বাতিলের ৫০ দিন মেয়াদ পূর্তির দিনেই গ্রেপ্তার তৃণমূল সাংসদ তাপস পাল৷ রোজভ্যালি কাণ্ডে শুক্রবার তাঁকে গ্রেপ্তার করেছে সিবিআই৷ আর এ ব্যাপারে মোদি সরকারকে তীব্র আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ জানালেন, তাঁর প্রতিবাদের মুখ বন্ধ করতেই এই প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে কেন্দ্র৷

তাপস পালের গ্রেপ্তারি নিয়ে এদিন কেন্দ্রকে নজিরবিহীন আক্রমণ করেন মমতা৷ জানালেন, নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করা হচ্ছে বলেই তাঁর দলের সাসংদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ কেননা ৫০ দিন পরেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি৷ তাই এ নিয়ে প্রতিবাদে সরব হবে তৃণমূল৷ তা যাতে না হয় তাই আগেভাগেই সাসংদকে গ্রেপ্তার করা হল৷ তাঁর দাবি, কোনও সাসংদকে গ্রেপ্তার করেই তাঁকে ভয় দেখানো যাবে৷ তাঁর সমস্ত সাংসদ ও  বিধায়করা গ্রেপ্তারের জন্য তৈরি৷ কোনও সমন পাঠানোরও দরকার নয়৷ এমনকী এই নির্দেশ পিএমও ও বিজেপি অফিস থেকে এসেছে বলেও তোপ দাগেন তিনি৷ তাঁর দাবি, কাকে কাকে গ্রেপ্তার করা হবে সব তথ্য তাঁর কাছে আছে৷ এবং কাকে কী জিজ্ঞাসা করা হবে তাও জানেন তিনি৷ সময় এলে এ ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য তিনি জানাবেন বলেও হুঁশিয়ারি দেন মমতা৷ কোনও সাংসদের গ্রেপ্তারিতে তাঁকে দমানো যাবে না বলে মুখ্যমন্ত্রী জানান, চাইলে সরকার তাঁকেও গ্রেপ্তার করতে পারেন৷

নাম না করলেও এদিন তাপস পালের পাশেই দাঁড়ালেন মমতা৷ বললেন, সিনেতারকারা তো ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডার হবেই৷ সেটাই তাঁদের কাজ৷ তাঁর কথায়, অমিতাভ বচ্চনও তো গুজরাটের অ্যাম্বাসাডার৷ শাহরুখ খান বাংলার৷ তার মানে কি তাঁরা চোর হয়ে গেলেন? কোনও সিনেমার তারকা কোনও চ্যানেলের অনুষ্ঠানে গেলেই তিনি কি দোষ করলেন, প্রশ্ন মুখ্যমন্ত্রীর৷ তাঁর পাল্টা তোপ, কোনও বিশেষ চ্যানেলে যদি যাওয়া অপরাধ হয়, তাহলে সেই চ্যানেল এতদিন চলছে কী করে? আর এরপরই তোপ দেগে তিনি বলেন, চিটফাণ্ডের জন্য যদি কেউ দায়ী হয় তবে তা কেন্দ্র৷ কেননা রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ও সেবির প্রশ্রয়েই চিটফাণ্ডগুলি মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে বলেও তোপ দাগেন তিনি৷ পাশাপাশি এদিন বিজেপিকেও আক্রমণ করলেন মমতা৷ তাঁর প্রশ্ন, রোজভ্যালি থেকে বিজেপি নেতারা কি টাকা নেয়নি? বাবুল সুপ্রিয় ও রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের নাম করে তিনি বলেন, তাঁরা কি পাঁচতারা হোটেলের আতিথেয়তা নেয়নি? একই সঙ্গে বিজেপি পার্ল গ্রুপ চিট ফাণ্ডের ৫০ হাজার কোটির দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত বলেও অভিযোগ করেন মমতা৷

নোট বাতিলের ৫০ দিন পূর্তিতে আরও একবার মোদির পদত্যাগ দাবি করলেন তিনি৷ তীব্র কটাক্ষ করে তিনি বলেন, দেশের অর্থনীতি পিছিয়ে গিয়েছে৷ যে ক্ষতি হয়েছে তা কিছুতেই পূরণ হওয়ার নয়৷ কিন্তু মোদি সরকার সে ব্যাপারে নিশ্চুপ৷ পেটিএমের মতো অ্যাপ ব্যবহার করতে কেন সাধারণ মানুষকে বাধ্য করা হচ্ছে সে নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি৷ নোটবন্দির জেরে শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে৷ মোদি সরকার তাঁদের জন্য কী করেছে সে প্রশ্ন তোলেন মমতা৷ পাশাপাশি কটাক্ষ করে তিনি বলেন কোনও বিজেপি নেতার ভাষণে মৃতদের সম্পর্কে একটি কথাও নেই৷ আর তাই তাঁর দাবি, এই সরকার গরিব মানুষের বিরোধী৷ সাধারণ মানুষকে ভাতে মারার পরিকল্পনা করেছে বলে অভিযোগ মমতার৷ কেন্দ্রকে আক্রমণের সঙ্গে সঙ্গেই রাজ্য সরাকরি কর্মাচারীদের দশ শতাংশ ডিএ বাড়ানোর কথাও ঘোষণা করেন মমতা ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে