BREAKING NEWS

৭ কার্তিক  ১৪২৮  সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

দেরিতে পৌঁছনোয় পরীক্ষায় বসা হল না, প্রতিবাদে আমরণ অনশনে মাও নেতা বিক্রম

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: December 18, 2018 3:02 pm|    Updated: December 18, 2018 3:02 pm

Comrade Bikram barred from NET exam

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পরীক্ষাকেন্দ্রে সময়মতো না পৌঁছনোয় নেট-এ বসা হল না মাওবাদী নেতা বিক্রম ওরফে অর্ণব দামের। মঙ্গলবার তাঁর পরীক্ষা ছিল সকাল সাড়ে ন’টার সময়। কিন্তু কারারক্ষী বাহিনীর ঘেরাটোপে তিনি পৌঁছন ৯.২৫ নাগাদ। স্বভাবতই তাঁকে পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢুকতে দেওয়া হয়নি বলে জানা গিয়েছে। গোটা ঘটনায় প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ মাও নেতা অর্ণব। তিনি অভিযোগের আঙুল তুলেছেন কারাদপ্তরের দিকে। তাঁর দাবি, কারাদপ্তরের গাফিলতির জন্যই তিনি পরীক্ষায় বসতে পারলেন না। তাদের ভুলের খেসারত দিতে হল তাঁকে। ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে মানবাধিকার সংগঠনগুলি। পরীক্ষায় বসতে না পারার ক্ষোভে প্রেসিডেন্সি জেলে আমরণ অনশনে বসলেন অর্ণব দাস। তিনি লিখিত অভিযোগ করেছেন কারামন্ত্রী ও কারাদপ্তরের ডিজির কাছে। তাঁদের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

[অধ্যাপক হওয়ার স্বপ্নে বুঁদ জঙ্গলমহলের মাওবাদী নেতা বিক্রম]

প্রসঙ্গত, সংশোধনাগারে বন্দি হয়ে থেকেই ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি টেস্ট বা নেট-এ বসার জন্য তোড়জোড় শুরু করেন ধৃত মাও নেতা বিক্রম। এদিন সকাল সাড়ে ন’টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত তাঁর এই পরীক্ষা ছিল টাটা কনসালটেন্সি সার্ভিস বা টিসিএস-এর অফিসে। রাজ্য কারা দপ্তর থেকে জানানো হয়, সংশোধনাগারে থেকে রাজনৈতিক বন্দি হয়ে এই প্রথম কোনও ধৃত মাও নেতা নেট পরীক্ষায় বসছেন। কিন্তু এদিন দেরিতে পৌঁছনোয় পরীক্ষায় বসা হল না বিক্রমের। তাঁর অভিযোগ, জেল কর্তৃপক্ষ সবই জানত। এদিন পরীক্ষার অনেক আগে থেকেই তিনি তৈরি হয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর দাবি, কারারক্ষীরা তাঁকে বলেন, এই বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে কোনও নির্দেশিকা আসেনি। তারপর শেষমেশ যখন পরীক্ষাকেন্দ্রের উদ্দেশে বিক্রমকে নিয়ে কারারক্ষীরা রওনা হন তখন দেরি হয়ে যায়। ততক্ষণে পরীক্ষাকেন্দ্রের গেট বন্ধ হয়ে যায়। পরীক্ষা শুরুর পাঁচ মিনিট আগে পৌঁছনোয় স্বাভাবিকভাবেই বিক্রমকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এতেই ক্ষোভপ্রকাশ করেন বিক্রম। তাঁর অভিযোগ ইচ্ছাকৃতভাবে তাঁকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হল না। এর প্রতিবাদে আমরণ অনশনে বসেছেন মাও নেতা।

[কুলটিতে শুটআউট, ১৫ ঘণ্টা পর উদ্ধার যুবকের ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ]

মানবধিকার কর্মী রঞ্জিত সুর এই বিষয়ে জানিয়েছেন, ‘রাজ্য সরকার ইচ্ছা করেই অর্ণব দামকে পরীক্ষায় বসতে দেয়নি। কারণ, সমাজে এই মাও নেতার মুক্তির একটা দাবি জোরাল হয়েছে। আর নেট-এ পাশ করলে সেই দাবি আরও বাড়বে। তাই রাজ্য পরিকল্পিতভাবে তাঁকে পরীক্ষায় বসতে দেয়নি।’ অর্ণব দামের মা কল্যাণী সরকার দাম ‘সংবাদ প্রতিদিন ডট ইন’-কে জানিয়েছেন, ‘আজ পরীক্ষায় বসার কথা ছিল অর্ণবের। কিন্তু তাঁকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়নি। কার গাফিলতি, কেন এমন হল সে বিষয়ে কোনও মন্তব্য করব না।’ এই বিষয়ে কারাদপ্তরের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement