২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

করোনার বলি কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল, ফের আশঙ্কার মেঘ লালবাজারে

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 7, 2020 9:13 am|    Updated: June 7, 2020 9:15 am

An Images

অর্ণব আইচ: করোনার বলি কলকাতা পুলিশের এক কনস্টেবল। শনিবারের সন্ধে নাগাদ কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে খবর। ৩ তারিখ তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। হাসপাতালে ভরতি করিয়ে চিকিৎসা শুরু হয়। চিকিৎসার খুব বেশি সুযোগ পাওয়া যায়নি। গতকালই তাঁর মৃত্যু হয়।

কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল পদে কর্মরত বছর আটচল্লিশের ওই কর্মীর বাড়ি শিলিগুড়ির ফাঁসিদেওয়া ব্লকে। স্ত্রী সিঁড়ি থেকে পড়ে গিয়েছেন, এই খবর পেয়ে সপ্তাহখানেক আগে বাড়ি গিয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকে ফেরেন ১ জুন। এরপর তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হয়, জ্বরও আসে। তাঁর লালারস সংগ্রহ করে পরীক্ষায় পাঠানো হয়। ৩ তারিখ সেই রিপোর্ট পজিটিভ হয়। এরপরই তাঁকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, যা এই মুহূর্তে শহরের অন্যতম বড় COVID হাসপাতাল, সেখানে ভরতি করানো হয়। মনে করা হচ্ছে, কলকাতা থেকে শিলিগুড়ি যাতায়াতের সময়েই তাঁর শরীরে সংক্রমণ ঘটেছে।

[আরও পড়ুন: সপ্তাহের প্রথমদিন কত বেসরকারি বাস নামবে রাস্তায়? ঠিক করতে বৈঠকে পরিবহণ কর্তারা]

পুলিশ সূত্রে খবর, সাউথ ডিভিশনের (ডিআরও) অফিসে এই কনস্টেবল কর্মরত ছিলেন। আগেই কলকাতা পুলিশের অন্দরে থাবা বসিয়েছিল মারণ করোনা ভাইরাস। সেখানে বেশ কয়েকজন কর্মী, আধিকারিকরা করোনা পজিটিভ হয়েছিলেন। তবে একইসঙ্গে শতাধিক কর্মীর সুস্থতার খবরে স্বস্তি ফিরেছিল লালবাজারে। কিন্তু ফের আশঙ্কার মেঘ ঘনাল শেক্সপিয়র থানায় কর্তব্যরত এই কনস্টেবলের মৃত্যুতে। খবর পাঠানো হয়েছে তাঁর শিলিগুড়ির বাড়িতে। দু দিন আগেই যিনি বাড়ি ফিরেছিলেন, এবার তাঁকে ফিরতে হবে কফিনবন্দি হয়ে। স্বভাবতই শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যরা।

[আরও পড়ুন: আমফানে আর্থিক ক্ষতি ১ লক্ষ কোটিরও বেশি, কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলকে হিসেব দিল নবান্ন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement