Advertisement
Advertisement
C V Anand Bose

শপথ ঘিরে তুঙ্গে সংঘাত, নবনির্বাচিত বিধায়কদের ‘অসম্মানজনক’ চিঠি রাজ্যপালের!

বরানগর ও ভগবানগোলার বিধায়ককে শপথ পড়াবেন রাজভবন মনোনীত কোনও ব্যক্তি, উল্লেখ চিঠিতে। আর এই বয়ানকেই 'অসম্মানজনক' বলে মনে করছে তৃণমূলের পরিষদীয় দল। যদিও ভগবানগোলার বিধায়ক রেয়াত হোসেন রাজ্যপালের কোনও চিঠি পাননি বলে জানিয়েছেন।

Controversy raises after WB Guv C V Anand Bose writes letter to newly elected MLAs for taking oath

ফাইল ছবি।

Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:June 22, 2024 5:28 pm
  • Updated:June 22, 2024 5:50 pm

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: নবনির্বাচিত বিধায়কদের শপথ নিয়ে রাজভবন-বিধানসভা সংঘাত আরও তুঙ্গে। শপথ গ্রহণের জন্য নতুন দুই বিধায়ককে আলাদা করে চিঠি পাঠালেন রাজ্যপাল। তাতে আগামী ২৬ জুন শপথ অনুষ্ঠানের কথা উল্লেখ করে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন সিভি আনন্দ বোস ( C V Anand Bose)। ওইদিন দুপুর ১২টা থেকে শুরু হবে অনুষ্ঠান। তবে চিঠিতে এও উল্লেখ রয়েছে, ওইদিন রাজভবন (Raj Bhawan) মনোনীত কোনও সদস্য তাঁদের শপথ পড়াবেন, যা ‘অসম্মানজনক’ বলে মনে করছে তৃণমূল পরিষদীয় দল। এই চিঠির প্রাপ্তি স্বীকার করেছেন বরানগরের ভাবী বিধায়ক সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে চিঠি পাননি বলে জানিয়েছেন ভগবানগোলার রেয়াত হোসেন সরকার।

এর আগে সায়ন্তিকা ও রেয়াত হোসেনের শপথ নিয়ে স্পিকার (Speaker) বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যপালকে চিঠি পাঠিয়েছিলেন। তার কোনও উত্তর আসেনি। শনিবার রাজ্যপালের তরফে আলাদা চিঠি পাঠানো হয়েছে দুই ভাবী বিধায়ককে। বরানগরের সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায় (Sayantika Banerjee) চিঠি পেয়েই যোগাযোগ করেন পরিষদীয় মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে। কেন হঠাৎ আলাদা করে বিধায়কদের চিঠি, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এছাড়া চিঠির বয়ানেও আপত্তি তুলেছে পরিষদীয় দল।

Advertisement

[আরও পড়ুন: প্রদেশ কংগ্রেসের ভাঁড়ে মা ভবানী! রীতি ভেঙে উপনির্বাচনে লড়ার খরচ দিতে রাজি AICC]

পরিষদীয় মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্য়ায়ের বক্তব্য, ”চিঠিতে লেখা রয়েছে, রাজ্য়পাল নন, রাজভবন মনোনীত কেউ নবনির্বাচিত বিধায়কদের শপথ পড়াবেন। এটাকে আমরা অসম্মানজনক বলে মনে করছি। এটা রীতি নয়। আর তাছাড়া শপথ নিয়ে স্পিকারের চিঠির কোনও উত্তর না দিয়ে রাজ্যপাল নিজে বিধায়কদের চিঠি লিখলেন কেন, সেই প্রশ্নও থাকছে। আমরা বিষয়টা নিয়ে দলীয় স্তরে আলোচনা করছি। মুখ্যমন্ত্রীর পরামর্শ নেওয়া হবে। তার পরই ঠিক হবে, ২৬ তারিখের অনুষ্ঠানে যাওয়া হবে কি না।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘ডিজিটাল অ্যারেস্ট’-এর হুমকি! দিল্লি পুলিশ পরিচয়ে ৩ কোটি হাতাল জালিয়াতরা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ