৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সম্পত্তির লোভে প্রতিবন্ধী বোনকে খুন দিদির, ধুন্ধুমার বেহালায়

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 10, 2018 5:07 am|    Updated: January 10, 2018 5:15 am

An Images

অর্ণব আইচ:  বেহালায় এক প্রতিবন্ধী মহিলার মৃত্যু ঘিরে দানা বেঁধেছে রহস্য৷ প্রতিবেশীদের অভিযোগ, মায়ের সম্পত্তির হাতিয়ে নিতেই ওই প্রতিবন্ধী মহিলাকে খুন করেছে তাঁর  দিদি ও জামাইবাবু৷ বেহালা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতার মা৷ বুধবার সকালে এই ঘটনায় রীতিমতো উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়৷ মৃতার দিদির বাড়িতে চড়াও হন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ তাকে মারধর করা হয়৷ যদিও প্রতিবন্ধী বোনকে খুনের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মৃতার দিদি কেয়া মণ্ডল৷

[পোশাক পরীক্ষার অছিলায় শরীরে হাত, স্কুলেই নাবালিকা ছাত্রীকে যৌন হেনস্তা]

জানা গিয়েছে, মৃত মহিলার নাম কাকলি দাস৷ মূক ও বধির ছিলেন তিনি৷ বেহালার ব্রজেন মুখার্জি রোডে দিদি কেয়া মণ্ডলের শ্বশুরবাড়িতে বিধবা মায়ের সঙ্গে  থাকতেন কাকলি৷ প্রতিবেশীদের অভিযোগ, সম্পত্তির লোভে মা ও বোনকে নিয়মিত মারধর করত কেয়া ও তার স্বামী৷ এমনকী, গত চার মাস ধরে তাঁদের ঠিকমতো খেতে পর্যন্ত দেওয়া হত না৷ স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে তাঁরা দেখেন, কাকলির মৃতদেহ সৎকারের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে৷ বিষয়টি জানাজানি হতেই কেয়া মণ্ডলের বাড়ির সামনে জড়ো হন এলাকার বাসিন্দারা৷ তাঁদের দাবি, মৃতার দিদি জানায়, মঙ্গলবার দুপুরে মারা গিয়েছেন মূক ও বধির ওই মহিলা৷ কিন্তু, ডেথ সার্টিফিকেটে মৃত্যু সময় বিকেল ৫ টা লেখা ছিল৷ এরপরই মৃতদেহ আটকে রেখে খবর দেওয়া হয় বেহালা থানায়৷ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ৷

[প্রোমোটিং বিবাদে ব্যবসায়ীকে গুলি করে খুন, চাঞ্চল্য কড়েয়ায়]

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার সকালে এলাকায় তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে৷ অভিযুক্ত কেয়া মণ্ডলের বাড়িতে চড়াও হয়ে, তাকে মারধর করেন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ বস্তুত, কেয়া মণ্ডল ও তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে সম্পত্তির লোভে কাকলিকে খুন করার অভিযোগ তুলেছেন মৃতার মামাও৷ যদিও প্রতিবন্ধী বোনকে খুন করার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত দিদি৷ তাঁর দাবি, দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন কাকলি৷ অসুস্থতার কারণেই মারা গিয়েছেন তিনি৷

[বড়সড় ফাটলের জেরে অবরুদ্ধ ভিআইপি রোড, যানজটে নাকাল নিত্যযাত্রীরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement